Byju's Young Genius: বিশ্বের কনিষ্ঠতম ড্রামার স্টিভেন ও অ্যাপনির্মাতা অনুব্রতর কাহিনি বিস্মিত করবে!

byjus young genius meet anubrata sarker and steven samuel devassy

পরের পর্বে আসতে চলেছে স্টিভেন স্যামুয়েল দেবাসি (Steven Samuel Devassy) আর অনুব্রত সরকার (Anubrata Sarkar)।

  • Share this:

#নয়ডা: শুরু হয়ে গিয়েছে দেশের একেবারে অন্য রকমের রিয়্যালিটি শো Byju's Young Genius। বিশ্বের কনিষ্ঠতম প্রতিভাদের সঙ্গে এই শোয়ের প্রতি পর্বে পরিচিত হয়ে থাকেন দর্শকেরা। পরের পর্বে আসতে চলেছে স্টিভেন স্যামুয়েল দেবাসি (Steven Samuel Devassy) আর অনুব্রত সরকার (Anubrata Sarkar)। ১৪ বছরের স্টিভেন এর মধ্যেই বিশ্বদরবারে নাম কিনেছে জগতের কনিষ্ঠতম ড্রামার হিসেবে। অন্য দিকে, ১০ বছরের অনুব্রতও চমকে দেওয়ার ক্ষমতা ধরে। এই অল্প বয়সেই সে বিশ্বের অ্যাপনির্মাতাদের তালিকায় নাম তুলে ফেলেছে। তাকে বলাই হয় অ্যাপ হুইজ! এই দুই প্রতিভাকে শোয়ে দেখাল করবেন বিশাল দাদলানি (Vishal Dadlani) এবং পদ্মশ্রী মোহনদাস পাই (Padma Shri Mohandas Pai)।

লন্ডনের ট্রিনিটি কলেজ থেকে মিউজিকের এইটথ গ্রেডে পরীক্ষা এর মধ্যেই দিয়ে ফেলেছে স্টিভেন। সে-ই আপাতত বিশ্বের কনিষ্ঠতম দ্রুত ড্রামার। তার প্রতিভায় মুগ্ধ হয়ে ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকার নানা প্রতিষ্ঠান থেকেও আমন্ত্রণ এসেছে। স্টিভেন জানিয়েছে যে, ড্রাম বাজানোয় এই দক্ষতা সে পেয়েছে আন্তর্জাতিক পারকাশনিস্ট শিবমণির (Sivamani) প্রশিক্ষণে। অবশ্য শিবমণি যখন তাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করেন, তখন স্টিভেনের বয়স পাঁচ। কিন্তু তিন বছর বয়স থেকেই ড্রাম বাজিয়ে চলেছে সে। জানিয়েছে, কাকা স্টিফেন স্যামুয়েল দেবাসি একজন পিয়ানো-বাদক। সেই অনুপ্রেরণাতেই তার ড্রাম বাজানো শুরু হয় যা শিবমণির সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়েছে।

সুপারকিডস নামে নিজস্ব একটা ব্যান্ডও আছে স্টিভেনের। পাশাপাসি সে গ্র্যামি-মনোনয়ন প্রাপ্ত শিল্পী উপালাপুর রাজেশের (Uppalapu Rajesh) মিউজিক ব্যান্ডেরও সক্রিয় সদস্য। এ আর রহমানের (AR Rahman) কেএম মিউজিক কনজারভেটরি এবং মুম্বই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবেও এর আগে পারফর্ম করেছে স্টিভেন।

অন্য দিকে, আলিপুরদুয়ারের অনুব্রত নিঃসন্দেহে বাংলার গর্ব। আট বছর বয়স থেকে সে কোডিং নিয়ে মেতে আছে। এর মধ্যেই তার তৈরি অনুমোদিত অ্যাপের সংখ্যা ৭টি। এর মধ্যে আছে Meet নামে এক চ্যাট অ্যাপও। আছে Legendary Runners, Pinch Hitter Batsman, Ludo Ship, Weather in Celsius, Police Alert-এর মতো অ্যাপও। এই সবগুলোই Google Play Store থেকে ডাউনলোড করেছেন অনেকেই!

অনুব্রত জানিয়েছে যে অ্যাপ তৈরির সময়ে মূলত সে এর উপযোগিতার কথাই মাথায় রাখে তার পর চোখ বুজে বসে পড়ে কাজে, দেখতে দেখতে বানিয়েও ফেলে এক নতুন অ্যাপ! Covid 19 Recovery, Farmers School, Nerabyz, Signature App, Poor Management, Health App, Pedometer, Story Teller Kids, Image Recognizer Recigo- এই অ্যাপের নামগুলোই সেই বক্তব্যে সিলমোহর দিচ্ছে। সম্প্রতি সে হাত দিয়েছে ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্টের কাজেও।

Published by:Subhapam Saha
First published: