• Home
  • »
  • News
  • »
  • explained
  • »
  • Diwali 2021|| দীপাবলির পর কি সোনার দাম কমবে? সোনা কেনার সঠিক সময় এখনই? জানুন...

Diwali 2021|| দীপাবলির পর কি সোনার দাম কমবে? সোনা কেনার সঠিক সময় এখনই? জানুন...

Gold rate in Diwali 2021: সোনা কেনার রীতি রয়েছে ধনতেরস (Dhanteras) ও দীপাবলিতে (Diwali)। গতকাল ছিল ধনতেরস। গোটা দেশ জুড়ে হাজার হাজার মানুষ সোনার গয়না কিনেছেন। এবং আজও অনেকে সোনা সহ বিভিন্ন ধাতুর গয়না কিনছেন।

Gold rate in Diwali 2021: সোনা কেনার রীতি রয়েছে ধনতেরস (Dhanteras) ও দীপাবলিতে (Diwali)। গতকাল ছিল ধনতেরস। গোটা দেশ জুড়ে হাজার হাজার মানুষ সোনার গয়না কিনেছেন। এবং আজও অনেকে সোনা সহ বিভিন্ন ধাতুর গয়না কিনছেন।

Gold rate in Diwali 2021: সোনা কেনার রীতি রয়েছে ধনতেরস (Dhanteras) ও দীপাবলিতে (Diwali)। গতকাল ছিল ধনতেরস। গোটা দেশ জুড়ে হাজার হাজার মানুষ সোনার গয়না কিনেছেন। এবং আজও অনেকে সোনা সহ বিভিন্ন ধাতুর গয়না কিনছেন।

  • Share this:

#কলকাতা: সোনা কেনার রীতি রয়েছে ধনতেরস (Dhanteras) ও দীপাবলিতে (Diwali 2021)। গতকাল ছিল ধনতেরস। গোটা দেশ জুড়ে হাজার হাজার মানুষ সোনার গয়না কিনেছেন। এবং আজও অনেকে সোনা সহ বিভিন্ন ধাতুর গয়না কিনছেন। কথিত আছে দীপাবলিতে গয়না কিনলে ধন-সম্পত্তি বৃদ্ধি পায়। অতীতে অবাঙালিদের মধ্যে ধাতু কেনার রীতি থাকলেও বর্তমানে বাঙালিরাও এই পথ অনুসরণ করছেন। কিন্তু একটা বিষয় নিয়ে অনেকের প্রশ্ন থাকে। কোন সময়ে গয়না কিনলে লক্ষ্মীদেবী (Goddess Lakshmi) প্রসন্ন হবেন বা ধনসম্পত্তি বৃদ্ধি পাবে? তা ছাড়া, সোনা কেনা তো আর মুখের কথা নয়! কাজেই কখন দাম কমতে পারে? দীপাবলির (Diwali 2021) এই মরসুম কি সোনা কেনার আদর্শ সময়? সেই সব বিষয় জেনে নিন এই প্রতিবেদনে…

দীপাবলিতে কখন সোনা কিনতে হয়?

লোকবিশ্বাস মতে, সোনা কেনার সঠিক সময় হল ধনতেরসের দিন। ধনতেরসের দিন যতক্ষণ ত্রয়োদশী থাকে ততক্ষণ সোনা কেনা যেতে পারে। বিভিন্ন পঞ্জিকা অনুসারে চলতি বছরের ধনতেরসের ত্রয়োদশীর সময় ভিন্ন ভিন্ন। একটি পঞ্জিকা মতে গতকাল সকাল ১১টা ৩১ মিনিট থেকে ত্রয়োদশী শুরু হয়েছিল। এবং শেষ হয়েছে আজ, ৩ নভেম্বর সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটে। অন্য একটি পঞ্জিকা মতে সোনা কেনার আদর্শ সময় ছিল ৩ নভেম্বর সকাল ৬টা ৩৫ থেকে ৯.০২ পর্যন্ত।

আরও পড়ুন: ডিজিটাল গোল্ড না কি ফিজিক্যাল গোল্ড? ভবিষ্যতের কথা ভেবে ধনতেরসের দিন কোনটা কিনবেন?

