Home /News /business /

Electric Cars: এবার পেট্রোল-ডিজেল চালিত গাড়িকে সহজেই ইলেকট্রিক কারে রূপান্তরিত করতে পারবেন, সাশ্রয় হবে লক্ষাধিক টাকা

Electric Cars: এবার পেট্রোল-ডিজেল চালিত গাড়িকে সহজেই ইলেকট্রিক কারে রূপান্তরিত করতে পারবেন, সাশ্রয় হবে লক্ষাধিক টাকা

Electric Cars: এটি একটি এককালীন বিনিয়োগ যা ভবিষ্যতে লক্ষের বেশি টাকা সাশ্রয় করবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দেশে পেট্রোল, ডিজেলের দাম আকাশ ছোঁয়া হওয়ার কারণে অনেকেই কম ব্যয়বহুল জ্বালানিতে চলে এমন বাহনগুলির দিকে আকৃষ্ট হচ্ছেন। ধীরে ধীরে বাজারে ইলেকট্রিক চালিত গাড়িগুলির চাহিদা বাড়ছে। যাঁদের পেট্রোল-ডিজেল চালিত গাড়ি আছে তাঁদের পক্ষে হঠাৎ করে নতুন গাড়ি পরিবর্তন করা সহজ না-ও হতে পারে, কিন্তু তারা সহজেই নিজের গাড়িকে ইলেকট্রিক কারে রূপান্তরিত করতে পারেন। উল্লেখ্য, এই রূপান্তরের জন্য যে প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিক কিট-এর দরকার হয় তার দাম একটু বেশি মনে হতে পারে। কিন্তু এটি একটি এককালীন বিনিয়োগ যা ভবিষ্যতে লক্ষের বেশি টাকা সাশ্রয় করবে। এছাড়া, ইলেকট্রিক চালিত গাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ খরচও অনেক কম।

আরও পড়ুন: ভোটার কার্ডে বদলাতে চান ঠিকানা ? দেখে নিন কী করতে হবে ...

একটি সাধারণ গাড়িকে ইলেকট্রিকে কারে কনভার্ট করতে ৪ লক্ষ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে। এই খরচের পরিমাণ বিশেষ করে মোটর এবং ব্যাটারির ক্ষমতার উপর নির্ভর করে। একটি মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ১২ কিলোওয়াট লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি এবং ২০ কিলোওয়াট বৈদ্যুতিক মোটরের দাম ৪ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

আরও পড়ুন: ১০ লক্ষ টাকার বেশি বেতনেও দিতে হবে না কোনও ট্যাক্স! জানুন কী ভাবে!

কোথায় পেট্রোল-ডিজেল গাড়িকে ইলেকট্রিক কারে কনভার্ট করা যাবে?

পেট্রোল এবং ডিজেল চালিত গাড়িকে ইলেকট্রিক কারে পরিবর্তন করার বেশিরভাগ কোম্পানি হায়দরাবাদে অবস্থিত যাদের মধ্যে অন্যতম হল এট্রিয়ো (etrio) এবং নর্থওয়েএমএস (northwayms)। এই দুই কোম্পানি যে কোনও সাধারণ গাড়িকে ইলেকট্রিক চালিত কারে রূপান্তরিত করতে পারে। এছাড়া, দিল্লিতেও বেশ কয়েকটি কোম্পানি রয়েছে যারা এই একই কাজ করে। WagonR, Alto, Dzire, i10, Spark বা অন্য যে কোনও পেট্রোল-ডিজেল গাড়িকে বৈদ্যুতিক কারে বদলে নেওয়া যায়। সব গাড়ির ক্ষেত্রেই প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিক কিট-এর দাম প্রায় একই হয়। যদিও, ব্যাটারি ও মোটরের ক্ষমতা এবং শক্তি বৃদ্ধি করতে গেলে খরচ বাড়তে পারে।

আরও পড়ুন: মাত্র ৭০ হাজার টাকায় শুরু করা যাবে এই ব্যবসা, আয় হবে লাখ টাকার বেশি!

পেট্রোল-ডিজেল চালিত গাড়ির খরচ

গাড়িকে ইলেকট্রিক কারে কনভার্ট করার পর পেট্রোল-ডিজেল চালিত ইঞ্জিন এবং এই নতুন ইঞ্জিনের খরচের পার্থক্য বোঝা যায়। উদাহরণস্বরূপ, Tata Nexon এমন একটি গাড়ি যার তিনটি ভ্যারিয়ান্টই রয়েছে - পেট্রোল, ডিজেল এবং ইলেকট্রিক। Nexon-এর পেট্রোল এবং ডিজেল ইঞ্জিন ১৬ কিমি থেকে ২২ কিমি মাইলেজ প্রদান করে। পেট্রোলের দাম ১০০ টাকা/লিটার এবং ডিজেলের দাম ৯৫ টাকা/লিটার, হিসেব করে দেখা যাচ্ছে মাইলেজেরে ওপর ভিত্তি করে কিমি প্রতি চালকের ৪ টাকা থেকে ৬ টাকা খরচ পড়ছে। অন্য দিকে, Nexon ইলেকট্রিক কারের প্রতি ইউনিট চার্জের জন্য খরচ লাগে ৬ টাকা এবং ব্যাটারি ফুল করতে প্রায় ১৮১ টাকা খরচ হয়। একবার ব্যাটারি ফুল করলে গাড়ি ৩০০ কিমি পর্যন্ত চলবে। হিসেব করে দাঁড়াচ্ছে ইলেকট্রিক কারে চালকের কিমি প্রতি ৬০ পয়সা খরচ হবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Electric Car, Petrol price

পরবর্তী খবর