Home /News /business /

Money Transfer: ভুল করে অন্যের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেছেন? ফেরত পেতে কী করতে হবে, জেনে নিন

Money Transfer: ভুল করে অন্যের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেছেন? ফেরত পেতে কী করতে হবে, জেনে নিন

Online Money Transfer: ভুল অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেছেন! সেই টাকা ফেরত পেতে পারেন। কী করতে হবে জেনে নিন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অনেক সময় ভুল অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেন অনেকেই। তার পর শুরু হয় দুশ্চিন্তা। কখনও এটি ব্যাঙ্কিং জালিয়াতির ক্ষেত্রেও ঘটে। কিন্তু এখন UPI, নেট ব্যাঙ্কিং, মোবাইল ওয়ালেট ব্যাঙ্কিং লেনদেন টাক ট্রান্সফারের ঝক্কি অনেকাংশে কমিয়ে দিয়েছে। এখন আর কারও অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করতে ব্যাঙ্কে যাওয়ার দরকার নেই। এই কাজটি শুধুমাত্র একটি মোবাইল দিয়ে এক মিনিটে করে ফেলা যায়।

    ব্যাঙ্কিং সুবিধা সহজতর করার জন্য অনেক নতুন প্রযুক্তি গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু এর সঙ্গে কিছু অসুবিধাও জুড়েছে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি ভুলবশত অন্য কারো অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করেন তা হলে সমস্যায় পড়তে হতে পারে। কিভাবে সেই টাকা ফেরত পাবেন? আপনিও কি এই ভুলটি কখনও না কখনও করেছেন! ভুলবশত আপনার টাকা অন্য অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করে থাকলে আপনি তা ফেরত পেতে পারেন।

    ব্যাংঙ্ককে তথ্য দিন-

    আপনি যখনই জানতে পারবেন, ভুল করে অন্য কারও অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলেছেন, অবিলম্বে আপনার ব্যাঙ্ককে জানান। কাস্টমার কেয়ারে ফোন করে পুরো ঘটনা খুলে বলুন। যদি ব্যাঙ্ক আপনার কাছে ই-মেইলে সমস্ত তথ্য চায়, তা হলে এই লেনদেন সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য দিন। লেনদেনের তারিখ এবং সময়, আপনার অ্যাকাউন্ট নম্বর এবং ভুলবশত যে অ্যাকাউন্টে টাকা স্থানান্তরিত হয়েছে তা উল্লেখ করতে ভুলবেন না।

    ব্রাঞ্চ ম্যানেজারকে বলুন-

    আপনি যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করেছেন, যদি অ্যাকাউন্ট নম্বরটি ভুল হয় বা IFSC কোডটি ভুল থাকে, তবে টাকা স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার অ্যাকাউন্টে চলে আসবে। তবে যদি তা না হয় তবে আপনার ব্যাঙ্কের শাখায় যান। ব্রাঞ্চ ম্যানেজারকে জানান। তাঁকে লেনদেন সম্পর্কে বলুন। কোন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা গেছে তা জানার চেষ্টা করুন। যদি সেটি আপনার নিজের ব্যাঙ্কের কোনও শাখায় হয়ে থাকে, তবে তা সহজেই আপনার অ্যাকাউন্টে জমা হয়ে যাবে।

    আরও পড়ুন- এর থেকে বেশি লাগেজ নিয়ে ট্রেনে যাত্রা করলে দিতে হবে বাড়তি চার্জ

    ভুলবশত অন্য ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়ে গেলে টাকা ফেরত পেতে আরও সময় লাগতে পারে। কখনও কখনও ব্যাঙ্কগুলি এই ধরনের মামলা নিষ্পত্তি করতে ২ মাস পর্যন্ত সময় নিতে পারে। কোন শহরের, কোন শাখায়, কোন অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়েছে তা আপনি আপনার ব্যাঙ্ক থেকে জানতে পারবেন।

    আপনি সেই শাখায় কথা বলে আপনার টাকা ফেরত পাওয়ার চেষ্টা করতে পারেন। তথ্যের ভিত্তিতে আপনার ব্যাঙ্ক ওই ব্যাঙ্ককে জানাবে, অমুখ ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে টাকা ভুলবশত স্থানান্তরিত হয়েছে। ব্যাঙ্ক সেই ব্যক্তিকে ভুল করে ট্রান্সফার হওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য বলবে।

    আরও পড়ুন- সরকারের এই সিদ্ধান্তের জন্য সস্তা হবে হোম লোন, জানুন কেন!

    আপনার টাকা ফেরত পাওয়ার আরেকটি উপায় হল আইনি পথ। যার অ্যাকাউন্টে ভুলবশত টাকা ট্রান্সফার হয়ে গেছে, সে যদি ফেরত দিতে অস্বীকার করে, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে মামলাও করা যেতে পারে। আজকাল আপনি যখন একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য কারও অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করেন, তখন আপনি একটি মেসেজ পান। তাতে আরও লেখা থাকে, লেনদেন ভুল হলে এই নম্বরে মেসেজ করুন। আরবিআই ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে, যদি ভুল করে অন্য কারও অ্যাকাউন্টে টাকা জমা হয়ে যায়, তবে আপনার ব্যাঙ্ককে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ব্যবস্থা নিতে হবে। ভুল অ্যাকাউন্ট থেকে সঠিক অ্যাকাউন্টে আপনার টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য ব্যাঙ্ককে দায়িত্ব নিতে হবে।

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    Tags: Bank Account, Money Transfer, Online Money Transfer

    পরবর্তী খবর