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ যাঁরা আছেন তাঁদের একাংশের মতে দীপাবলির দিনও সোনা বা যে কোনও ধাতু কেনা যেতে পারে। এতে দেবী লক্ষ্মী প্রসন্ন থাকেন। শুধু এরাজ্য নয়, আজ সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন শহরে সোনার দোকানে ভিড় জামিয়েছেন ক্রেতারা।

দীপাবলির পর কি সোনার দাম কমবে?

গতকাল দীপাবলির পর আজ সামান্য সোনার দাম কমেছে। প্রায় ১৮ শতাংশ দাম কমে আজ প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৭ হাজার ৫৩৭ টাকা। যদিও রুপোর দাম গতকালের মতোই রয়েছে। প্রতি কেজি রুপোর দাম ৬৩ হাজার ২০৮ টাকা। তবে অল ইন্ডিয়া জেম অ্যান্ড জুয়েলারি ডোমেস্টিক কাউন্সিলের তরফে জানানো হয়েছে, দীপাবলির পরেও সোনা কেনার ক্ষেত্রে কোনও প্রভাব পড়বে না।

আরও পড়ুন: এবারের ধনতেরসে ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করতে চান? তার আগে যা মাথায় রাখা দরকার...

এ দিকে যেহেতু বর্তমানে অনলাইনেও সোনা কেনার সুবিধা রয়েছে তাই অনেকে অনলাইনের মাধ্যমে সোনা কিনছেন। এদিকে বর্তমানে যেহেতু অনেকেই সোনা কিনে রেখে বিনিয়োগ করতে চাইছেন তাই সেক্ষেত্রে সোনা কেনার ক্ষেত্রে দীপাবলির পর কোনও প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন বিনিয়োগ বিশেষজ্ঞরা। তার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন মনে করা হচ্ছে আগামী বছর সোনার দাম ৫২ হাজার থেকে ৫৩ হাজারের স্তরে থাকতে পারে। বিশেষজ্ঞদের একাংশের মত, যদি বিগত ১০ বছরের হিসেব দেখা যায় তাহলে দেখা যাবে সোনার দাম ক্রমশ উর্ধ্বমুখী। তাই দীপাবলির পরেও সোনার দাম উর্ধ্বমুখী থাকবে বলে ধারণা। তবে সাময়িক সোনার দাম কমার বিষয়ে কোনও নিশ্চয়তা নেই বলে মনে করছেন তাঁরা।

দীপাবলির পর কি সোনার দাম বাড়বে?

একদম নিশ্চয়তা না দিলেও বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন দীপাবলির পর সোনার দাম বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। মনে করা হচ্ছে দীপাবলীর পর আগামী দেড় মাসের মধ্যে মধ্যে সোনার দাম চলতি বছরের সব থেকে শীর্ষে পৌঁছবে। মনে করা হচ্ছে আগামী এক বছরের মধ্যে সোনার দামের ক্ষেত্রে অনেকটাই বৃদ্ধি লক্ষ্য করা যাবে। চলতি বছরে মোটামুটি ৪৭ হাজার থেকে ৪৯ হাজারের মধ্যে সোনার দাম ঘোরাফেরা করেছে। কিন্তু সেই দাম এক লাফে ৫২ থেকে ৫৩ হাজারের মধ্যে ঘোরাফেরা করবে। ২০১৯ সালে সোনার দাম বৃদ্ধি পেয়েছিল প্রায় ৫২ শতাংশ, ২০২০ সালে প্রায় ২৫ শতাংশ দাম বৃদ্ধি হয়েছে। মতিলাল ওসোয়াল ফিনানসিয়াল সার্ভিসের তরফে জানানো হয়েছে, US ডলারের দামের তারতম্যের কারণে সোনার দামের ক্ষেত্রেও অনেক পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: দীপাবলিতে কেমন উপহার দিলে মঙ্গল হবে প্রিয়জনের? জেনে নিন কী বলছে রাশিচক্র!

