• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • 150 STRAY DOGS BURIED ALIVE IN KARNATAKAS SHIVAMOGGA DISTRICT HERE ALL DETAILS SDG

Viral| Animal Cruelty|| ১৫০ কুকুরকে জ্যান্ত কবর দিয়ে নির্মম হত্যালীলায় মাতল দুষ্কৃতী! শিবমোগার ঘটনায় তোলপাড়

১৫০ কুকুরকে জ্যান্ত কবর দিয়ে নির্মম হত্যা। প্রতীকী ছবি।

150 Stray Dog Murder: ১৫০টি পথ-কুকুরকে জ্যান্ত মাটিতে পুঁতে দেওয়ার অভিযোগ। ১৫-২০ ফুটের গর্ত (pit) বানিয়ে তাতে পর পর ১৫০টি কুকুরকে জ্যান্ত কবর (buried) দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

  • Share this:

    #শিবমোগা: একটি বা দুটি নয়, ১৫০টি পথ-কুকুরকে জ্যান্ত মাটিতে পুঁতে দেওয়ার অভিযোগ। ১৫-২০ ফুটের গর্ত (pit) বানিয়ে তাতে পর পর ১৫০টি কুকুরকে জ্যান্ত কবর (buried) দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। শিবমোগার (Karnataka’s Shivamogga) রঙ্গনাথনপুরমের কাম্বাদালালু-হাসুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ভয়ঙ্কর এই ঘটনায় (bizarre incident) তোলপাড় চলছে। তবে পুলিশকে খবর দেওয়া হলেও, পুলিশ যতক্ষণে ঘটনাস্থলে পৌঁছয়, ততক্ষণে কুকুরগুলির মৃত্যু (dogs were found dead) হয়েছে। ঘটনায় আকষ্মিকতায় বাকরুদ্ধ এলাকাবাসী। অপরাধীর চরম শাস্তির দাবিতে পুলিশে লিখিত অভিযোগ (FIR) দায়ের করা হয়েছে।

    পুলিশি তদন্তে উঠে এসেছে, ঘটনাটি ঘটেছে ৪ সেপ্টেম্বর। সেদিন রাতে কুকুর হত্যাকারী দুষ্কৃতী (miscreants) তাম্মাডিহালি জঙ্গল (Tammadihalli forest) এলাকায় কুকুরগুলিকে জ্যান্ত কবর দেয়। অন্যান্যদিন যেখানে কুকুরের চিৎকার, ডাকাডাকিতে এলাকাবাসী অতিষ্ট হয়ে উঠত, দি কয়েক ধরে দাক কমতে কমতে সেদিন আচমকাই কোনও কুকুরের ডাক শোনা যাচ্ছিল না। এলাকা একেবারে নিস্তব্ধ ছিল। তাতেই সন্দেহ (suspicious) হয় এলাকাবাসীর। তখন তাঁরা খবর দেন স্থানীয় পশুপ্রেমী ও পশু অধিকার সংগঠনের (animal rights activists) সদস্যদের। এরপর তাঁরা সেই এলাকা খতিয়ে দেখতেই সাংঘাতিক এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। সংলগ্ন ভদ্রভাটি গ্রামীন পুলিশ ঘটনার তদন্তভার নেয়। তবে কী কারনে এতগুলো অবলা পশুকে এভাবে হত্যা করল দুষ্কৃতী, তার  কারণ এখনও জানা যায়নি।

    আরও পড়ুনঃ ধর্ষণের পর যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে নারকীয় অত্যাচার, দগদগে ক্ষত নিয়ে মুম্বইয়ে 'নির্ভয়া'র মৃত্যু

    তবে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, কুকুরের নির্বীজকরণের (neutering process) জন্য সরকার থেকে যে টাকা দেওয়া হয়, তা পকেটস্থ করতেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন ঠিকাদার বা কন্ট্রাক্টর (contractor)। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ১১  (Treating animals cruelly) এবং ৪২৯ (Mischief by killing or maiming cattle, etc., of any value or any animal of the value of fifty rupees) ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। অভিজুক্তের কড়া শাস্তির আর্জি জানিয়েছেন পশুপ্রেমী সংগঠনের সদস্যরা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই ঘটনার আগে একবার ৩৮টি হনুমানকে (monkeys) খুন করা হয়েছিল কর্ণাটকের হাসান জেলায়। সাত অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: