Home /News /international /
China vs Taiwan : তাইওয়ানে চিনের যুদ্ধ মহড়ায় একাধিক বিমান বাতিল! যুদ্ধ লাগা শুধু সময়ের অপেক্ষা

China vs Taiwan : তাইওয়ানে চিনের যুদ্ধ মহড়ায় একাধিক বিমান বাতিল! যুদ্ধ লাগা শুধু সময়ের অপেক্ষা

ড্রাগনের রক্তচক্ষু ক্রমশ ভয়ানক হচ্ছে

ড্রাগনের রক্তচক্ষু ক্রমশ ভয়ানক হচ্ছে

Singapore along with South Korea and Philippines cancels flight in order to avoid Chinese army war drills. চিনের যুদ্ধ মহড়ায় একাধিক বিমান বাতিল! যুদ্ধ লাগা শুধু সময়ের অপেক্ষা

  • Share this:

    #তাইপেই: যত সময় যাচ্ছে ততই যেন যুদ্ধের দামামা বেজে উঠেছে। চিনের যুদ্ধ মহড়া ক্রমশ ভয়ঙ্কর চেহারা নিচ্ছে। জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ফিলিপিন্স, ভিয়েতনাম সহ একাধিক দেশ প্রহর গুনছে যুদ্ধের। ড্রাগনের রণং দেহী মেজাজ সবাইকে আশঙ্কায় রেখেছে। দক্ষিণ চিন সাগর এখন উত্তেজনার হটস্পট। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফরকে ঘিরে চিন ও তাইওয়ানের মাঝে উত্তেজনা বাড়ছে।

    আরও পড়ুন - Commonwealth Condoms : সারা রাত যৌনতা, মাথাপিছু রোজ দুটো কন্ডোম! তাতেও খিদে মিটছে না অ্যাথলিটদের

    তাইওয়ান প্রণালীতে সামরিক মহড়া চালিয়েছে চিন। এরই জেরে ফ্লাইট চলাচল বাতিল করেছে এশিয়ার একাধিক এয়ারলাইন্স। কোরিয়ান, এশিয়ানা ও সিঙ্গাপুরের মতো এয়ারলাইন্স তাদের বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল করেছে। ফেলে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। গত মঙ্গলবার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফরের কারণে দ্বীপটিকে ঘিরে সামরিক মহড়া শুরু করে বেজিং।

    সেকারণে ঝুঁকি এড়াতে ফ্লাইট বাতিলসহ রুট পরিবর্তন করছে বিমান সংস্থাগুলো। ৬টি ‘বিপদ অঞ্চল’ এড়িয়ে চলতে বেইজিং সতর্ক করার পর এ পদক্ষেপ নেওয়ার খবর পাওয়া গেলো। যেখানে পিপলস লিবারেশন আর্মি ‘সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতা’ সমুন্নত রাখতে মহড়া চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে চিন।

    তবে জাপানের এএনএ ও জাপান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট শিডিউলে পরিবর্তন আনেনি। চিনের কঠোর হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও তাইওয়ান সফর করেন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। বুধবার (৩ আগস্ট) তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ন্যান্সি পেলোসি।

    তাইওয়ানের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য নির্মিত নতুন এফ-১৬ যুদ্ধবিমান সরবরাহ করবে যুক্তরাষ্ট্র, এ খবর বছরের শুরুতেই জানা গিয়েছিল। মার্কিন কর্মকর্তারা বলেছেন, চিনা আগ্রাসনের ক্রমবর্ধমান হুমকির বিপরীতে তাইওয়ানের বিমান বাহিনীকে শক্তিশালী করতে চায় ওয়াশিংটন।

    নাম প্রকাশ না করার শর্তে মার্কিন কর্মকর্তারা রয়টার্স নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, লকহিড মার্টিন নির্মিত এবং নতুন ক্ষমতা দিয়ে সজ্জিত এফ-১৬ এর সরবরাহের গতি বাড়ানো হবে। তাতেও দমানো যাছে না চিনকে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: China

    পরবর্তী খবর