এবিষয়ে মোতিলাল ওসোয়ালের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “আমরা মনে করি সোনার দাম ২ হাজার মার্কিন ডলার বৃদ্ধি পারে। যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। আমরা মনে করছি আগামী ১২ মাসের মধ্যে সোনার দাম ৫২ হাজার থেকে ৫৩ হাজারের মধ্যে থাকবে।”

সোনা কেনা বা সোনায় বিনিয়োগ করা কি সঠিক ?

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, যে কোনও ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে হলে তার আগে সঠিক পরিকল্পনা করা দরকার। সঠিক পরিকল্পনা ছাড়া কোনও কিছুই সঠিকভাবে বিনিয়োগ হয় না। সোনার ক্ষেত্রেও একই পরামর্শ তাঁদের। তাঁদের বক্তব্য, ফিজিক্যাল গোল্ড এবং ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগের সময় বিনিয়োগকারীকে সঠিক পরিকল্পনা করে রাখা দরকার। তবে অতীতের বিভিন্ন তথ্য ও বিভিন্ন পরিসংখ্যায় দেখা গিয়েছে, ধনতেরস বা দীপাবলিতেই সোনা কেনার রীতি আছে। তাই এই সময় অনেকে সাধারণের থেকে অনেক বেশি সোনায় বিনিয়োগ করেন। তবে বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে বিনিয়োগের মোট অর্থের ১০ শতাংশ সোনায় বিনিয়োগ করা উচিত।

ফিজিক্যাল গোল্ড না ডিজিটাল গোল্ড? কোনটা সুবিধা?

বর্তমানে সোনা কেনার ক্ষেত্রে বেশ কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে। বর্তমান সময়ে ফিজিক্যাল গোল্ডের পরিবর্তে অনেকে ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করছেন। বাড়িতে বসে ক্রেতা পেয়ে যাবেন নির্দিষ্ট অর্থমূল্যের সোনা। তবে ডিজিটাল গোল্ডের ক্ষেত্রে কেনার সঙ্গে সঙ্গে তা হাতে পাবেন না ক্রেতা। তা রাখা থাকবে যে সংস্থার মাধ্যমে ডিজিটাল গোল্ড কেনা হচ্ছে সেই সংস্থার ভল্টে। এর পর নিজের প্রয়োজনমতো সোনা সেই ভল্ট থেকে নিতে পারবেন ক্রেতা। এমনকী সোনা বিক্রিও করতে পারবেন তাঁরা।

বর্তমানে বিভিন্ন বিনিয়োগ সংস্থা ছাড়াও বিভিন্ন অনলাইন পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম থেকে সোনা কেনা সম্ভব। এতে সোনা যেমন সুরক্ষিত থাকে তেমন নির্দিষ্ট দামে বিক্রি করাও সম্ভব।

কখন সোনা কেনা উচিত?

এবিষয়ে একটি সংস্থা একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা গিয়েছে ১৯৭৫ সালের পর থেকে প্রতি সেকেন্ড কোয়ার্টারে (এপ্রিল থেকে জুন) সোনার দাম সব থেকে বেশি কমে। তাই সেই সময় সোনা কেনার সঠিক সময়। অন্য দিকে থার্ড কোয়ার্টারে (জুলাই থেকে সেপ্টেম্বরে) সোনার দাম অনেকটা বাড়ে। তাই সোনা বিক্রির জন্য ভালো সময় থার্ড কোয়ার্টার। তবে এবিষয়ে বিভিন্ন তথ্যে দেখা গিয়েছে, সোনার দাম কোন সময় বা কোন দিন বাড়বে বা কোন দিন কমবে তা নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়। বাজার দরের উপর পুরো বিষয় নির্ভর করে। তাই একদম নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব নয় কোন সময় সোনা কেনার আদর্শ সময়।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন বিগত ১০ বছরে সোনার দামে ব্যাপক পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে। এবং একই ভাবে আগামী দিনে চলতে থাকবে। তাই সোনার দাম আচমকা কমে যাওয়ার কোনও লক্ষণ নেই। তাই যাঁরা লং টার্মের জন্য বিনিয়োগ করতে চাইছেন তাঁদের সোনায় বিনিয়োগ করলে আগামী ১০ বছর পর ভালো রিটার্ন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Published by:Shubhagata Dey
First published: