বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‌রানাঘাটের ভাইরাল রাণুর গান শুনে প্রশংসায় পঞ্চমুখ শঙ্কর মহাদেবন, শেয়ার করলেন ভিডিও

‌রানাঘাটের ভাইরাল রাণুর গান শুনে প্রশংসায় পঞ্চমুখ শঙ্কর মহাদেবন, শেয়ার করলেন ভিডিও
  • Share this:

#মুম্বই: আর পাঁচটি দিনের মতোই স্টেশনে বসে খালি গলায় গান করছিলেন। সুরেলা কণ্ঠে গাইছিলেন ‌‘শোর’ ছবিতে মুকেশ–লতার গলায় সুপারহিট ‘‌কুছ পা কর খোনা হ্যায়, কুছ খো কর পানা হ্যায়।’ আর সেই গানই রাতারাতি সেলিব্রিটি বানিয়ে দিল রানাঘাটের রাণু মারিয়া মণ্ডলকে। রানাঘাট থেকে পৌঁছে দিল সোজা মুম্বইয়ে। খোদ শঙ্কর মহাদেবন তাঁর ভাইরাল হওয়া গানের ভিডিওটি দেখলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারও করে ফেললেন। আর তাই রানাঘাটের রাণু এখন বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব। গত কয়েক দিন ধরেই ভাইরাল হয়েছে রাণুর গানের ভিডিও। রানাঘাট স্টেশনে বসে অনেক দিন ধরেই গান করেন রাণু। কেউ কোনও বিশেষ গান শোনানোর অনুরোধ করলে সেটাও গেয়ে শোনান। আর এরকমভাবেই স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে তাঁর গান রেকর্ড করেছিলেন এক যাত্রী। পরে ফেসবুকে তিনি তা তুলে দিতেই রীতিমতো হিট।

কিন্তু এমন গানের গলার মালকিন রাণু এভাবে রানাঘাট স্টেশনে কেন?‌ এই প্রশ্নেই উত্তর অবশ্য তাঁর কাছে নেই। কারণ পুরনো কথা তেমন আর মনে পড়ে না। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর বাড়ি ছিল কৃষ্ণনগরের নতুনপাড়ায়। পরে তিনি রানাঘাটের বেগোপাড়ায় মাসির বাড়িতে চলে আসেন। বিয়ে হয়। স্বামীর সঙ্গে চলে যান মুম্বই। আঠারো বছরের সংসার। সেখানেই রয়েছে দুই ছেলেমেয়ে। কিন্তু পরে ফিরে আসেন এখানেই। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে একফালি জমি। সেখানেই রয়েছে রাণুর বাড়ি। তিনি আরও জানান, না লেখাপড়া, না গান–কোনওটাই কেউ শেখায়নি। নিজের ইচ্ছেয় রেডিও এবং টেপ রেকর্ডার শুনে শুনে গান শিখেছেন। এমনকি একটি অর্কেস্ট্রা দলের সঙ্গে গানও করেছেন। কিন্তু এখন সব কিছুই অতীত। আর তাই রানাঘাট স্টেশনে গান করাই তাঁর রোজনামচা। সেখানেই লোকে যা দেয়, তাই দিয়ে দিন চলে যায়। তবে সময় হয়ত ঘুরতে চলছে রাণুর। নিজের সুরেলা কণ্ঠের জন্যই হয়ত ফের সুদিন ফিরবে তাঁর জীবনে।‌‌

First published: August 8, 2019, 1:39 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर