Home /News /hooghly /
Hooghly: পুলিশের মানসিক স্বাস্থ্য চাঙ্গা করে তুলতে চালু হল 'লেটস ওপেন আপ'

Hooghly: পুলিশের মানসিক স্বাস্থ্য চাঙ্গা করে তুলতে চালু হল 'লেটস ওপেন আপ'

পুলিশের কাজের মধ্যে থাকে অনেক রকম মানসিক চাপ। তার থেকে দেখা দেয় মানসিক অবসাদ। সেই অবসাদ যাতে কোনও পুলিশ কর্মীর মৃত্যু কারণ হয়ে না দাঁড়ায় তার জন্য চালু করল চন্দননগর পুলিশদের মানসিক স্বাস্থ্য শিবির।

  • Share this:

    হুগলি: পুলিশের কাজের মধ্যে থাকে অনেক রকম মানসিক চাপ। তার থেকে দেখা দেয় মানসিক অবসাদ। সেই অবসাদ যাতে কোনও পুলিশ কর্মীর মৃত্যু কারণ হয়ে না দাঁড়ায় তার জন্য চালু করল চন্দননগর পুলিশদের মানসিক স্বাস্থ্য শিবির। যার নাম দেওয়া হয়েছে \"লেটস্ ওপেন আপ\"। এর অর্থ খোলাখুলি কথা বলা। বুধবার চুঁচুড়া থানায় পুলিশ কর্মিদের নিয়ে লেটস ওপেন আপের সেশন হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন চন্দননগর পুলিশ কমিশনার অর্নব ঘোষ, ডিপি হেডকোয়ার্টার নিধি রানী, ডিসি চন্দননগর ভিদিত রাজ বুন্দেশ, এসিপি মৌমিত দাস । চন্দননগর পুলিশ কমিশনার অর্নব ঘোষ বলেন, অনেক সময় দেখা যায় পুলিশ কর্মীরা অবসাদে ভোগেন। তাদের কি কারণে অবসাদ তা কারোকেই বলেন না। কোনো অঘটন ঘটলে তখন জানা যায়। লেটস ওপেন আপের মাধ্যমে পুলিশ কর্মীরা অফিসারদের তাদের সমস্যার কথা বলতে পারবে কোনও সংকোচ না করেই।

    থানার আইসিদের দায়িত্ব থাকবে দেখার জন্য যাতে কোনও পুলিশ কর্মী কোনও অবসাদগ্রস্ত হচ্ছেন কিনা। পুলিশের চাকরিতে অনেক রকম চাপ থাকে। ২৪ ঘন্টা ডিউটি করতে হয়। দিনের পর দিন বাড়ি ছেড়ে পরিবার ছেড়ে থাকতে হয়। এ ছাড়া অন্য অনেক কারনে অবসাদ হতে পারে। সম্প্রতি শ্রীরামপুর থানার পিয়ারপুর ফাঁড়িতে কনস্টেবল বিশ্বপ্রিয় কুন্ডু ব্যারাকে আত্মঘাতী হন।

    আরও পড়ুনঃ এক লক্ষ টাকা ক্রাউডফান্ডিং করে পিয়ালীর অ্যাকাউন্টে পৌছে দিলেন বাম ছাত্র যুবরা

    বিষয়টি তাকে খুব নাড়া দেয় বলেও জানান সিপি। কোনো পুলিশ কর্মী যদি নিজে তার সমস্যার কথা বলতে দ্বিধা করেন, তাহলে তার ব্যারাকের সহকর্মীদের থেকে জানা যেতে পারে। আগামী দিনে চন্দননগর পুলিশের সব থানায় হবে। চন্দননগর পুলিশ আধিকারীকরা পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন।

    আরও পড়ুনঃ রাজ্যের মধ্যে সেরা পোস্টমাস্টার হলেন আরামবাগের শৈলেন ঘোষাল

    কারো কোনও সমস্যা হলে আধিকারিকদের জানাতে বলেন। পুলিশ কমিশনার বলেন, শারীরিকভাবে অসুস্থ হলে যেমন কাজে সমস্যা হয় পুলিশ কর্মীদের তেমনই মানিসক স্বাস্থ্য ঠিক রাখাও জরুরি। প্রয়োজন হলে পুলিশের কাউন্সিলরের সাহায্য নিতে পারবেন পুলিশ কর্মীরা।

    Rahi Haldar
    First published:

    Tags: Chandannagar, Hooghly

    পরবর্তী খবর