হোম /খবর /ব্যবসা-বাণিজ্য /
ইএমআই ভাল না এক লপ্তে ক্যাশ পেমেন্ট? কেনার আগে এই কথাগুলো না জানলে ঠকতে হবে!

EMI: ইএমআই ভাল না এক লপ্তে ক্যাশ পেমেন্ট? কেনার আগে এই কথাগুলো না জানলে ঠকতে হবে!

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

EMI: ইএমআই অর্থাৎ ইকুয়েটেড মান্থলি ইনস্টলমেন্ট বর্তমানে খুবই জনপ্রিয়।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার আগে কিছু বিষয় বিবেচনা করে দেখা উচিত আর তার পুরোটাই ইএমআই সংক্রান্ত। কেন না, যাঁদের টাকা আছে, তাঁদের এক লপ্তে জিনিসের পুরো দাম দিতে বা ক্যাশ পেমেন্ট করতে কোনও অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। কিন্তু আমাদের অনেকেরই মূল্যবান জিনিস কিনতে একমাত্র ভরসা ইএমআই।

    ইএমআই অর্থাৎ ইকুয়েটেড মান্থলি ইনস্টলমেন্ট বর্তমানে খুবই জনপ্রিয়। ইএমআইয়ের মাধ্যমে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট পরিমাণে টাকা দিয়ে যে কোনও জিনিস কেনা যায়। কিন্তু ইএমআইয়ের ক্ষেত্রে যেমন বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে, তেমনই বেশ কিছু অসুবিধাও রয়েছে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ইএমআইয়ের সুবিধা ও অসুবিধা।

    ইএমআইয়ের সুবিধা -

    ক্রয় করার ক্ষেত্রে স্বাধীনতা -

    ইএমআই অপশনের মাধ্যমে দামি জিনিস খুব সহজেই ক্রয় করা যায়। যাঁদের কাছে বেশি পরিমাণে নগদ রাশি থাকে না, তাঁরা ইএমআইয়ের মাধ্যমে বেশি দামের জিনিস ক্রয় করতে পারেন। বেতনভুক্ত কর্মীদের ক্ষেত্রে ইএমআই অপশন খুবই জনপ্রিয়। কারণ এর মাধ্যমে তাঁরা খুব বেশি দামি জিনিস ক্রয় করে অথবা লোন নিয়ে প্রতিমাসে ইএমআইয়ের মাধ্যমে তা পরিশোধ করতে পারেন।

    আরও পড়ুন: রেলের পাওয়ার হাউসে থেঁতলে যাওয়া মুখ, কী মারাত্মক দৃশ্য! মগরাহাট জুড়ে আতঙ্ক

    দামি জিনিস -

    ইএমআইয়ের মাধ্যমে খুব সহজেই বিভিন্ন ধরনের দামি জিনিস ক্রয় করা সম্ভব। কারণ এর মাধ্যমে সেই দামি জিনিসের পুরো টাকা একবারে পেমেন্ট করতে হয় না। বিভিন্ন ধরনের দামি বাড়ির জিনিস, গাড়ি, উপহার ইত্যাদি খুব সহজে ইএমআইয়ের মাধ্যমে কেনা সম্ভব।

    ওয়ালেট -

    ইএমআইয়ের মাধ্যমে প্রতি মাসে গ্রাহকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেওয়া হয় সেই টাকা। ফলে, আলাদা করে জমা দিতে যাওয়ার দরকার পড়ে না।

    আরও পড়ুন: বীরভূমে এসে 'নবান্ন' খেলেন সুকান্ত মজুমদার, সঙ্গে ভুরিভোজ! কী ছিল তালিকায়?

    ইএমআই ক্যালকুলেটর -

    অনলাইনে ইএমআই ক্যালকুলেটর রয়েছে। এর মাধ্যমে গ্রাহকরা খুব সহজেই তাঁদের লোনের প্রিন্সিপাল অ্যামাউন্ট, সুদের হার, সময় ইত্যাদি বিভিন্ন জিনিস নিজেরাই ক্যালকুলেট করে দেখতে পারেন। নিজেরাই ক্যালকুলেট করার ফলে গ্রাহকদের অন্যান্য আর্থিক পরিকল্পনা করতে সুবিধা হয়।

    ফ্লেক্সিবেল ইএমআই অপশন -

    বিভিন্ন ধরনের ব্যাঙ্ক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান ফ্লেক্সিবল ইএমআই স্কিম অফার করছে। এর ফলে গ্রাহকরা খুব সহজেই যে কোনও জিনিস বাড়িতে নিয়ে যেতে পারেন ফ্লেক্সিবল ইএমআই স্কিমের মাধ্যমে। এক্ষেত্রে গ্রাহকদের আয়ের উপর পুরো বিষয়টি নির্ভর করে।

    মধ্যস্থতাকারী -

    এক্ষেত্রে গ্রাহক এবং ব্যাঙ্কের মধ্যে কোনও মধ্যস্থতাকারী থাকে না। গ্রাহকরা যাঁদের কাছ থেকে জিনিস কিনছেন, সরাসরি তাঁদের কাছে ব্যাঙ্কের টাকা পৌঁছে যায়। এর পর গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতি মাসে ইএমআইয়ের টাকা কেটে নেওয়া হয়।

    ইমআইয়ের অসুবিধা -

    লম্বা সময় পর্যন্ত লোন -ইএমআইয়ের ক্ষেত্রে লম্বা সময় পর্যন্ত লোনের টাকা দিয়ে যেতে হয়। কারণ বিভিন্ন ধরনের ইএমআই স্কিম লম্বা সময়ের জন্য নির্ধারিত করা হয়।

    হাই রিপেমেন্ট -

    ইএমআইয়ের মাধ্যমে কোনও জিনিস কিনলে বেশি টাকা রিপেমেন্ট করতে হয় অর্থাৎ কেউ যদি ইএমআই স্কিমের মাধ্যমে ৫৫ হাজার টাকার ফোন ক্রয় করেন, তাহলে তাঁকে বেশি টাকা পেমেন্ট করতে হবে। এক্ষেত্রে অতিরিক্ত টাকা সুদ হিসেবে দিতে হয়। এর জন্য গ্রাহকদের জিরো ইন্টারেস্ট ইএমআই স্কিম বেছে নেওয়া দরকার।

    প্রিপেমেন্ট -

    গ্রাহকরা যদি লোনের টাকা আগেই শোধ করে দিতে চান, তাহলে তাঁদের প্রিপেমেন্ট পেনাল্টি চার্জ দিতে হয়।। এক্ষেত্রে তাঁদের মোট লোনের টাকার ২ থেকে ৩ শতাংশ প্রিপেমেন্ট পেনাল্টি চার্জ হিসাবে দিতে হয়।

    চার্জ -

    লোন নেওয়ার পর গ্রাহকরা যদি ইএমআইয়ের টাকা মিস করে যান, তাহলে তাঁদের বিভিন্ন ধরনের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হতে পারে। এক্ষেত্রে যে সকল গ্রাহক কোনও সম্পত্তি বন্ধক রেখে হোমলোন অথবা কার লোন নিয়েছেন, তাঁদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হতে পারে ইএমআই জমা দিতে না পারলে।

    ক্রেডিট স্কোর -

    গ্রাহকরা কোনও মাসের পেমেন্ট দিতে দেরি করলে অথবা মিস করলে তাঁদের ক্রেডিট স্কোরে নেগেটিভ এফেক্ট পড়ে।

    অতিরিক্ত টাকা -

    গ্রাহকরা ইএমআই স্কিমের মাধ্যমে কোনও ধরনের জিনিস কিনলে তাঁদের থেকে বিভিন্ন ধরনের আর্থিক প্রতিষ্ঠান প্রসেসিং ফ্রি হিসাবে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে থাকে।

    এই সব দিক বিবেচনা করে দেখলে একটাই সিদ্ধান্তে আসতে হয়- ইএমআই তখনই ভাল যদি গ্রাহক যথেষ্ট বিচক্ষণতার সঙ্গে পুরো বিষয়টির মধ্যে দিয়ে যেতে পারেন। তাই দরকারে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া অবশ্যই কাম্য।

    First published:

    Tags: Cash Payments, EMI