Home /News /education-career /
Four-Day week : বেতনে কাটতি ছাড়াই সপ্তাহে মাত্র চারদিন কাজ করবেন কর্মীরা! কর্মসংস্কৃতির বড় নজির

Four-Day week : বেতনে কাটতি ছাড়াই সপ্তাহে মাত্র চারদিন কাজ করবেন কর্মীরা! কর্মসংস্কৃতির বড় নজির

বেতনে কাটতি ছাড়াই সপ্তাহে মাত্র চারদিন কাজ করবেন কর্মীরা! কর্মসংস্কৃতির বড় নজির

বেতনে কাটতি ছাড়াই সপ্তাহে মাত্র চারদিন কাজ করবেন কর্মীরা! কর্মসংস্কৃতির বড় নজির

Four Day week : প্রায় ৭০ হাজার কোম্পানিতে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি কর্মী এই প্রোডাক্টিভ রিসার্চে অংশ নেবেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: এবার থেকে বেতনে কাটতি ছাড়াই সপ্তাহে মাত্র চারটি ওয়ার্কিং ডে-তে কাজ করবেন কর্মীরা। কর্মীদের একাগ্রতা, কর্মদক্ষতা ও উৎসাহ ধরে রাখতে, কাজে অগ্রগতি আনতে এমনই এক গবেষণা চালাচ্ছে কিছু কোম্পানি। সারা বিশ্বজুড়ে প্রায় ৭০ হাজার কোম্পানিতে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি কর্মী এই প্রোডাক্টিভ রিসার্চে অংশ নেবেন। প্রায় ৬ মাস ধরে চলা এই রিসার্চ ট্রায়ালে ৩ হাজারেরও বেশি কর্মী অংশ নিতে চলেছেন।

    গবেষণার আয়োজকরা জানাচ্ছেন যে এটি বিশ্বের যে কোনও জায়গায় চারটি ওয়ার্কিং ডে-তে কাজ করার সবচেয়ে বড় নজির গড়তে চলেছে।

    এই গবেষণামূলক ট্রায়ালে অংশগ্রহণকারী সংস্থাগুলি কমপক্ষে ১০০ শতাংশ উৎপাদনশীলতা বজায় রাখার চেষ্টা করবে, এর বিনিময়ে কর্মীদের তাঁদের দক্ষতার মাত্র ৮০ শতাংশ সময় প্রোডাক্টিভিটির জন্য বরাদ্দ করতে হবে। অবশ্য এতে সব কর্মীদেরই তাঁদের প্রাপ্য ১০০ শতাংশ বেতনই ধার্য থাকবে।

    এই ক্যাম্পেনের আয়োজক ‘ফোর ডে উইক গ্লোবাল’ (4 Day Week Global)। এর সঙ্গে পার্টনারশিপে কাজ করবেথিঙ্ক ট্যাঙ্ক অটোনমি (Think Tank Autonomy), ‘ফোর ডে উইক ইউকে ক্যাম্পেইন (4 Day Week UK Campaign), কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং বস্টন কলেজের গবেষকরা।

    অংশগ্রহণকারী এই কোম্পানিগুলি শিক্ষা থেকে শুরু করে কনসালটেন্সি ফার্ম, ব্যাঙ্কিং, কেয়ার, ফিনান্সিয়াল সার্ভিস, আইটি সফটওয়্যার ট্রেনিং, প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট পর্যন্ত সমস্ত ক্ষেত্রে পণ্য সরবরাহের কাজ করে থাকে।

    এই গবেষণায় গবেষকরা কর্মীদের প্রোডাক্টিভিটি এবং কর্মীদের শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি পরিবেশগত প্রভাব এবং জেন্ডার ইক্যুয়ালিটির উপর তাঁদের প্রভাব ইত্যাদি বিবেচনা করে দেখবেন।

    ফোর ডে উইক গ্লোবালের চিফ এক্সেকিউটিভ জো ও'কনরের (Joe O’Conno) কথায়, “যুক্তরাজ্যে ইতিমধ্যে ফোর ডে উইকের প্রভাব সবচেয়ে বেশি চোখে পড়েছে।”

    আরও পড়ুন- ভারতীয় সেনাবাহিনীর ফিল্ড অ্যামুনিশন ডিপো বিভাগে নিয়োগ; জানুন বিশদে!

    তিনি আরও বলেছেন যে, “মহামারীর সময় কাটিয়ে ওঠার পর বেশ কিছু কোম্পানিই স্বীকার করছে যে প্রোডাক্টিভিটি বাড়াতে হলে জীবনের মানও বাড়ানো প্রয়োজন। বিগত সময়ে প্রচুর সংখ্যক কর্মীদের কাজ ছাড়ার প্রবণতায় এ কথা বারবার প্রমাণিত হয়েছে অল্প সময়ে স্মার্ট কাজ করার প্রচেষ্টা কর্মীদের মধ্যে প্রোডাক্টিভিটি বাড়াতে সক্ষম"

    বস্টন কলেজের সোশিওলজির অধ্যাপক এবং এই রিসার্চ পাইলটের প্রধান গবেষক জুলিয়েট স্কোর (Juliet Scho) জানিয়েছেন, "আমরা বিশ্লেষণ করে দেখব যে কর্মচারীরা অতিরিক্ত দিনের ছুটি মানসিক চাপ, চাকরি এবং জীবনের মান, স্বাস্থ্য, ঘুম, ভ্রমণ এবং জীবনের অন্যান্য দিকগুলি কীভাবে কর্মীদের ওপর প্রভাব ফেলছে।”

    তিনি আরও বলেছেন, "বিশ শতকের পাঁচ দিনের কর্মসপ্তাহ একুশ শতকে আর গ্রহণযোগ্য নয়। সেটা খুঁটিয়ে দেখতেই আমরা এই গবেষণার পরিকল্পনা করেছি।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: 4 Day Work Week

    পরবর্তী খবর