• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • Yearender 2020: করোনা আর লকডাউনের গল্প উঠে এসেছে যে সব ওয়েব সিরিজে!

Yearender 2020: করোনা আর লকডাউনের গল্প উঠে এসেছে যে সব ওয়েব সিরিজে!

বহু সিনেমা বা সিরিজ এই সময় রিলিজ করে অনলাইনে, যা দর্শকদের নজর কাড়ে।

বহু সিনেমা বা সিরিজ এই সময় রিলিজ করে অনলাইনে, যা দর্শকদের নজর কাড়ে।

বহু সিনেমা বা সিরিজ এই সময় রিলিজ করে অনলাইনে, যা দর্শকদের নজর কাড়ে।

  • Share this:

#মুম্বই: করোনা (coronavirus)-র জেরে লকডাউনের ফলে বন্ধ হয়ে যায় সিনেমা হল। বদ্ধ জায়গায় সংক্রমণ বেশি ছড়াতে পারে, এমন আশঙ্কায় আনলকের প্রথম কয়েকটি পর্যায়েও সিনেমা হল খোলেনি সে ভাবে। ফলে একাধিক সিনেমার রিলিজ আটকে যায়। লকডাউন কতদিন চলবে শুরু দিকে তা বোঝা না যাওয়ায় সকলেই OTT প্ল্যাটফর্মের উপর ভরসা করতে শুরু করেন। যার ফলে ছোট ছোট সিনেমা নির্মাতারাও নিজেদের ক্রিয়েটিভিটি প্রকাশের সুযোগ পান।

বহু সিনেমা বা সিরিজ এই সময় রিলিজ করে অনলাইনে, যা দর্শকদের নজর কাড়ে। তারমধ্যে অন্যতম আনপজড (Unpaused)। নিখিল আদবানি (Nikkhil Advani), রাজ অ্যান্ড ডিকে (Raj & DK), তন্নিষ্ঠা চ্যাটার্জি (Tannishtha Chatterjee), নিত্যা মেহরা (Nitya Mehra) ও অবিনাশ অরুণ (Avinash Arun) মিলে তৈরি করেছেন এই সিরিজ। যা দারুণ হিট করেছে OTT প্ল্যাটফর্মে। পাঁচ জন ডিরেক্টরের পাঁচরকম ভাবনা ফুটে উঠেছে এই সিনেমার মাধ্যমে। যার মূল থিম ছিল, এই পরিস্থিতিতে নতুন কিছু শুরু করার আশা রাখা!

শুধু আনপজড'ই নয়, এর মতো আরও একাধিক সিরিজ ও ছবি হয়েছে এই লকডাউনে। কারও নাম তো আবার এই লকডাউন বা করোনাকে কেন্দ্র করেই। যা নেক্সট উইকেন্ডে বা অবসরে দেখা যেতেই পারে।

সি ইউ সুন (C U Soon)

লকডাউনের সময়কার প্রথম ছবি সি ইউ সুন। রিলিজ করে মার্চ মাসে। লকডাউনের সীমাবদ্ধতা ও সুবিধা নিয়ে তৈরি করা এই সিনেমা পুরোটা শ্যুট করা হয় একটি iPhone-এ। মাত্র ২২ দিনে পুরো সিনেমার কাজ শেষ করেন মলয়ালম ছবির পরিচালক মহেশ নারায়ণন। লকডাউনে কী কী হতে পারে, তার উপরে অদ্ভুত সুন্দর ভাবে তৈরি করা এই ছবি দেখা যেতেই পারে। উপলব্ধ রয়েছে Amazon Prime Video-তে।

সোশ্যাল ডিসট্য়ান্স (Social Distance)

এই সিরিজটি মূলত দু'টি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা। প্রথমটি, সামাজিক দূরত্বের ফলে টেকনোলজির উপরে নির্ভরশীলতা বেড়ে যাওয়া ও দ্বিতীয়টি বর্ণ বৈষম্য। জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটার্স নামে যে আন্দোলন শুরু হয়, তার উপর নির্ভর করেও সিরিজের কয়েকটি অংশ তৈরি করা হয়। মোট আটটি পার্টে তৈরি এই সিনেমার প্রত্যেকটি এপিসোডে রয়েছে আলাদা আলাদা গল্প। দেখা যাবে Netflix-এ।

হোমমেড (Homemade)

এই সিরিজটি শর্ট ফিল্মে ভরা। ছোট ছোট গল্প নিয়ে যাঁরা কাজ করেন, লকডাউনের ফলে তাঁদের সেই কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাঁদের শর্ট ফিল্মগুলি সামনে আনা হয়েছে। প্রত্যেকটি আলাদা আলাদা ভাবনায় তৈরি করা সিনেমা। যার প্রত্যেকটির কেন্দ্রবিন্দুই প্যানডেমিক ও তার প্রভাব। কোনও গল্প হাসাতে পারে, কোনও গল্প প্রশ্ন তুলতে পারে, কোনও গল্প আবার ইমোশনাল করে দিতে পারে। দেখা যাবে Amazon Prime Video-তে।

পুথাম পুধু কালাই (Putham Pudhu Kaalai)

পাঁচটি তামিল শর্ট ফিল্ম দিয়ে তৈরি এই সিরিজ ভালোবাসা, নতুন কিছু শুরু করা, সেকন্ড চান্স ও বর্তমান পরিস্থিতিতে নতুন কিছু আশার উপরে তৈরি। পাশাপাশি লকডাউন কী ভাবে জীবনের মিসিং জিনিসটাকে বের করে আনতে পারে, তাও এখানে দেখানো হয়েছে। সিরিজটি দেখা যাচ্ছে Amazon Prime Video-তে।

লাভ ইন দা টাইম অফ করোনা (Love In The Time Of Corona)

হাসি, মজা, ড্রামার এক অপূর্ব মিশেল এই সিরিজ। কোথাও দেখানো হয়েছে, লকডাউনে দুই যুগল, যারা সেপারেটেড তারা আটকে পড়েছে একসঙ্গে। কোথাও দেখানো হয়েছে, দুই রুম মেটের গল্প। কোথাও দেখানো হয়েছে, ৫০ বছরের বিবাহবার্ষিকী সেলিব্রেট করছে কেউ। আবার কোথাও দেখানো হয়েছে, নতুন বাবা-মা হওয়ার গল্প। এই সিরিজ দেখা যাবে Hulu-তে।

Published by:Piya Banerjee
First published: