'জয়ললিতার চরিত্রে মানানসই নই', তামিলনাড়ুর প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রীর বায়োপিকে অভিনয় নিয়ে বলেছিলেন কঙ্গনা

'জয়ললিতার চরিত্রে মানানসই নই', তামিলনাড়ুর প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রীর বায়োপিকে অভিনয় নিয়ে বলেছিলেন কঙ্গনা

জয়ললিতার চরিত্রে মানানসই নই, আচমকা ভাবনা কঙ্গনা রানাউতের মনে!

সুদূর তামিলনাড়ু, সেখানকার রাজনৈতিক পরিবেশ এবং তামিল ফিল্ম জগৎ- কোনও কিছু সম্পর্কেই তিনি কিছুই জানতেন না।

  • Share this:

    #মুম্বই: আর কিছু দিনের মধ্যেই দেশ জুড়ে বিভিন্ন ভাষায় মুক্তি পাবে কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut) এবং অরবিন্দ স্বামী (Arvind Swami) অভিনীত বিগ বাজেট ছবি তালাইভি (Thalaivi)। তালাইভি শব্দের অর্থ নেত্রী। বলাই বাহুল্য এখানে একদা অভিনেত্রী এবং তামিলনাড়ুর অন্যতম জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা (Jayalalithaa) বা আম্মার চরিত্র করছেন কঙ্গনা। চরিত্রকে রূপ দিতে অনেক কসরত করেছেন নায়িকা। ওজন বাড়িয়েছেন প্রায় ২০ কেজি, শিখেছেন ভরতনাট্যম। কিন্তু সম্প্রতি কঙ্গনা জানিয়েছেন যে এই চরিত্র করার আগে তিনি বেশ দ্বিধায় ছিলেন। কঙ্গনা হিমাচল প্রদেশের মেয়ে। সুদূর তামিলনাড়ু, সেখানকার রাজনৈতিক পরিবেশ এবং তামিল ফিল্ম জগৎ- কোনও কিছু সম্পর্কেই তিনি কিছুই জানতেন না। মূলত এই ভাবনা থেকেই তাঁর মনে হয়েছিল এই চরিত্রের জন্য তিনি বোধ হয় সঠিক নির্বাচন নন। কেন না, পর্দার নায়িকা থেকে কী ভাবে জয়ললিতা দেশের মুখ্যমন্ত্রী হলেন ছবিতে সেই জার্নি পুরোটা তুলে ধরা হবে।

    অরবিন্দ স্বামী এখানে রয়েছেন এমজি রামচন্দ্রন (M G Ramchandran) বা বিখ্যাত এমজিআরের চরিত্রে। এম করুণানিধির (M Karunanidhi) চরিত্রে আছেন প্রকাশ রাজ, শোভনবাবুর (Shovan Babu) চরিত্রে আছেন যিশু সেনগুপ্ত (Jisshu Sengupta)। কঙ্গনার মায়ের চরিত্রে করছেন ম্যায়নে পেয়ার কিয়া (Maine Pyar Kiya) খ্যাত ভাগ্যশ্রী (Bhagyashree)। এগারো বছর পর আবার বড় পর্দায় দেখা যাবে ভাগ্যশ্রীকে। মধু (Madhoo) এবং পূর্ণাও (Poorna) রয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে। ছবির গল্প লিখেছেন কে ভি বিজয়েন্দ্র প্রসাদ (KV Vijayendra Prasad)। তিনিই এর আগে ব্লকবাস্টার ছবি বাহুবলী (Baahubali) লিখেছেন। কঙ্গনা জানিয়েছেন তালাইভি তাঁর কেরিয়ারের প্রথম ছবি যেখানে তাঁর নাম কেউ সুপারিশ করেছেন। আর সেটা লেখক বিজয়েন্দ্র প্রসাদ।

    স্পষ্ট বক্তা হিসেবে কঙ্গনা বলিউডে সুপরিচিত। এবারেও তিনি স্পষ্ট ভাষায় বলেন যে এর আগে তাঁর নাম সুপারিশ করা হত তাঁকে ছবিতে না নেওয়ার জন্য! এই প্রথম কেউ তাঁর নাম সুপারিশ করলেন যাতে তাঁকে ছবিতে নেওয়া হয়, সেই কথা ভেবে। তিনি লেখককে বলেছিলেন যে এই জাতীয় ছবিতে চরিত্রায়ন যদি ঠিকঠাক না হয়, ছবি মুখ থুবড়ে পড়তে পারে। যদিও বিজয়েন্দ্র তাঁকে আশ্বাস দেন যে এই চরিত্র একমাত্র কঙ্গনাই ফুটিয়ে তুলতে পারবেন। আগামী ২৩ এপ্রিল মুক্তি পাবে ছবি!

    Written By: Doyel

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: