• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • সোনায় ইনভেস্ট করতে চাইছেন ? তাহলে অবশ্যই এই ৬টি বিষয়ে খেয়াল রাখুন

সোনায় ইনভেস্ট করতে চাইছেন ? তাহলে অবশ্যই এই ৬টি বিষয়ে খেয়াল রাখুন

সোনা কেনার সময় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে ৷

সোনা কেনার সময় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে ৷

সোনা কেনার সময় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: সোনায় ইনভেস্ট (Gold and Silver Price) করা সবচেয়ে সুরক্ষিত মনে করা হয় ৷ এর পাশাাশি সোনায় মোটা রিটার্নও পাওয়া যায় ৷মহামারি বা আর্থিক সঙ্কট যে কোনও সমস্যায় কাজে আসে সোনা ৷ রিপোর্ট অনুযায়ী, সেপ্টেম্বর ২০১৯ থেকে সেপ্টেম্বর ২০২১ এর মধ্যে গোল্ড লোন প্রায় দু’গুণের বেশি বেড়েছে ৷ খারাপ সময় মানুষের কাজে এসেছে সোনা ৷ এই ফেস্টিভ সিজনে সোনার চাহিদা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল ৷

    আরও পড়ুন: ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল করার আগে অ্যানুয়াল ইনফরমেশন স্টেটমেন্টে জমা করা যাবে আয়ের ডিটেল, জানুন বিশদে!

    কেডিয়া কমোডিটিজের এমডি অজয় কেডিয়া জানিয়েছেন, আগামী দীপাবলি পর্যন্ত সোনার দাম (Gold and Silver Price) রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছে যাবে ৷ তাই সোনায় ইনভেস্ট করা এখনই সবচেয়ে সেরা সময় বলে মনে করা হচ্ছে ৷ গ্রাহকরা ফিজিক্যাল গোল্ডের পাশাপাশি Sovereign গোল্ড, ডিজিটাল গোল্ড, গোল্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মাধ্যমে সোনা কিনতে পারবেন ৷ সোনা কেনার সময় কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে ৷

    আরও পড়ুন: ১৮ বছর বয়স হওয়ার আগেই বানিয়ে ফেলতে পারবেন প্যান কার্ড! দেখে নিন কীভাবে....

    ১. ভালো রিটার্ন- রিপোর্টে দেখা গিয়েছে ২০২০-তে সোনা প্রায় ২৫ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে ৷ আগামী বছর দীপাবলিতে সোনার দাম প্রায় ৫৫ থেকে ৬০ হাজার টাকা প্রতি ১০ গ্রামে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ৷ চাহিদা বাড়তে থাকায়, মূল্যবৃদ্ধি, ক্রড অয়েলের ঊর্ধ্বমুখী দাম, কম বৈশ্বিক বৃদ্ধির পূর্বাভাস, চিনের লোয়ার রেটিংয়ের জেরে সোনার দাম বাড়বে ৷

    ২. বিপুল দাম বাড়বে রুপোর দাম- সোনার থেকেও বেশি চাহিদা থাকবে রুপোর ৷ ২০২২ সালে ৭৫ হাজার থেকে প্রতি কিলোগ্রামে ৮০ হাজার টাকা হতে পারে রুপোর দাম৷

    ৩. দুই তিনটে ফর্মে করতে হবে ইনভেস্টমেন্ট- দুটি বা তিনটে ফর্মে সোনায় ইনভেস্ট করতে পারবেন ৷ যাঁরা ফিজিক্যাল গোল্ডের সুরক্ষা নিয়ে নিশ্চিত নন তাঁরা ডিজিটাল গোল্ড ও গোল্ড ইটিএফে ইনভেস্ট করতে পারবেন ৷ ধনতেরসে গ্রাহকরা ৫০ শতাংশ সোনা ও ৫০ শতাংশ রুপোয় ইনভেস্ট করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা ৷

    আরও পড়ুন: ১৮ বছর বয়স হওয়ার আগেই বানিয়ে ফেলতে পারবেন প্যান কার্ড! দেখে নিন কীভাবে....

    ৪. হলমার্ক করা জুয়েলারি কিনবেন- হলমার্ক করা গয়নায় শুদ্ধকার গ্যারেন্টি থাকে ৷ তাই সব সময় হলমার্ক করা জুয়েলারিই কিনবেন ৷

    ৫. যাচাই করে নিন শুদ্ধতা - সোনার শুদ্ধতা ক্যারেটে যাচাই করা হয়ে থাকে ৷ ২৪ ক্যারেট সোনা মানে ৯৯.৯ শতাংশ শুদ্ধ ৷ এটা ৯৯৯ নম্বর দিয়ে বোঝানো হয় ৷ ২২ ক্যারেট সোনা মানে ৯২ শতাংশ শুদ্ধ ৷

    ৬. মেকিং চার্জ জেনে নিন- সোনার গয়নার (Gold and Silver Price) উপরে লেবর চার্জ হিসেবে মেকিং চার্জ নেওয়া হয়ে থাকে ৷ মেকিং চার্জ জুয়েলারির ডিজাইনের উপর অনেকটাই নির্ভর করে ৷ জুয়েলারি মেশিন মেড না হ্যান্ড মেড তার উপরেও মেকিং চার্জ নির্ভর করে ৷ মেশিন মেড জুয়েলারি হ্যান্ড মেড জুয়েলারি থেকে সস্তা হয় ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: