Home /News /business /
LIC IPO: এলআইসি-র শেয়ার কিনতে গেলে কারা পাবেন ছাড়, বিস্তারিত জানিয়ে দিল সংস্থা

LIC IPO: এলআইসি-র শেয়ার কিনতে গেলে কারা পাবেন ছাড়, বিস্তারিত জানিয়ে দিল সংস্থা

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

LIC IPO: আগামী ৪ থেকে ৯ তারিখ অবধি শেয়ার কিনতে হলে কমপক্ষে ১৫'টা শেয়ার কিনতে হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: অবশেষে বাজারে আসছে LIC-এর শেয়ার।শেয়ার বাজারে আসবে আগামী ৪'মে।শেয়ার কেনা যাবে আগামী ৯'মে থেকে। শেয়ারের মূল্য স্থির করা হয়েছে ৯০২-৯৪৯ টাকা।সংস্থার কর্মীরা ছাড় পাবেন ৪৫ টাকা করে।পলিসি হোল্ডাররা ছাড় পাবেন ৬০ টাকা করে। ১৭ মে থেকে শুরু হতে চলেছে স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন।

আগামী ৪ থেকে ৯ তারিখ অবধি শেয়ার কিনতে হলে কমপক্ষে ১৫'টা শেয়ার কিনতে হবে। আগামী ১৭ তারিখের পরে ১-২ শেয়ার কেনা যাবে। গত ফ্রেব্রুয়ারি মাসে কেন্দ্র ঘোষণা করেছিল এল আই সি'র ৫% তথা ৩১৬ কোটি টাকার শেয়ার বিক্রি হবে৷ রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে সেই আইপিও লঞ্চ পিছিয়ে যায়। পরে কেন্দ্র জানায় ৩.৫% শেয়ার বিক্রি করা হবে। এর মাধ্যমে কেন্দ্রের কোষাগারে আসতে পারে ২১ হাজার কোটি। যিনি শেয়ার কিনতে চান তাঁর আধার নাম্বারের সঙ্গে এল আই সি'র লিংক থাকতে হবে৷ প্যান কার্ড থাকতে হবে।এল আই সি'র তরফ থেকে জানানো হয়েছে, শেয়ারের জন্যে ইসু খুলবে আগামী ৪'মে। শেয়ার কেনা যাবে আগামী ৯'মে অবধি। মূল্যবন্ধনী ৯০২-৯৪৯ টাকা। সংস্থার কর্মীরা শেয়ার কিনতে পারবেন ৪৫ টাকায়৷ পলিসি হোল্ডাররা ৬০ টাকা করে দামে ছাড় পাবেন। ১৭ মে থেকে শুরু হবে স্টক এক্সচেঞ্জে শেয়ারের লেনদেন।গত মার্চ মাসে কথা ছিল শেয়ার বাজারে নিয়ে আসা হবে৷ যদিও বাজারে আনা হয়নি তখন। অবশেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী মে মাসে বাজারে নিয়ে আসা হবে এল আই সি'র শেয়ার৷

আরও পড়ুন: আর অপেক্ষা নয়, অবশেষে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে গুরুদায়িত্ব দিল তৃণমূল!

কেন্দ্রীয় সরকারের একটি সূত্রের দাবি, বহুদিন ধরেই বহু মানুষ এল আই সি'তে লগ্নি করতে চেয়েছিলেন। সরকার সব দিক খতিয়ে দেখে চূড়ান্ত পদক্ষেপ নিচ্ছে।রাজনৈতিক মহলের মতে এখনও কাটেনি শেয়ার বাজারের অস্থিরতা। বিশেষ করে রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের পরে শেয়ার বাজার অনিশ্চিত হয়ে আছে। সেনসেক্স মাঝে মধ্যে বাড়লেও নেমে আসছে ৫৬ হাজারের ঘরে৷ এই অবস্থায় এল আই সি'র শেয়ার নিয়ে তাড়াহুড়ো সরকারের হঠকারি সিদ্ধান্ত।  এল আই সি'র এমডি, সিদ্ধার্থ মহান্তি জানিয়েছেন, মানু্ষ এর আগ্রহ আছে। শেয়ার বাজারে আসা মানেই সংস্থার বেসরকারিকরণ নয়৷  আই সি সূত্রে অবশ্য জানানো হয়েছে, সংস্থার মূল্যায়ন এবং বাজারের বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে শেয়ারের অঙ্ক স্থির করা হয়েছে৷ তবে বিশেষজ্ঞদের মতে আগামী দিনে বাকি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির বিলগ্নিকরণের রাস্তা চওড়া করছে কেন্দ্রীয় সরকার। যদি দেখা যায় এল আই সি'র শেয়ার বিক্রি ভাল ভাবে হচ্ছে। তাহলে অন্যান্য রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার শেয়ার নিয়ে বাজারে নামতে পারবে কেন্দ্র। তবে এল আই সি'র দাবি, শেয়ার বাজারের সাময়িক সঙ্কট কেটে গিয়েছে। পরিস্থিতি এখন ভাল৷ এটাই হতে চলেছে দেশের বৃহত্তম আইপিও।

Abir Ghosal

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: LIC IPO

পরবর্তী খবর