Home /News /cooch-behar /
Cooch Behar: জল নিকাশের সমস্যা মেটাতে উদ্যোগী পৌরসভা, উদ্বোধন করা হল কালভার্ট

Cooch Behar: জল নিকাশের সমস্যা মেটাতে উদ্যোগী পৌরসভা, উদ্বোধন করা হল কালভার্ট

কোচবিহার পৌর এলাকার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে উদ্বোধন করা হলো কালভার্ট।

কোচবিহার পৌর এলাকার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে উদ্বোধন করা হলো কালভার্ট।

কোচবিহারের বিভিন্ন এলাকায় হালকা বৃষ্টি হলে জলমগ্ন হয়ে পড়ে। আর সে কারণে সমস্যায় পড়তে হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের। কোচবিহারের এমন একটি নিচু এলাকা পৌরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ড।

  • Share this:

    #কোচবিহার : কোচবিহারের বিভিন্ন এলাকায় হালকা বৃষ্টি হলে জলমগ্ন হয়ে পড়ে। আর সে কারণে সমস্যায় পড়তে হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের। কোচবিহারের এমন একটি নিচু এলাকা পৌরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ড। কিছুদিন আগে পর্যন্ত এখানে বৃষ্টি হলেই জল জমতে দেখা যেত।

    এছাড়া নিকাশি নালা গুলি সঠিক পরিচর্যার অভাবে জল নিকাশ হতে পারত না ঠিক ভাবে। তাই ১৯ নম্বর ওয়ার্ড পৌর এলাকার নিচু হয়ে যাওয়া একটি কালভার্ট পুনরায় সংস্কার করে উদ্বোধন করা হলো এদিন। এলাকার একজন স্থানীয় বাসিন্দা এই কালভার্ট উদ্বোধন নিয়ে বলেন, "এই কালভার্টটি আগে অনেকটাই নিচু হয়ে গিয়েছিল। যার ফলে এর নিচ দিয়ে জল ঠিকঠাক যেতে পারত না। তারপর পলি পড়ে পড়ে অনেকটাই বন্ধ হয়ে গেছিল নলাটি। তাই এই কালভার্টটিকে সংস্কার করে পুনরায় উদ্বোধন করার কারণে আমরা এলাকাবাসীরা সবাই খুশি। আশা করছি এখন আর জল জমার সমস্যা হবে না এলাকায়।"

    আরও পড়ুনঃ জল নিকাশের সমস্যা মেটাতে উদ্যোগী পৌরসভা, উদ্বোধন করা হল কালভার্ট

    আরও পড়ুনঃ সামনেই স্বাধীনতা দিবস, জাতীয় পতাকার বিক্রি জমজমাট

    দীর্ঘ কিছুদিন যাবত এই কালভার্টটি সংস্কারের কাজ চলছিল। তবে এদিন কালভার্টটি উদ্বোধন করার পর স্থানীয় বাসিন্দারা তাদের খুশি প্রকাশ করেন। এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর এলাকায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ও পালন করা হয়। এলাকার বিভিন্ন জায়গায় কিছু গাছের চারা রোপন করা হয়।

    সমাজ সচেতনতা বাড়াতে এবং এলাকাতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পরিবেশ বজায় রাখতে এলাকার মানুষের সাথে কথা বলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর অভিজিৎ মজুমদার। কোচবিহার পৌরসভার চেযারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন,  "কোচবিহার পৌরসভা কোচবিহারের সকল নাগরিকদের সুস্থ এবং স্বাভাবিক পৌর পরিষেবা দিতে সব সময় চেষ্টা করে যাচ্ছে।

    যেখানে যেখানে সমস্যা রয়েছে, সেগুলি আমাদের কানে আসা মাত্রই আমরা সমাধান করার চেষ্টা করছি। কিছু সময় স্থানীয় মানুষেরা এসে আমাদের জানাচ্ছেন। এবং কিছু সময় ওয়ার্ড কাউন্সিলররা। তবে কোচবিহার পৌরসভা আগামী দিনেও পৌর নাগরিকদের সঠিক এবং স্বাভাবিক পৌর পরিষেবা প্রদান করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। "

    Sarthak Pandit

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Cooch behar

    পরবর্তী খবর