Home /News /business /
ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা ভুলেও করবেন না এই ৪টি কাজ, হতে পারে বড় লোকসান

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা ভুলেও করবেন না এই ৪টি কাজ, হতে পারে বড় লোকসান

ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে এটিএম থেকে ক্যাশ তোলা যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: নোট বাতিলের পর থেকে ভারতে ক্রেডিট কার্ডের বিপুল চাহিদা বেড়েছে। অজস্র রকমের ক্রেডিট কার্ডও রয়েছে বাজারে। দেশের বড় ছোট সমস্ত শহরে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের প্রবণতা বেড়েছে ৷ কিছু টিপস ফলো ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন তাহলে লাভবান হতে পারেন আপনিও ৷ কিন্তু হিসেব না করে ব্যবহার করলে ঋণের জালে আটকে যেতে পারেন ৷ ঋণের জালে নিজেকে জরাতে না চাইলে এই চারটি বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে ৷

    আরও পড়ুন:  এবার এফডি-তে সুদের হার বৃদ্ধি করল এই ব্যাঙ্ক

    ১. কেবল মিনিমাম অ্যামাউন্ট ডিউ-এর পেমেন্ট করতে হবে

    কার্ডহোল্ডারদের কেবল মিনিমাম অ্যামাউন্ট ডিউ এর পেমেন্ট করলে লেট পেমেন্ট করার দরকার পড়বে না ৷ মিনিমাম অ্যামাউন্ট ডিউ ব্যবহারকারীদের আউটস্ট্যান্ডিং বিলের একটা ছোট অংশ (সাধারনত ৫ শতাংশ)হয় ৷ এর জেরে আপনার ঋণ দ্রুত গতিতে বাড়তেই থাকে কারণ ডেলি বেসিসের পেমেন্ট না করার টাকার উপর ফাইন্যান্স চার্জ দিতে হয় ৷ খেয়াল রাখতে হবে ক্রেডিট কার্ডের উপরে ফাইন্যান্স চার্জ সাধারনত ৪০ শতাংশের বেশি হয় বছরে ৷

    ২. ATM থেকে ক্যাশ তোলা-

    ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে এটিএম থেকে ক্যাশ তোলা যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে ৷ ক্রেডিট কার্ড দিয়ে ক্যাশ তুললে ক্রেডিট পিরিয়ড পাওয়া যায় না ৷ আপনার কার্ডে যে সুদের হার লাগু রয়েছে, এটিএম থেকে টাকা তোলার দিন থেকে সেটা লাগু হয়ে যাবে ৷

    আরও পড়ুন: পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কি আজ বাড়ল ? দেখে নিন...

    ৩. পুরো ক্রেডিট লিমিট ব্যবহার করা -

    ক্রেডিট কার্ডের পুরো লিমিট ব্যবহার করা এড়িয়ে চলবেন ৷ এর জেরে আপনার ক্রেডিট স্কোর প্রভাবিত হয়ে থাকে ৷ সাধারনত ক্রেডিট কার্ড সংস্থা ক্রেডিট ইউটিলাইজেশন রেশিও-র ৪০ শতাংশ বেশি হলে ঋণ হিসেবে ধরে ৷ ক্রেডিট স্কোরের উপরে ক্রেডিট ইউটিলাইজেশন রেশিও (Credit Utilization Ratio – CUR) উপর প্রচুর প্রভাব পড়ে থাকে ৷ ক্রেডিট ইউটিলাইজেশন রেশিও নির্ভর করে আপনি ক্রেডিট কার্ড কতটা ব্যবহার করেন ৷

    আরও পড়ুন: বাড়ি কিনছেন ? জেনে নিন বিভিন্ন শহর ও রাজ্যের স্ট্যাম্প ডিউটি এবং রেজিস্ট্রেশন চার্জ

    ৪. ইন্টারেস্ট ফ্রি পিরিয়ড অনুযায়ী প্ল্যান না করা....

    ইন্টারেস্ট ফ্রি পিরিয়ড সাধারনত ১৮-৫৫ দিনের জন্য হয় ৷ এই সময়ের মধ্যে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে করা লেনদেনে কোনও চার্জ লাগবে না যদি সময়ের মধ্যে বকেয়া টাকা দিয়ে দেন ৷ বেশি লাভের জন্য ইন্টারেস্ট ফ্রি পিরিয়ড অনুযায়ী, নিজের কেনাকাটার প্ল্যানিং করতে হবে ৷ বিলিং সাইকেলের প্রথমে বড় কেনাকাটি করলে পেমেন্টের জন্য বেশি ইন্টারেস্ট ফ্রি দিন হাতে পাবেন ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    Tags: Credit Card

    পরবর্তী খবর