লজ্জা! ধর্ষণের পর শরীরে আগুন, মৃত্যু উন্নাওয়ের নির্যাতিতার

লজ্জা! ধর্ষণের পর শরীরে আগুন, মৃত্যু উন্নাওয়ের নির্যাতিতার
Representative Image

শেষশয্যাও অভিযুক্তদের উচিৎ শিক্ষা দিতে চেয়ে আর্জি জানিয়ে গিয়েছেন নির্যাতিতা৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সব চেষ্টা বৃথা হল৷ ধর্ষকদের অত্যাচারে শরীরের প্রায় ৯০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছিল৷ মৃত্যুর সঙ্গে চলছিল লড়াই৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত মারাই গেলেন উন্নাওয়ের নির্যাতিতা৷ শুক্রবার রাত ১১.৪০ নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে মৃত্যু হয় তার৷ বৃহষ্পতিবার অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাকে দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ তার আগে লখনউয়ে চলছিল তার চিকিৎসা৷ হাসপাতাল সূত্রের খবর যে শনিবার সকাল ১০ নাগাদ ময়নাতদন্ত হবে৷ দেহের ফরেনসিক অডিট হতে পারে বলে জানা গিয়েছে৷ ময়নাতদন্তের সময় সংগ্রহ করা হতে পারে দেহাংশ৷ সই সময় উপস্থিত থাকবেন দিল্লি পুলিশ৷

ধর্ষণের শিকার তিনি আগেই হয়েছিল৷ আদালতের দারস্থ হয়েছিলেন৷ চলছিল সেই ধর্ষণ মামলার শুনানি৷ সেই শুনানির জন্য যাওয়ার পথেই তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় অভিযুক্ত৷ চিৎকার করতে থাকে তরুণী৷ সেই চিৎকারে আশেপাশের মানুষ ছুটে এসে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ প্রথমে লখনউ, তারপর দিল্লিতে স্থানানতর করা হয় তাকে৷ জামিন পেয়েই ধর্ষিতাকে আক্রমণের ছক কষে অভিযুক্ত৷ এবং সেই মোতাবেক সাক্ষ লোপাট করতেই এভাবে ধর্ষিতার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় সে৷ শেষশয্যাও অভিযুক্তদের উচিৎ শিক্ষা দিতে চেয়ে আর্জি জানিয়ে গিয়েছেন নির্যাতিতা৷

আরও পড়ুন ‘‘দের আয়ে দুরুস্ত আয়ে...’’ হায়দরাবাদ এনকাউন্টার নিয়ে মত জয়া বচ্চনের

হায়দরাবাদকাণ্ডে এনকাউন্টারে মৃত্যু হয়েছে ৪ অভিযুক্তের৷ তাদের এভাবে হত্যা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ঠিকই কিন্তু অনেকেই মনে করছেন যে অভিযুক্তদের উচিৎ শিক্ষা দেওয়া গিয়েছে৷ উন্নাওয়ের ঘটনায় অভিযুক্তদের কী সাজা হয় সেদিকে তাকিয়ে গোটা দেশ৷

First published: 08:40:25 AM Dec 07, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर