Covid-19 Guide for Kids: করোনা থেকে কীভাবে সন্তানকে রক্ষা করবেন? দেখে নিন নির্দেশিকা...

শিশুদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বড়দের তুলনায় বেশি হওয়া সত্ত্বেও তারাও করোনার আক্রমণ থেকে রক্ষা পায়নি।

শিশুদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বড়দের তুলনায় বেশি হওয়া সত্ত্বেও তারাও করোনার আক্রমণ থেকে রক্ষা পায়নি।

  • Share this:

#নিউ ইয়র্ক: কোভিড ১৯ মহামারী পৃথিবীর প্রতিটি মানুষকে কোনও না কোনও ভাবে প্রভাবিত করেছে। যদিও করোনাভাইরাস বয়স্ক এবং কো-মরবিটিযুক্ত মানুষের জন্য বেশি মারাত্মক, কিন্তু অল্পবয়সীদের জন্য যে এই মারণ ভাইরাস কতটা ভয়ঙ্কর তা কোভিড ১৯-এর দ্বিতীয় ঢেউ ইতিমধ্যে প্রমাণ করে দিয়েছে। এমনকি শিশুদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বড়দের তুলনায় বেশি হওয়া সত্ত্বেও তারাও করোনার আক্রমণ থেকে রক্ষা পায়নি। এরই মধ্যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে করোনা সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ নিয়ে। যেখানে শিশুদের বেশি পরিমাণে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই ধারণা বিশেষজ্ঞ মহলের।

আমেরিকা অ্যাকাডেমি অফ পেডিয়াট্রিক্সের (AAP) তথ্য অনুযায়ী, ২০ মে, ২০২১ পর্যন্ত আমেরিকাতে মোট ৩৯, ,৯৩,৪০৭ জন শিশুর করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। এটি নির্ধারিত তারিখ পর্যন্ত দেশে মোট সংক্রামিতের ১৪%- এরও বেশি। সমস্ত পজিটিভ শিশুদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তির হার ছিল ০.১% থেকে ১.৯% (২৪ টি রাজ্য এবং নিউ ইয়র্ক শহরের তথ্য)। যদিও শিশুদের মধ্যে মৃত্যুর হার অত্যন্ত কম, তার মধ্যেও কিছু মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। তাই শিশুদের নিরাপত্তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিছু প্রাথমিক, তবে প্রয়োজনীয় উপায় রয়েছে যাতে আপনি মারণ ভাইরাসে আপনার শিশুর আক্রান্ত না হওয়া নিশ্চিত করতে পারেন। মার্কিন জনস্বাস্থ্য সংস্থা, সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (CDC) আপনার সন্তানকে নিরাপদ এবং স্বাস্থ্যকর রাখতে নিম্নলিখিত অভ্যাসগুলিতে উৎসাহিত করার পরামর্শ দিয়েছে।

হাত পরিষ্কার রাখুন এবং মাস্ক পড়ুন

বাবা-মা এবং অভিভাবকদের নিশ্চিত করতে হবে যে তাদের সন্তান যেন নিয়মিত অন্তত ২০ সেকেন্ডের জন্য ভাল করে হাত ধোয়া অভ্যাস করে। যদি সাবান ও জল না থাকে, অন্তত ৬০% অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন।

মাস্ক পরা একইভাবে গুরুত্বপূর্ণ। খেয়াল রাখুন- দুই বছরের বেশি বয়সীসন্তান যেন জনসমাগমে থাকে না। বাড়িতেও বাইরে থেকে আসা মানুষের সামনে গেলে মুখে মাস্ক পড়া উচিত।

অসুস্থতার সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকা মানুষের সঙ্গে আপনার সন্তানের মেলামেশায় রাশ টানতে হবে। সেক্ষেত্রে তাই মা-বাবাদের পরিবারে বয়স্ক মানুষদের দেখতে যাওয়া পিছোতে হবে।

যদিও আপনার ক্ষুদের বিকাশের জন্য বাইরের সামাজিক কাজকর্ম সত্যি গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু এক্ষেত্রে আপনার সন্তানের সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। যত বেশি মেলামেশা বাড়বে, ততই কোভিড ১৯ সংক্রমণের আশঙ্কাও বাড়বে। তাই শিশুদের খেলার সময় সীমাবদ্ধ রাখতে হবে। শারীরিক মেশামেশা বন্ধ করে ভার্চুয়ালি যোগাযোগ রাখতে পারে। সেক্ষেত্রে মা-বাবারা তাদের সন্তানদের বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করার জন্য ফোন কল অথবা ভিডিও চ্যাট করাতে পারেন। যদিও, আপনাদের মনে রাখতে হবে যে, আপনার সন্তান যেন শারীরিক ভাবে সচল থাকে কারণ তাদের স্বাস্থ্যের জন্য শারীরিক ভাবে ফিট থাকা খুবই প্রয়োজন। নিজেরা সঠিক জীবনযাত্রা অবলম্বন করে মা-বাবাদেরও তাদের শিশুদের জন্য একটি উদাহরণ স্থাপন করা উচিত।

ফ্লু শটের (Flu Shot)-এর জন্য ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে হবে। মহামারী থাকা সত্ত্বেও, মা-বাবাদের ফ্লু এবং অন্যান্য সম্ভাব্য রোগের জন্য বাচ্চাদের বাধ্যতামূলক শটগুলি এড়ানো উচিত নয়।

Published by:Shubhagata Dey
First published: