• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • RAHUL ARUNODAY BANERJEE PROTESTS AGAINST THE RECENT TROLLING FACED BY RITWICK CHAKRABORTY ARC

Ritwick Chakraborty:‘‘Grooming-এর ঋত্বিক প্রয়োজন’’, অভিনেতাকে কটূক্তির তীব্র প্রতিবাদ রাহুল অরুণোদয়ের

রাহুল ও ঋত্বিক, ছবি-ফেসবুক

সামাজিক মাধ্যমে ঋত্বিক চক্রবর্তীকে (Ritwick Chakraborty) ট্রোল করার বিরুদ্ধে সংক্ষিপ্ত অথচ তীব্র প্রতিবাদ জানালেন রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় (Rahul Arunoday Banerjee ) ৷

  • Share this:

    কলকাতা : সামাজিক মাধ্যমে ঋত্বিক চক্রবর্তীকে (Ritwick Chakraborty) ট্রোল করার বিরুদ্ধে সংক্ষিপ্ত অথচ তীব্র প্রতিবাদ জানালেন রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় (Rahul Arunoday Banerjee ) ৷ ফেসবুকে তিনি লিখেছেন ‘গ্রুমিংয়ের ঋত্বিক প্রয়োজন’ ৷ রাহুলের পোস্টে সহমত নেটিজেনরা ৷

    যে পোস্টের প্রেক্ষিতে রাহুলের এই শ্লেষ, সেটি এখনও জ্বলজ্বল করছে ঋত্বিক চক্রবর্তীর ফেসবুকের দেওয়ালে ৷ কিছু দিন আগে তিনি নিজের একটা সাদাকালো ছবি শেয়ার করেন ৷ ক্যাপশন দেন ‘এই ভালো সাদা কালো’ ৷

    ছবিটিতে এখনও অবধি ভাললাগা, ভালবাসার প্রতিক্রিয়া ছাপিয়ে গিয়েছে ২৯ হাজার ৷ মন্তব্য এসেছে অসংখ্য ৷ তার মধ্যেই জনৈক নেটিজেন লিখেছেন, ‘‘ আপনার অভিনয় খুবই ভাল লাগে । কিন্তু  আপনার একটাই সমস্যা আপনি নিজের গ্রুমিংয়ের প্রতি একটু খেয়াল রাখলে ব্যাপারটা আরও ভাল হত । হয়তো আপনার মনে হয় যে গ্রুমিংয়ের দরকার নেই ৷ সেটা ভুল, গ্রুমিংয়েরও দরকার আছে বস!’’

    কিন্তু সায়নী রায় নামের ওই নেটিজেন ঋত্বিককে ট্রোল করতে এসে নিজেই ট্রোলড হয়ে গেলেন ৷ তাঁর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে বিভিন্ন ইমোজিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নেটিজেনরা ৷ এসেছে পাল্টা উত্তরও ৷ চুপ করে থাকেননি ঋত্বিক নিজেও ৷ বলেছেন, ‘‘গ্রুমিং মানে আমার অভিনয় অভিজ্ঞতা, উচ্চারণ, মানুষকে দেখা শেখা বোঝা জানা, এগুলো নিয়ে বলছেন, নাকি ত্বক চুল পেশি নিয়ে বলছেন সেটা তো বলুন ৷ একটু শিখে নিই এই সুযোগে।’’ "নিজের গ্রুমিং" বলতে ঠিক কী?-ট্রোলারের কাছেই জানতে চেয়েছেন অভিনেতা ৷ ঋত্বিকের এই মন্তব্যে সমর্থন, ভালবাসা ও হাসির ইমোজি দিয়েছেন ৮৭৫ জন নেটিজেন ৷

    ঋত্বিক একা নন ৷ নেটিজেনরাও সায়নীর কাছে জানতে চেয়েছেন, তিনি গ্রুমিং বলতে ঠিক কী বোঝাতে চেয়েছেন ? কেউ লিখেছেন, ঋত্বিকেরও গ্রমিং দরকার? এও দেখতে হচ্ছে! ফেলুদাভক্ত কোনও রসিকের মন্তব্য, ঋত্বিকের মতো অভিনেতার গ্রুমিং দরকার যিনি বলছেন, তাঁকে কাল্টিভেট করা প্রয়োজন! তাঁর মতো অধিকাংশ নেটিজেনই সহমত, গ্রমিং আবার কী! এলোমেলো ভাব-সহ বলিষ্ঠ অভিনয়টাই ‘ঋত্বিক চক্রবর্তী’৷

    তবে কিছু বেসুরো মন্তব্যও আছে ৷ সায়নীকে সমর্থন করে কতিপয় নেটিজেনের মন্তব্য, গ্রুমিংয়েরও প্রয়োজন আছে ৷ একজনের আবার মন্তব্য, ঋত্বিকের উচিত চুল ঠিক করে কাটানো ৷

    চুল নিয়ে কটূক্তি করে বসে আছে আর এক নেটিজেন ৷ মাভেরিক সাম নামে ওই ফেসবুক ব্যবহারকারীর মন্তব্য, ঋত্বিক যেভাবে চুল পেতে রাখেন, তাতে নাকি তাঁকে আরও টেকো লাগে! সঙ্গে বক্রোক্তি, শাক দিয়ে যেমন মাছ ঢাকা যায় না, পিছনের চুল দিয়েও সামনের টাক ঢাকা যায় না !

    তবে ট্রোলিং ছাপিয়ে ঋত্বিকের পোস্ট ভেসে গিয়েছে অনুরাগীদের প্রতিবাদ ও শুভেচ্ছবার্তায় ৷ সেই জোরালো সুরই অনুরণিত হয়েছে রাহুলের পোস্টে ৷ তিনিও ঋত্বিকের অনুরাগী ৷ বিশ্বাস করেন, গ্রুমিংয়েরই প্রয়োজন ঋত্বিককে ৷ ঋত্বিকের গ্রুমিংকে নয় ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: