WB Corona Update : কাজে দিচ্ছে কড়া বিধিনিষেধ? কী বলছে রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমণ!

সংক্রমণের পারদ পতন, ভয় দেখাচ্ছে মৃত্যু

সোমবার রাজ্যে (West Bengal) করোনা আক্রান্তের (Daily Covid Cases) সংখ্যা নামল ১৮ হাজারের নিচে। ২ দিনে দৈনিক সংক্রমণ কমল প্রায় ১,০০০। তবে এদিন পরীক্ষাও হয়েছে কিছু কম।

  • Share this:

    #কলকাতা : করোনা সংক্রমণের (Coronavirus Update) পারদ পতন বজায় রইল সোমবারও। সঙ্গে নতুন রেকর্ড করল দৈনিক সুস্থতা। তবে রাজ্যে দৈনিক মৃত্যুর (Corona Death) সংখ্যা রইল ১৫০-র ওপরেই। শুধুমাত্র উত্তর ২৪ পরগনাতেই মৃত্যু হয়েছে ৪৭জনের। সোমবার রাজ্যে (West Bengal) করোনা আক্রান্তের (Daily Covid Cases) সংখ্যা নামল ১৮ হাজারের নিচে। ২ দিনে দৈনিক সংক্রমণ কমল প্রায় ১,০০০। তবে এদিন পরীক্ষাও হয়েছে কিছু কম।

    রবিবার সকাল ৯টা থেকে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে প্রায় ৬৬,৩০০। তার মধ্যে ১৭,৮৮৩ জন সংক্রমিতের খোঁজ মিলেছে। যার ফলে মোট সংক্রমণের সংখ্যাহয়েছে ১২,৮৪,৯৭৩। এদিন রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৯,৬৭০ জন। যা এক নতুন রেকর্ড। এর ফলে মোট সুস্থতা বেড়ে হয়েছে ১১,৪১,৮৭১।

    সোমবারের বুলেটিন অনুসারে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৫৩ জনের। যার ফলে মোট মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ১৪,৫১৭। এদিন উত্তর ২৪ পরগনায় ৪৭ জন ও কলকাতায় ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবারের পর মঙ্গলবারও রাজ্যে লক্ষণীয় ভাবে কমেছে অ্যাক্টিভ কেস। সোমবার রাজ্যে ১,৯৪০টি অ্যাক্টিভ কেস কমেছে। যার ফলে মোট অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,২৮,৫৮৫। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৮৮.৮৬ শতাংশ। প্রতি শতকে সংক্রমণের হার বেড়ে হয়েছে ১০.৭২।

    বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রবিবার বেশ কিছু পরীক্ষাগার বন্ধ থাকায় সোমবার সাধারণত সংক্রমণ একটু কম দেখায়। সোমবারের পরীক্ষার ফল মঙ্গলবার জানা গেলে বোঝা যাবে সংক্রমণের আসল চেহারা। তবে রাজ্য প্রশাসনের মতে কাজে দিচ্ছে রাজ্যজুড়ে করোনা মোকাবিলায় কড়া বিধি নিষেধ। প্রসঙ্গত, সংক্রমণ ঠেকাতে ১৬ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত রাজ্যে কড়া বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। অন্যদিকে জোর দেওয়া হয়েছে টিকাকরণেও। ঘূর্ণিঝড় যশের প্রস্তুতির মাঝেও করোনা টিকাকরণ যাতে ব্যাহত না হয়, তার জন্যও বিশেষ বন্দোবস্ত করছে প্রশাসন। স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিশেষ বিদ্যুৎ পরিষেবারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আর এরই মধ্যে করোনার দৈনিক সংক্রমণ নিম্নমুখী হওয়ায় সামান্য হলেও স্বস্তিতে রাজ্য সরকার।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: