নিরুপমা ওরফে অর্কজা কার সঙ্গে প্রেম করছেন? ভূপাল না গৌরব ! ভিডিও চর্চায়

নিরুপমাকে নিজের আসল রূপ লুকিয়ে রাখতে হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সব অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হয়েছিল।

নিরুপমাকে নিজের আসল রূপ লুকিয়ে রাখতে হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সব অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হয়েছিল।

  • Share this:

    #কলকাতা:  অর্কজা আচার্য। টলিউডে এই মুহূর্তে তিনি বেশ জনপ্রিয়। দাঁতে ক্লিপ, চোখে কালো ফ্রেমের মোটা চশমা। চুলে বিনুনি। সেঁকেলে সাজে জনপ্রিয় ধারাবাহিক ' ওগো নিরুপমা'-তে তিনিই নায়িকা। এই ধারাবহিকে দ্বৈত ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি। স্বামী সহ সংসারের অনেকেই তাঁকে অবহেলা করেন। কারণ সে ঠিক উপযুক্ত নয়। কিন্তু এই নিরুপমাই ভোল বদলে মডেল সংযুক্তা সেজে বদলে দেয় পুরো ছক। অপরূপা নিরুপমাকে দেখে চিনতেই পারেন না তাঁর স্বামী। স্বামীর কোম্পানিতেই মডেলিং শুরু করেন তিনি। ধীরে ধীরে নিরুপমা ওরফে সংযুক্তায় মুগ্ধ হতে থাকে তাঁর স্বামী। এসব নিয়েই এগোতে থাকে গল্প।

    কিন্তু জানেন কি, এই ধারাবাহিকে কাজ করার জন্য নিরুপমাকে নিজের আসল রূপ লুকিয়ে রাখতে হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সব অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হয়েছিল। কিন্তু সেই চুক্তি ছিল ততদিনের, যতদিন না সামনে আসছে নিরুপমার আসল রূপ। এখন অবশ্য আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ফিরেছেন তিনি। গান গাইছেন, ছবি পোস্ট করছেন।

    শোনা যাচ্ছে অর্কজার সঙ্গে নাকি এখন প্রেম শুরু হয়েছে ওই ধারাবাহিকের নায়ক গৌরব রায় চৌধুরির। আর তাই জন্যই কি বিশ্বাবসু বিশ্বাসের সঙ্গে প্রেমটা ভেঙে গেল। বিশ্বাবসু রানি রাসমণি ধারাবাহিকের 'ভূপাল চরিত্রে অভিনয় করে বেশ জনপ্রিয় হয়েছেন। এখন তিনি 'মিঠাই'তে সন্দীপের চরিত্রে অভিনয় করছেন। বিশ্বাবসুর সঙ্গে অনেক দিনের বন্ধুত্ব অর্কজার। আর প্রেম ছিল আড়াই বছরের। কিন্তু সে প্রেমে নাকি ইতি পড়েছে। তবে নিজেদের মধ্যে বন্ধুত্ব এখনও রয়েছে তাঁদের। আর এই ব্রেক-আপই কি তবে কাছে আনল অর্কজা ও গৌরবকে। বেশ কয়েকমাস আগেই অভিনেত্রী শ্রীমার সঙ্গে ব্রেক-আপ হয়েছে গৌরবের। তবে শুধু মাত্র ভালো মাত্র বন্ধু ছাড়া অর্কজা ও গৌরবের মধ্যে আর অন্য কোনও সম্পর্ক নেই, এমনটাই দাবি। তবে টলিপাড়া তো অন্য কথা বলছে। কান পাতলেই প্রেমের গুজব শোনা যাচ্ছে।

    তবে সে যাই হোক! প্রেম ভালোবাসা চলতেই থাকবে। অর্কজা কিন্তু খুব ভালো গান করেন। খালি গলায় তিনি বেশ কিছু গান শেয়ার করেছেন তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে। আর তা মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে। শুরু হয়েছে চর্চা।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: