সম্পর্কে টানাপোড়েন? চিকিৎসকরা দিলেন ভাল থাকার টিপস

একইসঙ্গে আদালত তরুণের উপর ধার্য জরিমানাও খারিজ করে দেয় ডাবল বেঞ্চ ৷ তবে তরুণের মূল আবেদনটিই খারিজ হয়ে যায় আদালতে ৷ ওই ‘প্রেমিক’ তার প্রেমিকার হেফাজত চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিল ৷ কিন্তু প্রার্থীর বয়সের কারণে এই আর্জি খারিজ হয়ে যায় ৷ ভারতের সংবিধান অনুযায়ী ছেলেদের ২১ বছর হলে তবেই তাকে বিবাহযোগ্য বলে ধরা হয় ৷ এক্ষেত্রে ছেলেটির বয়স ২০ হওয়ায় আর্জি খারিজ হয়ে যায় ৷ আদালত জানিয়েছে ২১ বছর পূর্ণ হওয়ার পর তবেই প্রেমিকার হেফাজত সে দাবি করতে পারবে অথবা বিয়ে করতে পারবে ৷ তবে, মেয়েটি যদি ততদিন তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখায় আগ্রহী হয়, তবেই ছেলেটি কোনও পদক্ষেপ নিতে পারবে ৷

প্রেমে পড়তে না পড়তেই দুম করে বিয়ে ৷ তারপর কিছুদিন পরেই ঝগড়া, বিচ্ছেদ, মানসিক চাপ নিয়ে অস্থির জীবন ৷

  • RedWomb
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: প্রেমে পড়তে না পড়তেই দুম করে বিয়ে ৷ তারপর কিছুদিন পরেই ঝগড়া, বিচ্ছেদ, মানসিক চাপ নিয়ে অস্থির জীবন ৷ অনেকে আবার এসবের থেকে দূরে থাকতে প্রেম করছেন, তবে বিয়ের কথা মাথাতেই আনছেন না ৷ মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনওটিই ঠিক নয় ৷ বরং একটু হিসেব করে সম্পর্ক চালালে ভালো থাকার পাসওয়ার্ড কিন্তু আপনার হাতের মুঠোতেই ! তা কী সেই পাসওয়ার্ড?

    ১. কমিউনিকেশন: একটা সম্পর্ককে সঠিকভাবে গড়ে তোলা বা বলা ভালো একটা সম্পর্কে সঠিকভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পিছনে সঠিক কমিউনিকেশনই হল আসল জিনিস ৷ দু’জনের মধ্যে সঠিক কমিউনিকেশন থাকলে, তবেই গড়ে উঠবে অন্য সব কিছু ৷

    উদাহরণ দিয়ে বলতে গেলে, মনের মধ্যে কোনওরকম রাগ লুকিয়ে না রেখে খুল্লামখুল্লা কথা বলুন ৷ অন্যের দোষ না দেখে, সমাধানের দিকেই এগিয়ে যান ৷ সবার প্রথমে সম্পর্কের মাঝে ইগোকে আসতে দেবেন না ৷

    ২. থাকুক বিশ্বাস- আপনি কি আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে মিথ্যে বলে যাচ্ছেন? অথবা আপনি কী রোজ এটাই ভেবে যাচ্ছে যে, আপনার প্রিয়জন আপনার কাছে কিছু লোকাচ্ছে বা ঠকাচ্ছে? আপনি কি আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকার ফোন, সোশ্যাল মিডিয়া ঘন ঘন চেক করেন? এই প্রত্যেকটার উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তাহলে আপনি সুস্থ সম্পর্কে নেই ! কারণ বিশ্বাসটাই হল, সম্পর্কের আসল ভিত ৷

    আপনার পার্টনারকে বিশ্বাস করতে শিখুন ৷ সমস্যা হলে খুলে কথা বলুন ৷ বিনা কারণে সন্দেহ না করাই ভালো ৷

    ৩. সম্পর্কে থাকুক স্পেস: ভালোবাসা থাকুক ৷ কিন্তু সেই ভালোবাসায় অক্সিজেন থাকাটা একেবারেই মাস্ট !

    প্রথমেই মনে রাখা দরকার ৷ নেটওয়ার্ক নয়, সাপোর্ট হন ৷ অর্থাৎ সব সময় প্রিয়জনের পিছু নেওয়াটা বন্ধ করুন ৷ তা ফোনে হোক বা বাস্তবে ৷ বরং স্পেস দিন তাঁকে ৷ আপনাকে মিস না করলে ভালোবাসবে কী করে? বরং দু’জনের সম্পর্কে এমনভাবে তৈরি হোক, যাতে ভালোবাসা আসুক বসন্তের হাওয়ার মতো ৷ দেখবেন এভাবেই বহুদিন সম্পর্ক টিকবে ভালোবাসার মোড়কে ৷

    Published by:Akash Misra
    First published: