Home /News /entertainment /
Ritwik Chakraborty | Binisutoy: নন্দনে ঢুকতেই দেওয়া হল না ঋত্বিককে! নিজের ছবি দেখতে গিয়েও ফিরে এলেন অভিনেতা

Ritwik Chakraborty | Binisutoy: নন্দনে ঢুকতেই দেওয়া হল না ঋত্বিককে! নিজের ছবি দেখতে গিয়েও ফিরে এলেন অভিনেতা

Ritwik Chakraborty | Binisutoy: রবিবার সকালে ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে ঋত্বিক জানান, তিনি নন্দনে বিনিসুতোয় দেখতে যাবেন।

  • Share this:

    #কলকাতা: মুক্তি পেয়েছে পরিচালক অতনু ঘোষের ছবি 'বিনিসুতোয়' (Binisutoy)। ছবিতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান (Jaya Ahsan) ও ঋত্বিক চক্রবর্তী (Ritwik Chakraborty)। কিন্তু প্রেক্ষাগৃহে ঢুকে সিনেমাই দেখতে পারলেন না ঋত্বিককে। নন্দনে প্রবেশ করতে দেওয়া হল না অভিনেতাকে। পুরো ঘটনাই সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টের মাধ্যমে ঋত্বিক জানিয়েছেন।

    রবিবার সকালে ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে ঋত্বিক জানান, তিনি নন্দনে বিনিসুতোয় দেখতে যাবেন। দর্শকদের সঙ্গে দেখা হতে পারে বলেও জানান তিনি। একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে তিনি লেখেন, আজ নন্দন যাবো। শো শেষে দেখা হতে পারে আমাদের। বিনিসুতোয় চলছে নন্দন ১। রোজ ৩টের শো।

    কিন্তু নন্দনে ছবি দেখতে গিয়েও ঋত্বিকের দেখা পেলেন না দর্শকরা। কিন্তু কেন? সেই ঘটনাও ফেসবুকেই জানালেন তিনি। ঋত্বিকেরই ছবি চলছে। কিন্তু তাঁকেই ঢুকতে দেওয়া হল না। আর দর্শকদের সঙ্গে দেখা করতে না পারায় দুঃখপ্রকাশও করেছেন তিনি।

    ঋত্বিক লিখছেন, "আজ নন্দন ঠিক পৌঁছে ও আপনাদের সঙ্গে সেভাবে দেখা করতে পারলাম কই! কোভিড স্বাস্থ্যবিধির কারণে নন্দনে প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত। কিন্তু গেটে দায়িত্বপ্রাপ্ত জনৈক মুখার্জি (আমি ওনার নাম জানি,তবে অযথা ওনাকে বিখ্যাত করবোনা তাই নাম নিলামনা) এই কাজের উপযুক্ত কিনা জানিনা,কিন্তু অতি অভদ্র তা দেখতেই পেলাম।কি সব নিয়ম উল্লেখ করে, আমাদের কয়েকজন কে নন্দনে ঢুকতে দিলেননা, আর পুরোটাই উনি যাকে বলে পুলিশি রোয়াবেই বোঝালেন। অথচ আমাদেরই ছবি চলছে, আমরা দর্শকের সঙ্গে একটু কথাই বলতে গিয়েছিলাম। পরে একাডেমির সামনে ছিলাম,আপনাদের কারো সাথে কথাও হল। আশা রাখি উনি নিশ্চয়ই একদিন নন্দন এর গেট দাঁড়ানোর মতো ভদ্রতা শিখে নেবেন।"

     

    তবে এই খারাপ অভিজ্ঞতার মাঝেই একটি ভালো খবর দিয়েছেন অভিনেতা। ঋত্বিক বলছেন, "ইতিমধ্যে আজ নন্দন-এ বিনিসুতোয় হাউজফুল ছিল"। তবে ঋত্বিকের সেই পোস্টে নানা রকমের কমেন্ট করেছেন নেটিজেনরা। ঋত্বিকের অনুরাগীরা তাঁকে সমর্থন করলেও অনেকে আবার পাল্টা প্রশ্নও তুলেছেন। তাঁদের দাবি, নন্দনে কর্মরত সেই ব্যক্তি নিজের দায়িত্ব পালন করছিলেন মাত্র।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    পরবর্তী খবর