• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES RANNAGHAR HOST SUDIPA CHATTERJEE WISHES HUSBAND AGNIDEV CHATTERJEE 12TH YEARS ANNIVERSARY WITH A ROMANTIC NOTE ON SOCIAL MEDIA SR

Sudipa On Agnidev: ‘একটা দিনও তোমায় ছেড়ে থাকিনি, সংসার করতে আমার বড় ভাল লাগে’, অগ্নি’কে লিখলেন সুদীপা

বাড়ির পুজোতে সুদীপা-অগ্নিদেভ । ছবি- ফেসবুক ।

সুদীপা (Sudipa Chatterjee) একবার অগ্নিদেভ (Agnidev Chatterjee)-কে লিখেছিেলেন, ‘‘আমার সবথেকে বেশি গর্ব হয় বলতে, যে আমি তোমার ‘বউ’, আর তুমি আমার ‘বর’। এছাড়া আর কিচ্ছু নেই।’’

  • Share this:

    #কলকাতা: দেখতে দেখতে কেটে গিয়েছে গোটা একটা যুগ । অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায় (Agnidev Chatterjee) আর সুদীপা চট্টোপাধ্যায়ের (Sudipa Chatterjee ) ভালবাসার জীবন পেরিয়ে এল ১২টা বসন্ত । এতগুলো দিন একসঙ্গে কাটানোর সেই অসাধারণ অভিজ্ঞতা, সেই প্রেম-বিরহ-ভালবাসা, সেই সুখে-দুঃখে-মানে-অভিমানে জড়িয়ে থাকা সবটাই যেন স্বপ্নের মত । প্রেমের ১২ বছর পূর্তিতে স্বামী অগ্নিদেবের উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে লেখা খোলা চিঠিতে এমনটাই জানালেন ‘রান্নাঘর’-খ্যাত সুদীপা ।

    সুদীপার পোস্টে শুধুই ভালবাসা আর প্রেমের নরম আদর লেগে রয়েছে । তিনি লিখেছেন, ‘‘............মন্ত্রের মতো আউড়ে যাচ্ছি-“এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ নয়..”, ঠিক তখনই উপলব্ধি হলো- ১২’টা বছর পার করে দিলুম। একসাথে। ঝগড়া-মান-অভিমান-রাগ-অনুরাগ কোনোটাই বাদ যায়নি, কিন্তু এর কোনোটাই আমাদের একে অপরের থেকে দুরে সরাতে পারেনি আজও। বেড়াতে যাওয়া ছাড়া- একটা দিনও আমি এ-বাড়ী ছেড়ে থাকিনি, বা থাকতে পারিনি। সংসার করতে আমার বড় ভালো লাগে।’’

    ২০১০ সালে বিয়ে হয় সুদীপা-অগ্নিদেবের । অগ্নির এটা ছিল দ্বিতীয় বিয়ে । বালিগঞ্জ প্লেসে চ্যাটার্জি হাউসে এক ঘরোয়া অনুষ্ঠানে এক হয়েছিল চার হাত ৷ একসঙ্গে পথ চলা শুরু হয়েছিল তাঁদের । এর পর আরও এক বার তাঁদের বিয়ে হয় ৷ সেটা অবশ্য আইনি বিয়ে ৷ প্রথম অর্থাৎ আনুষ্ঠানিক বিয়ের ৫ বছর পর আইনি বিয়েতে বাঁধা পড়েছিলেন এই জুটি ৷

    একদিন লাঞ্চে সুদীপা’কে ডেকেছিলেন পরিচালকমশাই । সে সময় অগ্নি’র পোষ্যদের দেখে ভালবাসার মায়ায় বাঁধা পড়েছিলেন সুদীপা । সুদীপা নিজেই এক বার এ বিষয়ে বলতে গিয়ে লিখেছিলেন ‘‘এখনও মনে হয়- এই তো সেদিন তুমি আমাকে lunch’e ডাকলে...সেই যে কাছে এলুম.... একটা দিনের জন্যও তোমার ওপর অভিমান করে, বাপের বাড়ি বা অন্য কোথাও যাইনি। নাহ্! একটা দিনও না।...............তোমার আগে কিছু ছিলো না,আর তোমার পরেও থাকবে না। আমার সবথেকে বেশি গর্ব হয় বলতে, যে আমি তোমার ‘বউ’, আর তুমি আমার ‘বর’। এছাড়া আর কিচ্ছু নেই।’’

    Published by:Simli Raha
    First published: