Gold Movie Review: ‘গোল্ড’ দিয়ে শাহরুখকে ছুঁতে চাইলেন অক্ষয় ! পারলেন কি?

Gold Movie Review: ‘গোল্ড’ দিয়ে শাহরুখকে ছুঁতে চাইলেন অক্ষয় ! পারলেন কি?
Film Stills

গল্পের ছকের মূল একজন মানুষ ও তাঁর দেশপ্রেম ৷ সঙ্গে সেই রসায়নে তৈরি মানুষগুলোকে খুঁজে বার করে দল পাকানো ৷ মোটামুটি বলিউডে যে কটি দেশভক্তি নিয়ে এ যাবৎ সিনেমা তৈরি হয়েছে, সেই ছকেই চলেছে গোল্ড !

  • Share this:

    #কলকাতা: এমনিতে কোনও খানজাদাদেরই খুব একটা পাত্তা দেন না অক্ষয় কুমার ৷ নিজের মতো ছবি করেন, বক্স অফিসে তুমুল হিট দেন ৷ তারপর আবার নতুন ছবিতে মন ৷ এমনকী, খানদের মতো ছবি রিলিজের আগে বার বার খবরেও আসতে চান না অক্ষয় ৷ বরং নিজের ছবির প্রমোশন করেন একেবারে নিজের কায়দায় ৷ অনেকে তো বলেন যেভাবে একের পর এক দেশাত্ববোধ নিয়ে ছবি করে চলেছেন অক্ষয়, মনোজ কুমারের পরে তিনিই নাকি বলিউডের নতুন ভারত কুমার !

    উপরের প্রত্যেকটি শব্দই সত্যি হয়ে ওঠে ‘গোল্ড’ ছবিতে ৷ কারণ, অক্ষয় এই ছবির হৃদয়, ফুসফুস, এমনকী পেশী ! শুধু রক্ত সঞ্চালন সামলে গিয়েছেন পরিচালক রিমা কাগতি ও সম্পাদক আনন্দ সুবায়া ! কারণ, এই ছবির তুরুপের তাসই হল এডিটিং ৷ যা কিনা আপনাকে ঠায় বসিয়ে রাখবে, তীব্র আগ্রহে !

    আরও পড়ুন 

    ধড়ক রিভিউ: করণ জোহরের পাল্লায় পরে গণ্ডগোল পাকালেন জাহ্নবী-ঈশান

    গল্পের ছকের মূল একজন মানুষ ও তাঁর দেশপ্রেম ৷ সঙ্গে সেই রসায়নে তৈরি মানুষগুলোকে খুঁজে বার করে দল পাকানো ৷ মোটামুটি বলিউডে যে কটি দেশভক্তি নিয়ে এ যাবৎ সিনেমা তৈরি হয়েছে, সেই ছকেই চলেছে গোল্ড ! যেখানে দেশভক্তির সঙ্গে ‘হিরোগিরি’ মিশে, গোটা কয়েক আবেগ, আপ্লুত সংলাপে ৷ দশর্কদের রক্ত গরম আর চোখে জল ৷ অক্ষয়ের ‘গোল্ড’ এর থেকে ব্যতিক্রম নয় ! এখানেও বহু দৃশ্য রয়েছে যা দেশপ্রেমের অনুপ্রেরণা জায়গায় ৷ বেশ কিছু সংলাপ রয়েছে যা দেশের মানুষের রক্তে পারদ ফেলে ৷ তবুও এই ছবি অক্ষয় কুমারের হাতের জিয়নকাঠি হয়ে দাঁড়ায় ৷

    ছবিতে মৌনি রায় যথাযথ ৷ নজর কাড়েন কুণাল কাপুর ৷ তবে আলাদা করে নজর পড়ে অভিনেতা ভিকি কৌশলের ভাই সানি কৌশলের অভিনয় !

    গল্প এগোয়, ১৯৩৬-এ জার্মানিকে হারিয়ে হকি জিতেছিল ভারত। কিন্তু পতাকা ওড়ে ব্রিটেনের নামে। স্টেডিয়াম জুড়ে বেজে ওঠে না জাতীয় সঙ্গীত । তখন থেকেই ছবিতে ভারতীয় হকি টিমের ম্যানেজার তপন দাস ওরফে অক্ষয় কুমার শপথ নিলেন স্বাধীন ভারতের হকি টিম গড়বেন। আর সে দিন পাতাকা উড়বে স্বগর্বে। সেই স্বপ্নপূরণ, স্বপ্নের ওঠা-নামা নিয়েই গোটা ছবির গল্প ৷ আর স্বপ্নপূরণ হওয়াতেই ছবি শেষ ৷ মূলত, ছবির ক্ল্যাইম্যাক্স অজানা নয় ৷ ছবির এগিয়ে চলাতেই পাণ্ডিত্য ৷ সেই পাণ্ডিত্যতে উতরে গিয়েছেন অক্ষয় কুমার ও রিমা কাগতি টিম ৷ তবে যেটা পড়ে রইল তা হল, এই ছবি বার বারই মনে করাবে শাহরুখের চক দে-কে ৷ সেই লাস্ট মিনিট টেনশন, সেই দেশাত্ববোধ ৷ সেই টিমের ভিতর ইগোর লড়াই ও দলের মধ্যে দিয়ে দেশগঠনের ফিলোজফি ৷ কিন্তু ‘চক দে’ যেভাবে ছুঁতে পেরেছিল, ‘গোল্ড’ সে জায়গা থেকে অধরা ! ফমূর্লায় মাপা ছবি হয়ে, বক্স অফিসে কামাল দেখালেও, ‘গোল্ড’ কিন্তু অক্ষয়ের সেরা ছবি হওয়া থেকে পিছেই রইল ৷ আর ফলাফল হিসেবে যেটা দাঁড়াল, তা হল ‘চক দে’র মতো ছবি করে, শাহরুখের কাছে পৌঁছলেন অক্ষয় ! যদিও তিনি খানজাদাদের দৌঁড়ে একদমই নেই !

    First published:

    লেটেস্ট খবর