• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • করোনা মোকাবিলায় প্রশিক্ষণ ও নিয়োগে উদ্যোগী রাজ্য সরকার! একগুচ্ছ পদে ওয়াক ইন ইন্টারভিউ

করোনা মোকাবিলায় প্রশিক্ষণ ও নিয়োগে উদ্যোগী রাজ্য সরকার! একগুচ্ছ পদে ওয়াক ইন ইন্টারভিউ

একগুচ্ছ সিদ্ধান্ত নবান্নে

একগুচ্ছ সিদ্ধান্ত নবান্নে

আরও দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা দিতে বিভিন্ন পদে নিয়োগে জোর দিচ্ছে রাজ্য সরকার। চিকিৎসক নার্স ও অন্যান্য ক্ষেত্রে ১৩ হাজার ২৪৪ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে। মূলতঃ ওয়াক ইন ইন্টারভিউ–এর মাধ্যমে নিয়োগ করা হচ্ছে।

  • Share this:

#কলকাতা : গোটা দেশের মতোই করোনা পরিস্থিতি (Corona Virus) এখনও সঙ্কটজনক রাজ্যে। সামাল দিতে দফায় দফায় চলছে রাজ্যের প্রশাসনিক স্তরের বৈঠক। সবরকমভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মরিয়া সরকার। ইতিমধ্যেই করোনা মোকাবিলায় ফাইনাল ইয়ারের এমবিবিএস ছাত্র-ছাত্রী (MBBS Students) এবং নার্সদের কাজে লাগানোর পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার। সেই প্রক্রিয়াতেই এবার আরও একধাপ এগোল রাজ্য।

কোভিড পরিস্থিতি সামলাতে এবার ডাক্তারি পড়ুয়াদের দেওয়া হচ্ছে বিশেষ প্রশিক্ষণও। এমনটাই জানা যাচ্ছে নবান্ন সূত্রে। জানা গিয়েছে এমবিবিএস–এ চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে নার্সিং–এ চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদেরও প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যদপ্তর সুত্রে খবর প্রায় ২ হাজার ৪৫০ জন পড়ুয়াকে কোভিড রোগীদের চিকিৎসা করার জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে।

মেডিক্যালের স্টুডেন্টদের প্রশিক্ষণের পাশাপাশি আরও দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা দিতে বিভিন্ন পদে নিয়োগে জোর দিচ্ছে রাজ্য সরকার। চিকিৎসক নার্স ও অন্যান্য ক্ষেত্রে ১৩ হাজার ২৪৪ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে। মূলতঃ ওয়াক ইন ইন্টারভিউ–এর মাধ্যমে নিয়োগ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ৪৮১ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, ৭৫৩ জন মেডিক্যাল অফিসার, ৩ হাজার ৫১৬ জন নার্স, ৫৮১ জন ল্যাব টেকনিশিয়ান, ৩৫২ জন অ্যাটেনডেন্ট, ১১ জন রাঁধুনি, ৯০ জন প্যারামেডিক্যাল কর্মীকে নিয়োগ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার, মুখ্যসচিব আলাপন বন্দোপাধ্যায় নবান্ন সভাঘর থেকে ভার্চুয়ালি সমস্ত জেলা শাসক ও জেলা স্বাস্থ্যকর্তাদের সঙ্গে পর্যালোচনা বৈঠক করেন।  এই বৈঠকে হাসপাতালগুলির শয্যা সংখ্যা, অক্সিজেন সরবরাহ, করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত জীবনদায়ী ওষুধ, টিকাকরণ নিয়ে আলোচনা হয়। এখনও পর্যন্ত কেন্দ্রের কাছে চাওয়া ৩ লক্ষ ভ্যাকসিনের বিষয়ে কোনও  উত্তর আসেনি। তবুও যাঁরা প্রথম ডোজ নিয়েছেন, তাঁরা যাতে দ্বিতীয় ডোজ সময়ে পান সে ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাজ্য সরকার। রাজ্যে সব ইএসআই হাসপাতালে কোভিড শয্যাগুলিতে অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেসব জায়গায় অক্সিজেন প্লান্ট বসানোর কাজ চলছে তা দ্রুত শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব।

আবির ঘোষাল

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: