Kid donates in CMRF : সাইকেল কেনার টাকা করোনা ত্রাণ তহবিলে, ৭ বছরের স্কুল পড়ুয়ার মানবিকতা চোখ টানল মুখ্যমন্ত্রীর!

খুদের মানবিকতায় মুগ্ধ নেট দুনিয়ায় ছবি : সংগৃহিত

  • Share this:

    #মাদুরাই: দেশজুড়ে করোনা অতিমারীর(Coron Second Wave) বাড়বাড়ন্তের মধ্যেও তৈরী হচ্ছে একের পর এক মানবিকতার দৃষ্টান্ত। আর তাতেই আশার আলো দেখছে মানুষ। এবার এমনই ছবি চোখ খুলে দিয়েছে নেটিজেনদের। স্কুল পড়ুয়া ছোট্ট একটি ছেলে টাকা জমাচ্ছিল সাইকেল কিনবে বলে। কিন্তু সাইকেল না কিনে করোনা (Covid-19) সংকটে তামিলনাডুর (TamilNadu) মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিনের (M. K. Stalin) করোনা ত্রাণ তহবিলেই সেই সঞ্চিত অর্থ দান করলেন সেই খুদে। নাবালকের এই মহৎ কাজে অত্যন্ত আবেগান্বিত হয়ে তাঁকে একটি নতুন সাইকেল উপহার দিলেন তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন।

    এই ঘটনার কথা স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী নিজেই ট্যুইট করে একটি ভিডিও শেয়ার করে জানালেন। স্যোশাল মিডিয়ায় তিনি জানালেন, ‘করোনা মোকাবিলার জন্য তৈরি করা ত্রাণ তহবিলে এক খুদে স্কুল পড়ুয়াও অর্থ দান করেছেন। সে তাঁর নিজের সাইকেল কেনার জন্য জমানো টাকাই তুলে দিয়েছেন এই তহবিলে। এটাই আমাদের তামিলনাডুর শক্তি। আমি অত্যন্ত খুশি হয়ে তাঁকে একটি সাইকেল কিনে দিয়েছি। পাশাপাশি তাঁকে ফোনে ধন্যবাদও জানিয়েছি’।

    মুখ্যমন্ত্রীর শেয়ার করা ভিডিওটি ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ায় ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এই খুদের কাজের প্রশংসাও করেছেন নেটিজনরা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, শিশুটি নতুন সাইকেল পেয়ে খুবই খুশি। এমনকি সে সাইকেল চড়ে ঘুরেও বেড়াচ্ছে। সেইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার ভিডিওর অংশও দেখা গিয়েছে সেই ভাইরাল ভিডিওতে।

    প্রসঙ্গত, করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কার মাঝেই ২-১৮ বছর বয়সীদের উপরেও ভ্যাকসিনের ক্লিনিকাল ট্রায়াল চালানোর অনুমতি পেল ভারত বায়োটেক। মঙ্গলবার তাদের এই অনুমতি দান করেন কেন্দ্রীয় ড্রাগ স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের বিশেষজ্ঞ কমিটি। ইতিমধ্যেই ফাইজারকে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ১২-১৫ বছরের কিশোর-কিশোরীদের ওপর পরীক্ষা করার অনুমতি দিয়েছে আমেরিকার বাইডেন সরকার। এবার সেই পথে হাঁটল ভারতও। এই ট্রায়াল সফল হলে ভ্যাকসিন পাবে অপ্রাপ্তবয়স্করাও।
    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: