• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ‘কিরণমালা’ দেখতে গিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১০০ !

‘কিরণমালা’ দেখতে গিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১০০ !

সিরিয়াল দেখার সময় সংঘর্ষ ! হ্যাঁ শুনে নিশ্চয় অদ্ভূত লাগছে ৷ কিন্তু ঠিক এমন কাণ্ডটাই ঘটেছে বাংলাদেশের হাবিবগঞ্জ জেলার ধল গ্রামে ৷

সিরিয়াল দেখার সময় সংঘর্ষ ! হ্যাঁ শুনে নিশ্চয় অদ্ভূত লাগছে ৷ কিন্তু ঠিক এমন কাণ্ডটাই ঘটেছে বাংলাদেশের হাবিবগঞ্জ জেলার ধল গ্রামে ৷

সিরিয়াল দেখার সময় সংঘর্ষ ! হ্যাঁ শুনে নিশ্চয় অদ্ভূত লাগছে ৷ কিন্তু ঠিক এমন কাণ্ডটাই ঘটেছে বাংলাদেশের হাবিবগঞ্জ জেলার ধল গ্রামে ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #ঢাকা:  সিরিয়াল দেখার সময় সংঘর্ষ ! হ্যাঁ শুনে নিশ্চয় অদ্ভূত লাগছে ৷ কিন্তু ঠিক এমন কাণ্ডটাই ঘটেছে বাংলাদেশের হাবিবগঞ্জ জেলার ধল গ্রামে ৷ সিরিয়াল দেখার সময়, তার কোনও বিষয় নিয়ে বচসা বাঁধে ৷ প্রথমে বিষয়টি তর্কাতর্কির মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল ৷ কিন্তু মূহূর্তেই তা রণক্ষেত্রের আকার নেয় ৷ হাতাহাতি এমন চরম পর্যায় পৌঁছয় যে প্রায় ১০০ মানুষ এই ঘটনায় আহত হয়েছেন ৷ একটি সিরিয়ালকে ঘিরে এমন ঘটনায় রীতিমতো অবাক স্থানীয় প্রশাসনও ৷

    Photo Courtesy : BBC News Photo Courtesy : BBC News

    হাবিবগঞ্জ থানার শীর্ষ পুলিশ আধিকারিক ইয়াসিনুল হক বলেছেন, ‘‘রাতে ধল গ্রামের একটি চায়ের দোকানে বসে গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা টেলিভিশনে ধারাবাহিক ‘কিরণমালা’ দেখছিলেন। সে সময় ধারাবাহিকটির কিছু বিষয় নিয়ে কয়েকজনের মধ্যে তর্ক শুরু হয়। সেই তর্ক এক সময় হাতাহাতিতে গড়ায়। এর জেরে গত  স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁতে ভাঙচুর চলে।’’

    খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে ১৪ রাউন্ড শটগানের গুলি আর টিয়ারগ্যাস ছুঁড়তে হয়েছে। ঘটনায় প্রায় ১০০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত ১৫ জনকে চিকিত্সার জন্য স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এপার বাংলার সিরিয়ালগুলি ওপার বাংলাতেও যথেষ্ট জনপ্রিয় ৷ পৌরাণিক কাহিনীকে নিয়ে তৈরি এই সিরিয়াল প্রতিদিনকার মতোই পূর্ব বাংলাদেশের এই গ্রামের মানুষজন ওইদিনও দেখতে বসেছিলেন ৷ কিন্তু সিরিয়াল দেখার মজাটা এমন অদ্ভূতভাবে নষ্ট হয়ে যাবে, তা হয়তো কেউই আশা করেননি ৷ এবার থেকে তাই কোনও ঠেকে বসে সবাই মিলে সিরিয়াল দেখার ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হওয়াটাই প্রয়োজন বলে মনে করছেন স্থানীয় মানুষ ৷ ঘটনায় কেউ প্রাণ না হারালেও গুরুতর জখম বেশ অনেকেই ৷

    First published: