• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • BOLLYWOOD SARA ALI KHAN SAYS SAIF ALI KHAN AND AMRITA SINGH WERENT HAPPY TOGETHER SEPARATION WAS BEST DECISION SR

Sara Ali Khan: ‘বিবাহ বিচ্ছেদ সেরা সিদ্ধান্ত ছিল’, ১৭ বছর পর বাবা-মা’র সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন সারা

১৯৯১ সালে বয়সে ১২ বছরের বড় অমৃতা সিং (Amrita Singh)-কে বিয়ে করেছিলেন সইফ (Saif Ali Khan)। এরপর ২০০৪ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের ।

১৯৯১ সালে বয়সে ১২ বছরের বড় অমৃতা সিং (Amrita Singh)-কে বিয়ে করেছিলেন সইফ (Saif Ali Khan)। এরপর ২০০৪ সালে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাঁদের ।

  • Share this:

    #মুম্বই: ‘তাঁদের সম্পর্কে অনেকরকম সমস্যা দেখা দিয়েছিল, তাঁরা সুখী ছিলেন না । তাই বিবাহ বিচ্ছেদটাই সেরা সিদ্ধান্ত ছিল’, ১৭ বছর পর বাবা সইফ আলি খান (Saif Ali Khan) ও মা অমৃতা সিংয়ের (Amrita Singh) সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন তাঁদের প্রথম সন্তান, নায়িকা সারা আলি খান (Sara Ali Khan) ।

    ১৯৯১ সালে বয়সে ১২ বছরের বড় অমৃতা সিংকে বিয়ে করেছিলেন সইফ । পরিবারের কারও মত ছিল না এ বিয়েতে । ওই সময়ে এ ধরনের অসম বিয়ে দেশবাসীকে একটা নাড়া দিয়ে গিয়েছিল । সইফের বয়স তখন মাত্র ২১ বছর । আর অমৃতা সে সময় ৩৩-এ পা দিয়েছেন । ১৯৯৫ সালে জন্ম হয় তাঁদের মেয়ে সারার, ২০০১ সালে জন্ম হয় ছেলে ইব্রাহিম আলি খানের (Ibraham Ali Khan) । কিন্তু এরপর থেকেই সইফ-অমৃতার সম্পর্কে ফাটল ধরতে শুরু করে । ২০০৪ সালে তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায় । ২০১২ সালে করিনার সঙ্গে বিয়ে হয় সইফের । এখনও তাঁরা সুখে সংসার করছেন । সদ্যই তাঁদের দ্বিতীয় পুত্রের জন্ম দিয়েছেন বেবো ।

    সইফ-অমৃতার বিচ্ছেদের ১৭ বছর কেটে গিয়েছে । এই প্রথমবার বাবা-মায়ের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন সারা । সম্প্রতি ভুট-এর 'অরিজিন্যাল ফিট আপ উইথ দ্য স্টার্স'-এর ৩ নম্বর সিজনে এ সম্বন্ধে মন্তব্য করেন সারা ।

    বলেন, ‘‘আসলে আমাদের হাতে দু’টো অপশন থাকে । এক হল, অসুখী হয়েও একই সঙ্গে চুপচাপ থাকা । আর দুই হল, সম্পর্ক তিক্ত হয়ে গেলে অন্য বাড়িতে দু’জনে আলাদা থেকে সুখী থাকা । তা হলে একে অপরের প্রতি সম্মান বজায় থাকে । বাবা-মা সম্পর্কে সুখী ছিলেন না । তাই বিবাহবিচ্ছেদটাই সেরা সিদ্ধান্ত ছিল । মা যেমন আমার খুব ভাল বন্ধু, বাবাও তাই । যখন খুশি বাবা’কে ফোন করতে পারি, তাঁর সঙ্গে গিয়ে থাকতে পারি । সময় কাটাতে পারি ।’’

    প্রসঙ্গত, করিনার সঙ্গে সারা-ইব্রাহিমের সম্পর্কও অনেকটা বন্ধুর মতোই । সইফ-করিনার বিয়েতেও সারা উপস্থিত ছিলেন । তারপর থেকে পতৌদি পরিবারের যে কোনও অনুষ্ঠানে একত্রে দেখা যায় তাঁদের । করিনা-সইফের দুই ছেলে তৈমুর আর জেহ’র সঙ্গেও দারুণ সম্পর্ক সারার ।

    Published by:Simli Raha
    First published: