• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ABHISHEK BANERJEE NOW JOINED NEW SOCIAL MEDIA SPACE KU APP PLAN OF DIGITAL EXPANSION AKD

Abhishek Banerjee: ফেসবুক ট্যুইটারের পর এবার কু, লড়াইয়ের ময়দানে কেন এই মাধ্যমকে বেছে নিলেন অভিষেক

এবার কু অ্যাপেও সক্রিয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Abhishek Banerjee: উল্লেখ্য, এই অ্যাপের প্রশংসায় পঞ্চমুখ স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিজেপির বহু নেতাই এই অ্যাপ ব্যবহার করছেন।

  • Share this:

#কলকাতা: ভার্চুয়াল জগতে সাম্রাজ্য বিস্তারই তৃণমূলের (TMC) মূল লক্ষ্য। ফেসবুক-ট্যুইটার তো ছিলই, এবার নতুন সমাজমাধ্যম কু-তেও অ্যাকাউন্ট খুললেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। আগামী দিনে এখানেও সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা যাবে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে । উল্লেখ্য, এই অ্যাপের প্রশংসায় পঞ্চমুখ স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। বিজেপির বহু নেতাই এই অ্যাপ ব্যবহার করছেন। অ্যাপটির সম্ভাবনা বুঝেই এই মঞ্চে অস্তিত্ব তৈরি করতে চাইছে তৃণমূল।

তৃণমূল ঘনিষ্ঠরা মনে করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় মার্কেট রিসার্চ থেকে দলের স্ট্র্যাটেজি সবটাই তৈরি করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার অবাধ পদচারণাই তৃণমূলকে ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে কাঙ্খিত জয়ের পথে অনেকটা এগিয়ে দিয়েছিল। যে নেতারা ট্যুইটার বা ফেসবুকে ততটা সক্রিয় ছিলেন না তাদেরকও অভিষেক রীতিমতো বাধ্য করেন ট্যুইটারে সক্রিয় হতে। দিনে পাঁচটি টুইট করতে দেখা যায় নেতামন্ত্রীদের। ফলো আসে হাতেনাতে। ফ্যানবেস তৈরি হয় বহু তৃণমূল নেতার।

আরও পড়ুন-প্রচারে 'না' বাবুলের, দিলীপের মন্তব্যে ফের সাংসদের রাজনীতিতে ফেরা নিয়ে তীব্র জল্পনা

এদিকে দেশে ক্রমেই জনপ্রিয়তা অর্জন করছে এই অ্যাপটি। সেই কারণেই কু-তে অ্যাকাউন্ট হয়েছে সর্বভারতীয় তৃণমূলের, তৃণমূলের ত্রিপুরা ইউনিটের। এবার অভিষেকও নতুন ইনিংস শুরু করছেন কু-তে

কু-য়ের সঙ্গে ট্যুইটারের চরিত্রগত বেশ কিছু মিল রয়েছে। কু-তে সর্বোচ্চ ৪০০ ক্যারেক্টার ব্যবহার করে কোনও লেখা পোস্ট করা যায়। শুধু বিজেপি বা তৃণমূলই নয়, বেশ কয়েকজন কংগ্রেস নেতাও কু ব্যবহার করেন। আগামী দিনে রাজনৈতিক ভাবেই লড়াইয়ের মঞ্চ হয়ে উঠতে পারে এই অ্যাপ, সেই আভাস পেয়েই এই নেতারা দলে দলে যোগ দিচ্ছেন এই মাধ্যমে।

Published by:Arka Deb
First published: