আত্মঘাতী হয়ে মৃত্যু, করোনা সন্দেহে দেহ সৎকার করতে দিচ্ছেন না এলাকাবাসী

আত্মঘাতী হয়ে মৃত্যু, করোনা সন্দেহে দেহ সৎকার করতে দিচ্ছেন না এলাকাবাসী
  • Share this:

SUJIT BHOWMIK 

#কাঁথি: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে, এই সন্দেহে মৃতদেহ সৎকার করতে না দেওয়া নিয়ে উত্তেজনা ছড়ালো কাঁথিতে। দাহ করার জন্য মৃতদেহ নিয়ে যেখানেই যাচ্ছেন,  সেখানেই প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে মৃতের পরিবারের আত্মীয়দের। জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি থানার ঘাঁটুয়া গ্রামের বাসিন্দা অক্ষয় রাউল কর্মসূত্রে সপরিবারে মহারাষ্ট্রের পুণেতে থাকতেন। গত রবিবার বছর তেইশের ওই যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটে। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি পরিবারের লোকজন গাড়ি ভাড়া করে নিয়ে গিয়ে মৃতদেহ গ্রামে নিয়ে এলে গ্রামবাসীরা সৎকার করতে বাধা দেয়।

নিরুপায় হয়ে মৃতের পরিবারের লোকজন মৃতদেহটি সৎকারের জন্যে কাঁথি শহরের একটি শ্মশানে নিয়ে গেলে চরম বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় তাঁদের। মৃতের পরিবারের লোকজনের কথায়, পারিবারিক অশান্তির জেরে ওই যুবক গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে, করোনায় সংক্রামিত হয়ে নয়। কিন্তু কে শোনে কার কথা ! কোনও কথা শুনতেই রাজি নন স্থানীয় বাসিন্দারা। সকলেই সন্দেহ করেন, ওই যুবক করোনায় আক্রান্ত হয়েই মারা গিয়েছেন। এখন বাধ্য হয়ে যুবকের সৎকারের জন্যে মৃতদেহ নিয়ে হন্যে হয়ে ঘুরছেন তাঁর পরিবারের লোকজন।

First published: March 26, 2020, 12:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर