Viral Video: দিনেরবেলায় প্রকাশ্য রাস্তায় বাস থামাতে গিয়ে জোর ধাক্কা খেলেন স্বয়ং সুপারম্যান!

দিনেরবেলায় প্রকাশ্য রাস্তায় বাস থামাতে গিয়ে জোর ধাক্কা খেলেন স্বয়ং সুপারম্যান! ভাইরাল সেই ভিডিও!

তাঁকে হাত দেখিয়ে বাস থামাতেও দেখা গিয়েছে, কিন্তু বাস থামার আগে সজোরে ধাক্কা খেয়েছেন সুপারম্যান

  • Share this:

#ব্রাজিল: সুপারম্যান একটি কাল্পনিক কমিক চরিত্র। যে কিনা নানা ধরনের অতিমানবীয় ক্ষমতার অধিকারী। এই ক্ষমতা বলে তিনি মানুষের সাহায্য করেন। এমনই সুপারম্যান চরিত্রে মানুষ অভ্যস্ত। তাঁকে কিন্তু কখনই প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। তবে তিনি এবার ধরা দিয়েছেন ব্রাজিলে (Brazil)। তাঁকে হাত দেখিয়ে বাস থামাতেও দেখা গিয়েছে, কিন্তু বাস থামার আগে সজোরে ধাক্কা খেয়েছেন সুপারম্যান।

আসলে ব্রাজিলের বাররা ডস কোকিরোস (Barra dos Coqueiros) এলাকায় এই ঘটনা ঘটান এক কৌতুক অভিনেতা। তিনি সেদিন সুপারম্যান-এর পোশাক পরেছিলেন। কৌতুক অভিনেতা - লুইজ রিবেইরো দে অ্যান্ড্রেড-কে (Luiz Ribeiro de Andrade) একটি বাস থামানোর ভান করতে দেখা যায়, এক হাত দিয়ে তিনি চলন্ত বাসটিকে থামানোর চেষ্টা করছেন এমন একটি সেলফি ভিডিও তিনি সেই সময় বানাচ্ছিলেন। কিন্ত সেই সময় একটি দুর্ঘটনা ঘটে, বাসটি থামার জায়গায় লুইজ-কে এসে ধাক্কা মারে। ভাগ্যক্রমে, তিনি খুব বেশি আহত হননি এবং দুর্ঘটনার পরে সুস্থ ছিলেন। Daily Mail-এর খবর অনুযায়ী ৩০ মে এই ঘটনা ঘটে। এই ভিডিও ক্লিপটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই নেট নাগরিকরা পছন্দ করতে শুরু করে। ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে বাড়তে থাকে ভিউ-এর সংখ্যা।

এই ভিডিও ক্লিপটিতে দেখা যাচ্ছে একজন সুপারম্যান-এর পোশাকে রয়েছেন। তিনি এক হাতে মাইক্রোফোন ধরে রয়েছেন এবং মানুষের মনোরঞ্জনের জন্য কৌতুকাভিনয় করছেন। তিনি রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে একটি বাসটিকে থামার ইশারা করেন, কিন্তু একটু ভুলের জন্য ধাক্কা লাগে নকল সুপারম্যানের। এ-ক্ষেত্রে বোঝাই গিয়েছে সুপারম্যান-এর পোশাক পরা লুইজ-এর পরিকল্পনা মতো জিনিসগুলি রূপায়িত হয়নি, তবে ধাক্কালাগার পর লুইজ নিজেকে সামলেও নিয়েছিলেন। এরপ র তাঁকে বলতেও শোনা গিয়েছে, যে তিনি গাড়ির ব্রেকের গুণমান নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করবেন।

যাই হোক, বিশ্ব জুড়ে ইন্টারনেটের সুবাদে আজকাল বহু মানুষ তাঁদের বিভিন্ন প্রতিভা তুলে ধরেন। তবে অনেক সময় এমন কিছু ভিডিও পোস্ট সামনে আসে যা বিচলিত করে। এই জাতীয় পোস্ট প্রচুর দুর্শক সংখ্যা অর্জন করে, কিন্তু বাস্তবে এমন ঘটনা সত্যি হলে তা দুঃখের পাশাপাশি ভয়ানক হতে পারে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: