corona virus btn
corona virus btn
Loading

GULLY BOY MOVIE REVIEW: এটা স্পষ্ট, বলিউডে চলবে শুধুই রণবীর ‘টাইম’ !

GULLY BOY MOVIE REVIEW: এটা স্পষ্ট, বলিউডে চলবে শুধুই রণবীর ‘টাইম’ !
  • Share this:

#মুম্বই: ‘গল্লি বয়’ সিনেমাটা ঠিক কেমন, তাই তো খুঁজছেন ছবির সমালোচনায়? কিন্তু বিশ্বাস করুন আপনি যখন ‘গল্লি বয়’ দেখতে বসবেন, আড়াই ঘণ্টা ধরে জাগতিক বিষয়ের সব লজিক, কার্য-কারণ শর্ত, সূত্র সব ভুলে যাবেন ৷ বরং পর্দায় জোয়া আখতার, রণবীর সিং-রা যা দেখাবে, তাকেই জীবনের মূল উপপাদ্য বলে মনে হবে৷ আর এর বাইরে থেকে ভালো-মন্দের হিসেবটা হারিয়ে যাবে মুম্বইয়ের এঁদো গলিতে ৷ বাদ বাকিটা যা পড়ে থাকবে তা স্বপ্ন ও বাস্তবের এক মিশেল ৷ কিন্তু একেবারেই ফ্যান্টাসি নয় ৷

উপরের কথাগুলো পড়ে হয়তো মনে হতে পারে ‘গল্লি বয়’ মোটেই সহজ-সরল ছবি নয়৷ মনে হওয়াটা খুব একটা ভুলও নয় ৷ তবে জোয়া আখতার এই ছবিতে সাবপ্লটকে এমন ভাবে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন, যে আপাতত দৃষ্টিতে দেখলে এই ছবির বেশ সরল মনে হবে ৷ কিন্তু গল্লি বয়-এর অন্দরটা মোটেই সহজ নয় ৷ সুপ্তভাবে লুকিয়ে রয়েছে দেশের এই সময়ের কথা ৷ আর তাই হয়তো এই ছবি শুধুই ‘হিপহপ’ ধারার ছবি না হয়ে, কোথায় গিয়ে সমাজ ও রাজনীতির কথা বলে ৷

‘গল্লি বয়’-এর গল্প বলতে, মুরাদের (রণবীর সিং) স্বপ্নপূরণ করার গল্প ৷ গল্লি বয়ের গল্প বলতে, মুম্বইয়ের স্লাম থেকে বেরিয়ে সোজা হয়ে দাঁড়ানো গল্প ৷ কোথাও গিয়ে বেঁচে থাকার গল্প বলে জোয়া আখতারের এই ছবি ৷ আর যা রূপ পায় র‍্যাপে ব্যবহৃত নানা শব্দের মধ্যে দিয়ে ৷ ঠিক যেমন ‘আপনা টাইম আয়েগা...’ কিংবা ‘আসলি র‍্যাপ’, যা কিনা ছবির মূল বক্তব্যকেই এগিয়ে নিয়ে চলে ৷

জোয়া আখতারের ‘গল্লি বয়’ পুরোটাই রণবীর সিংয়ের ছবি ৷ ঠিক যেমন বনশালির ‘পদ্মাবত’ ছবিতে খলনায়ক খলজি হয়েও গোটা নজরটা কেড়ে নিয়েছিলেন৷ গল্লি বয়তেও রণবীর যেন বাধ্য করলেন তাকিয়ে থাকতে ৷

gullyboy-509202808_6

রণবীর বার বার ইমেজ ভাঙছেন, বাজিরাও থেকে খলজি আর এবার মুরাদ ৷ আর এই ইমেজ ভাঙা মানে শুধুই লুক চেঞ্জ নয় ৷ বরং হাঁটাচলা, ওঠাবসা, গোটা ব্যক্তিত্বটাকেই একশো আশি ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিয়েছেন রণবীর ! আর তাই অবাক হয়ে দেখার মতো৷ এই ছবি প্রমাণ করে রণবীর দিন দিন কীভাবে নিজেকে পরিণত করছেন ৷ বলা ভালো নিজের কাছে নিজেই চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠছেন রণবীর ৷

রণবীর তো এই ছবির আসল চাবিকাঠি ৷ তবে একে দারুণভাবে সঙ্গত দিয়েছেন আলিয়া ভাট ও রণবীরের বাবার চরিত্রে বিজয় রাজ ! অল্প হলেও, মুগ্ধ করবেন কলকি কোয়েচলিন ৷

ranveer_singh_gully_boy_1024_1547028609_618x347

‘গল্লি বয়’ ছবিতে শুধুই রণবীর নয় ৷ ইমেজ ভাঙলেন পরিচালক জোয়া আখতারও ৷ জোয়ার আগের ছবির ‘পশ’ লুক এই ছবিতে একবারের জন্য জায়গা করে নেয় না ৷ যেভাবে জোয়া আগের সব ছবিগুলোতে ইয়ং জেনারেশনের কথা বলেন, এখানেও বলেছেন, কিন্তু তা অনেক বেশি বাস্তবধর্মী ৷ ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’ ও ‘দিল ধরক নে দো’র মতো এই ছবিতেও জার্নি রয়েছে ৷ তবে এই সফর অনেক বেশি বাস্তব ও কঠোর ৷ বলা ভালো ভিতরে চেপে রাখা স্বপ্নকে কীভাবে বাঁচিয়ে রাখতে হয়, তাই গোটা ছবিতে দেখিয়েছেন জোয়া ৷ আর ‘গল্লি বয়’ ছবিতে এটাই তাঁর জার্নি ! এখানে রীমা কাগতি-র কথা না বললে অন্যায় হবে ৷ কারণ, রিমার শক্তপোক্ত চিত্রনাট্যই এই ছবির আসল বাঁধন ৷ নাম করতে হয় সিনেম্যাটোগ্রাফার জে ওজা ৷ মীরা নায়ারের ‘সালাম বম্বে’-র পর মুম্বইয়ের ধারাভিকে এত ভালোভাবে ব্যবহার হয়তো আর কেউ করতে পারেননি, যা পেরেছেন জোয়া ও সিনেম্যাটোগ্রাফার জে ওজা৷

gully-660_021319052500

শঙ্কর, এহেশান লয়ের হাত ধরে মুম্বইয়ের রিয়েল র‍্যাপারদের অসাধারণভাবে ব্যবহার করা হয়েছে ছবিতে ৷ আর যা কিনা এই ছবির আত্মা হিসেবে প্রকাশ পায় ৷

এই ছবির একটি সংলাপকে ধার নিয়ে বলা যায় ‘তেরে অন্দর এক তুফান হ্যায় !’ একথাটা যেন একশো শতাংশ সত্যি ৷ রণবীর সিংয়ের হাত ধরে এই ছবি এক ঝড়ের কথা বলে, যা কিনা সত্যিই ‘টাইম’ বদলের ইঙ্গিত দেয় ৷

First published: February 14, 2019, 6:04 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर