• Home
  • »
  • News
  • »
  • explained
  • »
  • Black Fungus: করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ, অথচ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হতে পারেন? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা ?

Black Fungus: করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ, অথচ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হতে পারেন? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা ?

Mucormycosis: একজন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ঠিক কতটা?

Mucormycosis: একজন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ঠিক কতটা?

Mucormycosis: একজন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ঠিক কতটা?

  • Share this:

করোনার মধ্যেই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের (Black Fungus) আতঙ্ক বাড়ছে দেশ জুড়ে। যাঁরা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন, তাঁদের দেহেই এই ছত্রাকের প্রকোপ বেশি দেখা যাচ্ছে, এমনটাই মনে করছেন অনেকে। এই পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক ভাবেই সকলের মনে একটা প্রশ্ন আসছে, কোনও ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত না হলেও কি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হতে পারেন? একজন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ঠিক কতটা? এমনই বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

করোনা পজিটিভ না হলেও কি আপনি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হতে পারেন?

প্রথম ঢেউয়ের তুলনায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যে বেশ মারাত্মক তা ইতিমধ্যেই টের পেয়েছে গোটা দেশ। কোভিড ১৯-এর পর এবার দেশ জুড়ে একটাই আতঙ্ক, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। এই দুই সঙ্কটময় সংক্রমণের জেরে দেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থা বর্তমানে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে। এই ফাঙ্গাসের সংক্রমণে গোটা দেশ জুড়ে এখনও পর্যন্ত ৯,০০০ জনের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। বেশ কয়েকটি রাজ্যে এটিকে মহামারী হিসাবে ঘোষণাও করেছেন। ক্রমবর্ধমান এই স্বাস্থ্যসঙ্কট উদ্বেগজনক এবং মানুষের মধ্যে বিপর্যয় সৃষ্টি করেছে।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাল ইনফেকশন বা মিউকরমাইকোসিস (Mucormycosis) এমন এক বিরল ছত্রাকের সংক্রমণ যা মিউকরমাইকোসাইট নামে পরিচিত একদল ছত্রাক (Moulds) দ্বারা সৃষ্ট। দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা এবং অন্তর্নিহিত বিভিন্ন রোগ, বিশেষত ডায়াবেটিস, এবং গুরুতর কোভিড ১৯ সংক্রমণের চিকিৎসার জন্য যাঁরা অত্যধিক স্টেরয়েডের ব্যবহার করেন, তাঁদের মধ্যে এই ছত্রাকের সংক্রমণ বেশি দেখা যায়। তবে বেশ কিছু বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দিয়েছেন যে, যাঁরা কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হননি তাঁদের শরীরেও এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণ দেখা যেতে পারে।

কাদের ঝুঁকি বেশি?

ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের জীবাণু নতুন কিছু নয়। আগে থেকেই পরিবেশে এর উপস্থিত রয়েছে। এই ছত্রাকের জীবাণু মাটি এবং ক্ষয়কারী জৈব পদার্থে যেমন পাতা, কম্পোস্ড পাইলস বা পচা কাঠ থেকে পাওয়া যায়। তবে যাঁদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম তাঁদের মধ্যে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি। তবে স্বাস্থ্যকর ব্যক্তিদের মধ্যে এই রোগের সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় একেবারেই নেই। উচ্চ মাত্রায় ডায়াবেটিস যাঁদের রয়েছে, তাঁদের এই ভাইরাস থেকে সাবধান থাকা বিশেষ করে প্রয়োজন। এছাড়া করোনা নেগেটিভ হলেও যাঁদের ব্লাড সুগার বেশি তাঁদের মধ্যেও এই বিরল ছত্রাকের সংক্রমণ ঘটতে পারে। এছাড়া কোনও ব্যক্তি যদি অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিসের পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য অন্যান্য রোগে ভোগেন তবে তাঁদের ক্ষেত্রেও সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

রক্তে শর্করার (Blood Suger) বিপজ্জনক পরিসীমা কী?

যদি ডায়াবেটিস রোগীর রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়মিত ভাবে ৩০০ মিলিগ্রামের প্রতি ডেসিলিটারের (mg/dL) চেয়ে বেশি হয়ে থাকে তবে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণ বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এটি একটি মারাত্মক ডায়াবেটিস জটিলতা যেখানে শরীর অতিরিক্ত রক্তের অ্যাসিড (Ketones) উৎপাদন করে। চিকিৎসার পরিভাষায় এটি কেটোসিডোসিস (Ketoacidosis) হিসাবে পরিচিত। যে সমস্ত ব্যক্তির দৃঢ় অনাক্রম্যতা রয়েছে এবং যাঁরা সুস্থ আছেন তাঁদের এই ছত্রাকের সংক্রমণ সম্পর্কে দুঃশ্চিন্তা করার প্রয়োজন নেই।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস কী ভাবে সংক্রমণ ঘটায়?

নিঃশ্বাস নেওয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে পারে এই জীবাণু। শ্বাস নেওয়ার সময় প্যাথোজেনগুলি তাঁদের শ্বাসযন্ত্রের ব্যবস্থায় প্রবেশ করে এবং তাঁদের সাইনাস বা ফুসফুসকে প্রভাবিত করে। কোভিড-এর দ্বিতীয় তরঙ্গ আগেরটির তুলনায় আরও মারাত্মক ও সংক্রামক হওয়ার ফলে বেশিরভাগ লোককে স্টেরয়েড দেওয়া হয়েছে। এটি রোগীর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাকে আরও দুর্বল করে এবং এর ফলে কোনও বিরল সংক্রমণ ঘটার সম্ভাবনা বাড়তে থাকে।

ব্ল্যক ফাঙ্গাসে সংক্রমিত কোনও ব্যক্তি কি কোভিড পজিটিভ হতে পারেন?

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এবং ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণ একসঙ্গে ঘটে না। বিশেষজ্ঞদের মতে, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস শুধুমাত্র করোনা ভাইরাস সুস্থ হয়ে ওঠার পর উদ্ভূত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কোভিড১৯ সংক্রমণের ১৪ দিন পরে, রোগীর অ্যান্টিভাইরাল চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না তবে কেবল কালো ছত্রাকের জন্য চিকিৎসা করা জরুরি।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: