Home /News /business /
Credit Card: ক্রেডিট কার্ডের সমস্ত সুবিধা গ্রহণ করছেন তো? না-করলে এখনই জেনে নিন!

Credit Card: ক্রেডিট কার্ডের সমস্ত সুবিধা গ্রহণ করছেন তো? না-করলে এখনই জেনে নিন!

জেনে নিন সুবিধা

জেনে নিন সুবিধা

Credit Card: এক জন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারী যদি কার্ড থেকে উপলব্ধ সমস্ত অফার এবং পরিষেবা গ্রহণ করেন, তবে তিনি প্রচুর পরিমাণে অর্থ সঞ্চয় করতে সক্ষম হবেন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং এবং মোবাইল ব্যাঙ্কিংয়ের ব্যবহার বাড়ছে। আর তার ফলে বর্তমানে ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে বিভিন্ন পরিষেবা পাওয়াও গ্রাহকদের কাছে খুব সহজ হয়ে উঠেছে। যার ফলে বেড়েছে ক্রেডিট কার্ডের (Credit Card) গুরুত্বও। তবে এটাও সত্য যে, বহু গ্রাহকই ক্রেডিট কার্ডের সম্পূর্ণ সুবিধা ভোগ করতে পারেন না। আর এর অন্যতম কারণ হল, তাঁরা ক্রেডিট কার্ড থেকে উপলব্ধ সুবিধাগুলোর বিষয়ে সেভাবে অবগত নন। ফলে পুরোপুরি এর সুবিধা ভোগ করতে পারেন না ব্যবহারকারী।

এক জন ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারী যদি কার্ড থেকে উপলব্ধ সমস্ত অফার এবং পরিষেবা গ্রহণ করেন, তবে তিনি প্রচুর পরিমাণে অর্থ সঞ্চয় করতে সক্ষম হবেন। গ্রাহকরা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে নানা ধরনের সুবিধা পেতে পারেন। তার মধ্যে অন্যতম হল ‘বাই নাও, পে লেটার’ (Buy Now, Pay Later)। শুধু তা-ই নয়, এর পাশাপাশি এই কার্ড ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় অফার, ডিসকাউন্ট ও রিওয়ার্ড পয়েন্টও পেতে পারেন গ্রাহকেরা।

‘বাই নাও, পে লেটার’: ‘Buy now, Pay Later’ একটি দারুণ সুবিধা। কারণ এর মাধ্যমে একাধিক প্ল্যাটফর্মে গ্রাহকরা কেনাকাটা সারতে পারেন। আর সেই কেনাকাটার সময় টাকা-পয়সা লাগে না। পরেও সেই টাকা-পয়সা বা বিল মেটানো যায়। আর বিশেষ বিষয় হল, এক্ষেত্রে সুদের পরিমাণও কম। এমনকী এক-একটা প্ল্যাটফর্মে তো কোনও রকম অতিরিক্ত চার্জ ছাড়াই গ্রাহকদের এই পরিষেবাটি দেওয়া হয়। ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে করা কেনাকাটার উপর যদি ব্যাঙ্ক বেশি পরিমাণ সুদ নেয়, তাহলে গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে ‘বাই নাও, পে লেটার’-এর সুবিধা গ্রহণ করা উচিত। এর ফলে গ্রাহককে কম সুদ দিতে হবে এবং সেই সঙ্গে ওই গ্রাহক ক্যাশব্যাক ও রিওয়ার্ড পয়েন্টও জেতার সুযোগ পাবেন। যেগুলি পরবর্তী কেনাকাটার ক্ষেত্রে কাজে আসবে।

আরও পড়ুন: এজি-র মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া প্রস্তাব, শুভেন্দু'দের বিষয় বিধানসভায় মেটানোর পরামর্শ হাই কোর্টের!

কেনাকাটার উপর রিওয়ার্ড: সুপারমার্কেট, পেট্রোল পাম্প, হোটেল এবং অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট সাধারণত ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে বিল মেটানোর ক্ষেত্রে রিওয়ার্ড দিয়ে থাকে। আর কত রিওয়ার্ড আসছে, তার উপর নজর রাখা উচিত। আসলে যে-সব ওয়েবসাইট রিওয়ার্ড দিচ্ছে, সেখান থেকেই কেনাকাটা করলে অনেকটা টাকা সাশ্রয় করা সম্ভব হবে। উদাহরণস্বরূপ, ক্রেডিট কার্ড দিয়ে মাসে ৫০০০ টাকার কেনাকাটা করার ক্ষেত্রে কিছু সুপারমার্কেট ৫ শতাংশ ক্যাশব্যাক দিয়ে থাকে। এই ভাবে মাসে প্রায় ২৫০ টাকা ক্যাশব্যাক মিলছে। আর এক বছর পরে গ্রাহক এই ক্যাশব্যাক পয়েন্টগুলোকে নগদে ভাঙানো যায়। তবে গ্রাহক যদি ওই পয়েন্টগুলোকে রিডিম না-করেন, তাহলে তিনি আরও অতিরিক্ত অফার পেতে পারেন। সুতরাং এই ভাবে কিন্তু গ্রাহক অনেকটাই টাকা সাশ্রয় করতে পারবেন।

আরও পড়ুন: আদালতে হাততালি, তর্কাতর্কি! রোদ্দুর রায়ের পুলিশ হেফাজত, তারিখ জানিয়ে দিলেন বিচারক

মার্চেন্ট স্পেশাল ছাড়: নির্দিষ্ট স্থানে কিছু নির্দিষ্ট ব্যাঙ্কের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে কেনাকাটা করলে ছাড় পাওয়া যায়। এই ছাড়গুলির উপরেও নজর রাখা উচিত গ্রাহকদের। আসলে যে ব্যাঙ্কের ক্রেডিট কার্ড, সেই সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের তরফে নিজস্ব ওয়েবসাইটে এই ডিসকাউন্ট সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হতে থাকে। এই ছাড় ৫ থেকে ২০ শতাংশের মধ্যে হতে পারে। তাই ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করার জন্য কোনও ছাড় মিলবে কি না, সেই বিষয়ে আগে থেকেই নিশ্চিত হয়ে যাওয়া উচিত।

ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে অর্থ প্রদান করার কিছু সুবিধা: ক্রেডিট কার্ড প্রদানকারী ব্যাঙ্ক বা সংস্থাগুলিও তাদের ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কেনাকাটা করার ক্ষেত্রে গ্রাহকদের কিছু বিশেষ সুবিধা দেয়। যেমন– কোনও পণ্যের উপর বিমা কভারেজ প্রভৃতি। আর এই ধরনের বিশেষ উপযোগিতা সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। এর মাধ্যমে অতিরিক্ত অর্থ বিনিয়োগ না-করেও বিনামূল্যেই একটি পরিষেবা পাওয়া যাবে, যা ভবিষ্যতে কাজে আসবে। তাই এই বিষয়েও ওয়াকিবহাল হতে হবে। তবে এই ধরনের যে কোনও সুবিধা নেওয়ার আগে অবশ্যই এর উপর ধার্য শর্তাবলী ভালো ভাবে পড়ে নিতে হবে।

First published:

Tags: Credit Card, Personal Finance

পরবর্তী খবর