• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES FAMOUS TOLLYWOOD COUPLE ABHISEKH BOSE AND DIYA MUKHERJEE PARTED AWAY DELETED ALL POST FROM SOCIAL MEDIA SR

গঙ্গারাম-শ্রীতমা’র বিচ্ছেদ! রাতারাতি ইনস্টাগ্রামের সব ছবি মুছলেন অভিষেক-দিয়া

একে অপরের সব ছবি ইনস্টাগ্রাম থেকে মুছে দিয়েছেন অভিষেক বসু (Abhisekh Bose) ও দিয়া মুখোপাধ্যায়ের (Diya Mukherjee) ।

একে অপরের সব ছবি ইনস্টাগ্রাম থেকে মুছে দিয়েছেন অভিষেক বসু (Abhisekh Bose) ও দিয়া মুখোপাধ্যায়ের (Diya Mukherjee) ।

  • Share this:

    #কলকাতা: ফের টলিউডে ভাঙনের সুর । শোনা যাচ্ছে টলিপাড়ার জনপ্রিয় কাপল অভিষেক আর দিয়ার প্রেমে নাকি ফাটল ধরেছে । ‘গঙ্গারাম’ ধারাবাহিক-খ্যাত অভিষেক বসু (Abhisekh Bose) ও ‘মিঠাই’ সিরিয়ালের শ্রীতমা ওরফে শ্রী, দিয়া মুখোপাধ্যায়ের (Diya Mukherjee) কথা হচ্ছে ।

    ছোটপর্দার অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রীরাই প্রেমের সম্পর্কে রয়েছেন । তাঁদের মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় ছিল অভিষেক-দিয়ার প্রেম । বাস্তবে একদম খুল্লামখুল্লাই প্রেম করতেন অভিষেক – দিয়া। ২০২০ সালের ডিসেম্বরেই রোমান্সে মেতে নিজেদের ঘনিষ্ঠ ছবি শেয়ার করে নিজেদের প্রেমের জানান দিয়েছিলেন অভিষেক। প্রেমিকাকে কোলে বসিয়ে তার গালে মুখ গুঁজে এঁকে দিয়েছিলেন প্রেমের চুম্বন। সেই ছবি ভাইরালও হয়েছিল নেটপাড়ায়। এই তো মে মাসে প্রেমিকার জন্মদিনে আদুরে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন অভিষেক। কিন্তু দু-মাস যেতে না যেতেই দুজনের সম্পর্ক নাকি তলানিতে!

    দু’জনেই নিজেদের ইনস্টাগ্রামের দেওয়াল থেকে সরিয়ে দিয়েছেন একে অপরের ছবি । তবে কেউ কাউকে আনফলো করেননি । হয়তো প্রেমের চোরা টান এখনও অনুভব করেন । অভিষেকের ইনস্টা হ্যান্ডেলে দিয়ার সব ছবি উধাও । তবে দিয়ার সশ্যাল মিডিয়ায় এখনও ‘সীমারেখা’র একটি ছবি জ্বলজ্বল করছে । এই ধারাবাহিক দিয়েই তাঁদের সম্পর্ক শুরু হয়েছিল কিনা ।

    অভিনয় থেকেই তাঁদের বন্ধুত্ব । তারপর প্রেম । ‘নেতাজী’ ধারাবাহিকেও একসঙ্গে অভিনয় করেছেন তাঁরা। এখন অভিষেক জনপ্রিয় ‘গঙ্গারাম’ চরিত্রে অভিনয় করেন । আর দিয়া তো সকলের প্রিয় ‘শ্রী’ । সবকিছু বেশ ভালই চলছিল । হঠাৎই এই ছন্দপতন । ব্রেকআপ নিযে প্রকাশ্যে মুখ না খুললেও দিয়ার সাম্প্রতিক ইনস্টা পোস্টে যেন জীবনবোধের কয়েক ঝলক উঁকি দিল । লিখলেন, ‘‘মাঝেমধ্যে আবেগ ভুলে নিজের যোগ্যতাকে প্রাধান্য দেওয়া উচিৎ।’’

    Published by:Simli Raha
    First published: