Home /News /education-career /
Madhyamik 2022 : মাধ্যমিকে দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা পুলিশের! উদ্যোগে খুশি এলাকার মানুষ

Madhyamik 2022 : মাধ্যমিকে দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা পুলিশের! উদ্যোগে খুশি এলাকার মানুষ

মাধ্যমিকে দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা পুলিশের

মাধ্যমিকে দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা পুলিশের

Madhyamik 2022 : সকল পরীক্ষার্থীর মতোই মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে বীরভূমের সিউড়ির অরবিন্দ ইন্সটিটিউট ফর সাইটলেস স্কুলের চার দৃষ্টিহীন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী কৃষ্ণ ভল্লা, মান্ত দাস, জয় কৃষ্ণ সরকার ও স্বপ্ননীল রায়।

  • Share this:

#বীরভূম: দৃষ্টিহীন মাধ্যমিক (Madhyamik 2022) পরীক্ষার্থীদের নিজের স্কুল থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রে নিজেদের গাড়িতে করে পৌঁছে দিল পুলি। পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আগে উৎসাহিত করতে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হলো ব্যাগ, পেন, জলের বোতল, মাস্ক, স্যানিটাইজার ও মিষ্টি ।

আজ থেকে শুরু মাধ্যমিক (Madhyamik 2022) পরীক্ষা । জীবনের বড় পরীক্ষার মধ্যে একটি । তবে এতদিন অনলাইন ক্লাসের পরে পরীক্ষা স্কুলে। বেঞ্চে বসে হাতে কলমে পরীক্ষা দিচ্ছে পড়ুয়ারা। তাই সেই মতোই প্রস্তুতি নিয়েছে পরীক্ষার্থীরা। সকল পরীক্ষার্থীর মতোই মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে বীরভূমের সিউড়ির অরবিন্দ ইন্সটিটিউট ফর সাইটলেস স্কুলের চার দৃষ্টিহীন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী কৃষ্ণ ভল্লা, মান্ত দাস, জয় কৃষ্ণ সরকার ও স্বপ্ননীল রায়।

তবে তাদের সিট পড়েছে স্থানীয় বীরভূম জেলা স্কুলে। তাই পরীক্ষার দিন সকাল হতেই অরবিন্দ ইনস্টিটিউট ফর সাইটলেস স্কুলে উপস্থিত হয় পুলিশ। দৃষ্টিহীন ওই চার পরীক্ষার্থীদের জীবনে এগিয়ে যেতে উৎসাহ দেন জেলা পুলিশ। সঙ্গে সঙ্গে সিউড়ি ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় ব্যাগ, পেন, জলের বোতল, মাস্ক, স্যানিটাইজার ও মিষ্টি। ঠিক তার পরেই পুলিশের গাড়ি করে পৌঁছে দেওয়া হয় তাদের পরীক্ষা কেন্দ্রে।

আরও পড়ুন- মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসেছে মূক-বধির ছাত্রী ঈশিতা! উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন দেখছেন মা-বাবা

এই প্রসঙ্গে অরবিন্দ ইনস্টিটিউট ফর সাইটলেস স্কুলের প্রধান শিক্ষক সন্দীপ দাস বলেন , "আজ মাধ্যমিক পরীক্ষার সকালে জেলা পুলিশের ট্রাফিকের পক্ষ থেকে এই চার দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থীদের হাতে একটি করে ব্যাগ , পেন , জলের বোতল, মাস্ক, স্যানিটাইজার ও মিষ্টি তুলে দেওয়া হয়। ঠিক তার পরেই পুলিশের গাড়ি করে তাদের পৌঁছে দেওয়া হয় পরীক্ষা কেন্দ্রে। তবে সব থেকে বড়ো বিষয়, আজ সকালে পুলিশ উপস্থিত থেকে তাদের জীবনে এগিয়ে যেতে উৎসাহ দেন পুলিশকর্মীরা। তাদের জীবনে প্রথম বড়ো পরীক্ষায় (Madhyamik 2022) উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য অঙ্গীকার করেছেন পাশে থাকবেন তাঁরা। আর এটাই আমাদের কাছে বড়ো পাওয়া।" এতে বেশ খুশি চার দৃষ্টিহীন পরীক্ষার্থী। বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্র নাথ ত্রিপাঠি জানিয়েছেন এই ধরনের ছাত্রছাত্রীদের পাশে পুলিশ সব সময় আছে ও থাকবে।

Supratim Das

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Board Exam 2022, Madhyamik 2022

পরবর্তী খবর