• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • GOSSIP AFTER RAJ KUNDRA ARREST IN PORN CASE GEHENA VASISTH SUPPORTS HIM SAYING DIFFERENCE BETWEEN PORN AND EROTICA PBD

Porn case: পর্ন ছবি নয়, কাম ধর্মী ছবি তৈরি হচ্ছিল, রাজ কুন্দ্রার গ্রফতারিতে যা বললেন গহনা বশিষ্ঠ

বারবার পর্ন ছবি ও ইরোটিক্স (Porn vs Erotics) ছবির মধ্যে পার্থক্য বোঝানোর চেষ্টা করেছেন গহনা৷

বারবার পর্ন ছবি ও ইরোটিক্স (Porn vs Erotics) ছবির মধ্যে পার্থক্য বোঝানোর চেষ্টা করেছেন গহনা৷

  • Share this:

    #মুম্বই: পর্ন ছবি তৈরির অভিযোগ সোমবার রাতে রাজ কুন্দ্রাকে গ্রফতার করে মুম্বই পুলিশ৷ এই মামলায় গহনা বশিষ্ঠকেও গ্রেফতার করা হয়৷ রাজের জামিন মঞ্জুর না হলেও, জামিন পেয়ে যান গহনা৷ পর্নগ্রাফি মামলায় মুখ খোলেন তিনি৷ তিনি জানান যে পুলিশ ও দেশের আইন ব্যবস্থার উপর তার বিশ্বাস রয়েছে৷ তাই সঠিক বিচার হবে বলেই তিনি আশা করেন৷ তবে পর্ন ছবি তৈরি করা নিয়ে কিছু বক্তব্য রাখেন গহনা৷ তাঁর কথায়, পর্ন ছবি ও কাম ধর্মী (ইরোটিকা) ছবির মধ্যে ফারাক রয়েছে৷ তারা কাম ধর্মী ছবি বানাচ্ছিলেন যা পর্ন বলে ভুল করা হয়েছে৷ গহনা জানান যে, একতা কাপুর যেমন গন্দি বাতের মতো ছবি তৈরি করেন, তেমনই ছবি তৈরি করছিলেন রাজ ও তাঁর টিম৷ তাতে গহনাও ছিলেন৷ তাই তিনি জোর দিয়ে বলেছেন যে তাদের তৈরি ছবিগুলিকে ভুল ভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে৷

    আরও পড়ুন Raj Kundra Shilpa Shetty: রাজ কুন্দ্রা-শিল্পা শেট্টির আরও কুকীর্তির অভিযোগ রাজের প্রথম স্ত্রীর গলায়!

    এই ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়, যার মধ্যে রয়েছেন রাজ কুন্দ্রা, বন্দনা তিওয়ারি, গহনা বশিষ্ঠও৷ কীভাব রাজের নাম উঠে আসে? তদন্তকারীরা লন্ডনের সংস্থা কেনরিন-র নাম জানতে পারে৷ যার এক্সিকিউটিভ ছিলেন উমেশ কামাত৷ উমেশ একসময় ছিলেন রাজ কুন্দ্রার কর্মী৷ প্রায় ৮টি পর্নোগ্রাফি ও অশ্লীল ভিডিও বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাপে পাঠান উমেশ৷ যার জন্য মোটা টাকা চান তিনি৷ এমনই অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে৷

    অভিযুক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে সেখান থেকে পর্নগ্রাফি ছবি ডিস্ট্রিবিউট কর হচ্ছিল৷ এই খবর পেতেই মুম্বইয়ের ক্রাইম ব্রাঞ্চ প্রপার্টি সেল এই নিয়ে তদন্ত শুরু করে৷ খবর পাওয়া যায় মলাড পশ্চিমের মডগাঁওতে অশ্লীল ভিডিও-র শ্যুটিং চলছিল৷ খবর পেয়েই এপিআই লক্ষ্মীকান্ত সালুংখে বাংলোতে পৌঁছে যান৷ সেখানে ন্যুড ভিডিও-র শ্যুটিং চলছিল৷ প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ অভিযুক্তদের কাছে থেকে মোবাইল উদ্ধার করেছে৷ তাদের কাছ থেকে হোথিত মুভিজের খবর পাওয়া যায়৷ যেটা একটা মোবাইল অ্যাপ৷ এতেই ভিডিও আপলোড হয়ে যেত৷ অশ্লীল ভিডিও দেখার সময় এই অ্যাপের সাহায্য নিতে হত৷ টাকা দিয়ে এই অ্যাপের সাবস্ক্রিপশন নিতে হত৷ কিছু গ্রুপের কাছে এখনও মোবাইল অ্যাপলিকেশন রয়েছে৷
    Published by:Pooja Basu
    First published: