Home /News /kolkata /
BJP: সাত বিজেপি বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার!

BJP: সাত বিজেপি বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার!

অবশেষে সাসপেনশন প্রত্য়াহার

অবশেষে সাসপেনশন প্রত্য়াহার

BJP: এবারের অধিবেশনে পেশ হয়ে চলেছে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিল। তাতে বিরোধী বিধায়কদের উপস্থিতি নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল।

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সহ বিজেপির সাত বিধায়কের সাসপেনশন প্রত্যাহার করে নেওয়া হল। গত সোমবার স্পিকার জানিয়েছেন, সাসপেনশন প্রত্যাহারের আবেদনে পদ্ধতিগত ত্রুটি আছে। তাই তা গ্রহণ করা হয়নি। এর প্রতিবাদে বিধানসভা গেটের বাইরে পোস্টার হাতে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন বিজেপি বিধায়করা। বুধবার পর্যন্তও বিষয়টি ঝুলেই ছিল। অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, প্রস্তাব বা মোশন এলে আলোচনা করে বিষয়টি মিটিয়ে দেওয়া যেত। অবশেষে বিজেপির তরফে ফের আবেদন করা হলে সাসপেনশন প্রত্যাহারের কথা জানান স্পিকার।

    এবারের অধিবেশনে পেশ হয়ে চলেছে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিল। তাতে বিরোধী বিধায়কদের উপস্থিতি নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। গত অধিবেশনে বিধানসভা কক্ষে বিশৃঙ্খলার অভিযোগে সাসপেন্ড করা হয়েছিল ৭ বিজেপি বিধায়ককে। যদিও বিজেপির তরফে সেই সিদ্ধান্তের প্রবল বিরোধিতা করা হয়েছিল। এরপর চলতি অধিবেশনে গত সোমবার সেই সাতজন বিধায়কের সাসপেনশন তোলার জন্য আবেদন করা হয়। কিন্তু তাতে পদ্ধতিগত ত্রুটি রয়েছে বলে জানান স্পিকার। নতুন করে আবেদন করার কথাও জানান তিনি।

    আরও পড়ুন: চলতে-চলতেই হ‍ঠাৎ বিয়েবাড়ির বাসে দাউদাউ আগুন, চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল কাঁথিজুড়ে

    প্রসঙ্গত, সোমবার দুপুরে এই ইস্যুতে প্রবল বিক্ষোভ শুরু হয় বিধানসভায়। বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারীর অভিযোগ, প্রস্তাবে কোনও ভুল ছিল না। এরপর বিধানসভার বাইরে সিঁড়ির উপর বসে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি বিধায়করা। সাসপেনশনের বিরুদ্ধে বিধানসভার দরজার সামনে চার বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিগ্গা, নরহরি মাহাতো, মিহির গোস্বামী এবং শঙ্কর ঘোষ স্লোগান তোলেন।

    আরও পড়ুন: গভীর রাতে গাড়ি আটকে মারাত্মক কাণ্ড ধূপগুড়িতে! নৃশংস ঘটনার শিকার মহিলারাও

    প্রসঙ্গত এই ইস্যুতে বিজেপি বিধায়করা প্রবল বিক্ষোভ দেখান।সাসপেনশন সংক্রান্ত স্পিকারের নির্দেশকে কার্যত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে গিয়েছিল বিজেপি। বিজেপির এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে স্পীকার বলেন, বিধানসভার বিষয়ে আদালতে না গিয়ে আমার কাছে আসা উচিত ছিল। যাইহোক, আদালতে যাবার অধিকার সবার আছে। এখন আদালত কি বলে দেখা যাক।এরপর, আদালতের নির্দেশে মোশন জমা দিলেও, তা গ্রহন না করে বিজেপিকে কিছু সংশোধনের প্রস্তাব দেন স্পিকার। আদালতও বিষয়টি বিধানসভার মধ্যেই বিষয়টি নিষ্পত্তি করার পক্ষে পরামর্শ দেয় বিজেপিকে। শেষপর্যন্ত, আদালতের নির্দেশিত পথেই দ্বিতীয় দফায় মোশন জমা দিলে স্পিকার তা গ্রহণ করে হাউসের সব সদস্যকে সাসপেনশন প্রত্যাহারের বিষয়টি জানান।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Bengal BJP, West Bengal Assembly

    পরবর্তী খবর