corona virus btn
corona virus btn
Loading

রোগী বাঁচাতে ‘‌বাথরুম স্ক্রাবার’‌!‌ বাংলা সিরিয়ালের কাণ্ড দেখে হেসে খুন নেটিজেনরা

রোগী বাঁচাতে ‘‌বাথরুম স্ক্রাবার’‌!‌ বাংলা সিরিয়ালের কাণ্ড দেখে হেসে খুন নেটিজেনরা

বাস্তবে মরণাপন্ন রোগীকে বাঁচাতে চিকিৎসকরা অনেক সময়েই শকের ব্যবহার করে থাকেন। যাতে ফের হৃদযন্ত্র সচল হয়। কিন্তু যে যন্ত্রের মাধ্যমে শক দেওয়া হয়, তার বদলেই এই সিরিয়ালে ব্যবহার করা হয়েছে একজোড়া ফ্লোর স্ক্রাবার।

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ বছরের পর বছর বলিউড থেকে টলিউড, একের পর এক অদ্ভুত কাণ্ড কারখানা উপহার দিয়েছে সাধারণ মানুষকে। সেখানে বারবার হার মেনেছে বিজ্ঞান, উল্টে গিয়েছে পদার্থবিদ্যা, চিকিৎসা বিদ্যার সমস্ত নিয়ম। তেমনই এক উদাহরণ তুলে ধরেছে বাংলা সিরিয়াল ‘‌কৃষ্ণকলি’‌। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সিরিয়ালের ৭০৪ নম্বর এপিসোডের একটি দৃশ্যের স্ক্রিন শট। যেখানে চিকিৎসক নায়ক নিখিলের দাদা অরুণকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এবং তাঁকে বাঁচাতে শক দেওয়ার জন্য চিকিৎসক আসল যন্ত্রের বদলে ব্যবহার করছেন ফ্লোর স্ক্রাবার। যা দেখে সত্যিই হাসি পাওয়ারই কথা।

আর এমন ভাবে স্ক্রাবার দু'টি ব্যবহার করা হয়েছে যে তা সহজেই দর্শকদের নজরে পড়েছে। আর তাতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েছে মিমের বন্যা।

অসুস্থ অরুণ হাসপাতালে ভর্তি। তাঁকে বাঁচানোর বা সুস্থ করার শেষ চেষ্টা চলছে। বাস্তবে মরণাপন্ন রোগীকে বাঁচাতে চিকিৎসকরা অনেক সময়েই শকের ব্যবহার করে থাকেন। যাতে ফের হৃদযন্ত্র সচল হয়। কিন্তু যে যন্ত্রের মাধ্যমে শক দেওয়া হয়, তার বদলেই এই সিরিয়ালে ব্যবহার করা হয়েছে একজোড়া ফ্লোর স্ক্রাবার। প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে, চিকিৎসক বলছেন, ‘‌আমি জানি না, উনি বাঁচবেন কি না, তবে আমরা সবরকম চেষ্টা করব।’‌ তারপরই শক দেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে স্ক্রাবার।

সম্প্রতি অন্য একটি কারণে হিন্দি ধারবাহিক ‘‌ইয়েহ রিস্তা কেয়া ক্যাহলাতা হ্যায়’‌ আলোচনায় এসেছিল, কারণ সেখানে দেখানো হয়েছিল ভবিষ্যতের দুনিয়ায় ঠিক প্রেম কেমন হবে। সেখানেও অবাক সব কাণড হয়েছিল। আর এক্ষেত্রে ডাক্তারি হয়ে গেল হাসির খোরাক। কারণ যেটি ব্যবহার করা হয়েছে, সেটি Scotch-Brite Bathroom Brush। এটির ডেসক্রিপশনে অ্যামাজনে লেখা আছে, যে এটি বাথরুমের ফ্লোর ক্লিনিংয়ের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। কিন্তু এটি যে এভাবে অন্য কাজেও লাগাবেন পরিচালক, তা কে জানতো?‌

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 21, 2020, 11:43 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर