Home /News /education-career /
জট কাটাতে পারব, প্রাথমিক চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে বৈঠকের পর আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর

জট কাটাতে পারব, প্রাথমিক চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে বৈঠকের পর আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর

ব্রাত্য বসু

ব্রাত্য বসু

বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। আইনের পথে হেঁটে খুব শীঘ্রই চাকরির জট খোলার আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। (Bratya Basu meets TET candidates)

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের শিক্ষাক্ষেত্রের সব সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী সরকার। এসএসসির পর এবার টেটের জট খুলতে উদ্যোগ নিল শিক্ষা দফতর। বুধবার বিকাশ ভবনে টেট উত্তীর্ণদের ছয় প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠক করলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। আইনের পথে হেঁটে খুব শীঘ্রই চাকরির জট খোলার আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

যদিও নিয়োগ কবে হবে তা নিয়ে এখনই কোনও সদুত্তর দেননি শিক্ষামন্ত্রী। কিছু দিন আগে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। তার পর অভিষেকের সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে তাঁর ক্যামাক স্ট্রিটের দফতরের সামনে জড়ো হন টেট প্রার্থীরা। তখন শিক্ষামন্ত্রী তাঁদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: দুর্নীতির তদন্ত চলছিল, আত্মঘাতী প্রাক্তন প্রধান শিক্ষকের 'পেনশন' প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ব্রাত্য বসু

এর আগে বৈঠকের একটি দিন স্থির হলেও শেষ মুহূর্তে তা বাতিল হয়ে যায়। পরবর্তী দিন হিসাবে বুধবারের কথা জানানো হয় আন্দোলনকারীদের। সেই মতো বুধবার বিকেলে বিকাশ ভবনে টেট প্রার্থীদের সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেছেন, 'আদালতের রায় মেনেই কাজ করবে সরকার। তবে এ বার আশা করছি, জট কাটাতে পারব। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিয়োগের ব্যাপারে পদক্ষেপ করবে সরকার।'

আরও পড়ুন: অনুব্রত-আত্মীয়দের ১৭ কোটির ফিক্সড ডিপোজিট বাজেয়াপ্ত! গরুপাচারের টাকা? প্রবল চাপে কেষ্ট

প্রাথমিকের টেট পাশ ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীরা দীর্ঘদিন ধরেই তাঁদের নিয়োগে বঞ্চনা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন। তাঁদের অভিযোগ, ২০১৪ সালে টেট পাশ চাকরি-প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে বলে দাবি করা হয়েছিল। কিন্তু তার পরেও তাঁদের নিয়োগ হয়নি। যদিও একাংশের বক্তব্য তাঁদের নিয়োগের জন্য মোট দু'বার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: Bratya Basu, TET Case

পরবর্তী খবর