সামাজিক দূরত্ব মানতে লক্ষ্মণ রেখা টানা হল শিলিগুড়ির বিভিন্ন বাজারে

সামাজিক দূরত্ব মানতে লক্ষ্মণ রেখা টানা হল শিলিগুড়ির বিভিন্ন বাজারে

শিলিগুড়ির নয়া বাজার, গেট বাজারে লক্ষ্মণ রেখা চালু।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলুন। মুদিখানা বা বাজার। ওষুধের দোকানই হোক। করোনা মোকাবিলায় এটাই বড় দাওয়াই। বলছে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার। সেইমতো বিভিন্ন রাজ্যেই লক্ষ্মণ রেখা চালু করা হয়েছে। বাজার, হাট, মুদিখানার দোকান থেকে ওষুধের দোকান সর্বত্র সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করছে। বহু জায়গায় চালু করা হয়েছে। আবার কোথাও কোথাও নিয়ম মানা হচ্ছে না। বিশেষ করে গ্রামীন এলাকায় নিয়মের তোয়াক্কা করা হচ্ছে না। বিভিন্ন হাটে সেই ঘাড়ের ওপর নিঃশ্বাস ফেলে দাঁড়ানোর ছবিও ধরা পড়েছে। সচেতনতার অভাব সর্বত্র। এমনটাই অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু নিয়ম না মানলে যে বড় বিপদ। তা আর কবে বুঝবে সাধারন মানুষ? প্রশ্ন তুলছে ঘর বন্দি মানুষেরা।

এবারে শিলিগুড়ির নয়া বাজার, গেট বাজারে লক্ষ্মণ রেখা চালু। উদ্যোগ নিল স্থানীয় ব্যবসায়ী সমিতি। সরকারী নির্দেশ মেনেই এই সিদ্ধান্ত। নির্দিষ্ট দূরত্বে দাগ কেটে দেওয়া হয়েছে। নিয়ম ভাঙলে  বাজারে আসা যাবে না। শুধু তাই নয়। মাস্ক পড়াও বাজারে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ক্রেতারা মাস্ক পড়ে না এলে বাজারে ঢোকার অনুমতি নেই। জানিয়ে দিয়েছে গেট বাজার ব্যবসায়ী সমিতি। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বাজার খোলা থাকবে। তারপর সব বন্ধ হয়ে যাবে। এমনকি করোনা সচেতনতা হিসেবে মজুত করার মতো পণ্যসামগ্রীও দেওয়া হচ্ছে না ক্রেতাদের। বিধান মার্কেটের মুদিখানা এবং বাজারে সচেতন ক্রেতারা। যতটা সম্ভব সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই চলছে বেচাকেনা। স্থানীয় কাউন্সিলর নান্টু পাল জানান, করোনা সচেতনতা প্রচার চলছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আর্জি জানানো হয়েছে। পরিস্থিতির ওপর প্রতিনিয়ত নজর রাখা হচ্ছে। এমনকি কয়েকটি মলেও এই বিধি চালু করা হয়েছে। দেশজুড়েই এখন করোনার বড় প্রভাব পড়েছে। সামাজিক দূরত্ব না মানলে খুব বিপদ। আতঙ্কিত নয়, সতর্ক ব্যবসায়ীরাও।

PARTHA PRATIM SARKAR

First published: March 26, 2020, 6:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर