Raj Chakraborty: Holi-তে নিজেই ঢোল বাজিয়ে, নেচে-গেয়ে ব্যারাকপুরের রাস্তায় ঘুরলেন রাজ

Raj Chakraborty: Holi-তে নিজেই ঢোল বাজিয়ে, নেচে-গেয়ে ব্যারাকপুরের রাস্তায় ঘুরলেন রাজ

ঢোল বাজিয়ে ‘খেলা হবে’ নাচলেন রাজ । ছবি ফেসবুক ।

ব্যারাকপুর (Barrackpore) বিধানসভা কেন্দ্র থেকে শাসক দলের টিকিটে ভোটে দাঁড়িয়েছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী । ব্যারাকপুরের মতো চর্চিত কেন্দ্রে রাজ যে তৃণমূলের অন্যতম তুরুপের তাস, সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই ।

  • Share this:

    #ব্যারাকপুর: রাজ্যে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা । শুরু হয়ে গিয়েছে অন্যতম হাই-ভোল্টেজ এই বিধানসভা নির্বাচন । ২ মে রয়েছে ফল ঘোষণা । সম্মুখ সমরে নেমে একে অপরকে সেয়ানে সেয়ানে টেক্কা দিচ্ছে যুযধান প্রতিপক্ষরা । প্রার্থী তালিকাতেও এসেছে নানা চমক । টলিপাড়ার বহু তারকারা যোগ দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে । তার মধ্যে অনেকেই আবার বিধায়ক পদপ্রার্থী ।

    ব্যারাকপুর (Barrackpore) বিধানসভা কেন্দ্র থেকে শাসক দলের টিকিটে ভোটে দাঁড়িয়েছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী । ব্যারাকপুরের মতো চর্চিত কেন্দ্রে রাজ যে তৃণমূলের অন্যতম তুরুপের তাস, সে ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই । অর্জুন সিংয়ের গড় হিসেবে পরিচিত ব্যারাকপুরে রাজ ঘাসফুল ফোটাতে সক্ষম হন কিনা সে দিকেই এখন তাকিয়ে রাজনীতি থেকে বিনোদন দুনিয়া ।

    তবে দোলের দিন নিজের কেন্দ্রে বেশ জমিয়েই জনতার সঙ্গে রং খেললেন রাজ । সাদা পাজামা-পাঞ্জাবিতে সেজে সবুজ রঙে রঙিন হলেন তিনি । এখানেই থেমে থাকেননি । শোভাযাত্রাতেও অংশ নেন । ঢাক, ঢোল, নাচ-গান কী নেই সেখানে । রাজকে দেখা গেল ঢোল বাজাতে। সকলের সঙ্গেই ‘খেলা হবে’ গানের তালে মেতে উঠলেন তিনি ।

    তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ্যে আসতেই রাজ চক্রবর্তীকে ব্যারাকপুর থেকে প্রার্থী করায় তাঁকে ‘বহিরাগত’ তকমা দিয়েছিলেন স্থানীয় নেতা-কর্মীরা । এলাকার বিদায়ী পুরপ্রধান উত্তম দাস বলেছিলেন, ‘কে রাজ? আমি চিনি না ।’ কিন্তু পরবর্তীতে প্রচারে নেমে নিজের স্বভাবগুণেই সেই তকমা ছুড়ে ফেলে দিয়েছেন রাজ । দলীয় কর্মীদের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করেছেন, রাস্তায় নেমে ক্রিকেট খেলেছেন তাঁদের সঙ্গে । এমনকি ব্যারাকপুরকে নিজের ‘আর একটা বাড়ি’ বলেও সম্বোধন করেছিলেন তিনি । এলাকার মানুষের মন বুঝতে বেশিরভাগ সময় নিজের কেন্দ্রেই মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন পরিচালক মশাই ।

    Published by:Simli Raha
    First published: