Home /News /business /

Budget 2022: বাজেট ২০২২, ওয়ার্ক ফ্রম হোম নিয়ে চলছে কেমন চিন্তা-ভাবনা, জানুন বিশদে!

Budget 2022: বাজেট ২০২২, ওয়ার্ক ফ্রম হোম নিয়ে চলছে কেমন চিন্তা-ভাবনা, জানুন বিশদে!

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

আশা করা হচ্ছে আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে চালু করা হতে পারে ওয়ার্ক ফ্রম হোম অ্যালাওয়েন্স।

  • Share this:
    #নয়াদিল্লি: ২০২২ সালের ১ ফেব্রুয়ারি পেশ করা হতে পারে ইউনিয়ন বাজেট ২০২২-২৩ (Union Budget 2022-23)। করোনা মহামারী ২০২০ সালে খুব বাজে ভাবে আঘাত করেছে বেতনভুক্ত কর্মচারীদের বেতনের ওপরে। ২০২০ সাল থেকে সেই ধারা এখনও অব্যাহত। করোনা মহামারী জন্ম দিয়েছে ওয়ার্ক ফ্রম হোমের, যার প্রভাব পড়েছে বেতনের ওপরে। এর ফলে আশা করা হচ্ছে আসন্ন ইউনিয়ন বাজেটে চালু করা হতে পারে ওয়ার্ক ফ্রম হোম অ্যালাওয়েন্স। যা বেতনভুক্ত কর্মচারীদের বেতনের ওপরে ট্যাক্স ছাড়ের সহায়তা দেবে। আরও পড়ুন:  Budget 2022: বাজেট ২০২২, বাড়ি ক্রয়ের উপর ট্যাক্স ছাড়ের পরিমাণ বৃদ্ধির সম্ভাবনা!
    ডেলয়েট ইন্ডিয়া (Deloitte India) কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করেছে যে, করোনা মহামারীর কথা মাথায় রেখে এবং বর্তমানের তৃতীয় ঢেউয়ের ওপরে নজর দিয়ে যারা বাড়িতে বসে কাজ করছে, তাদের জন্য ওয়ার্ক ফ্রম হোম অ্যালাওয়েন্সের ব্যবস্থা করা হোক। এর মাধ্যমে যারা বাড়িতে বসে কাজ করছে তাদের ওয়ার্ক ফ্রম হোম অ্যালাওয়েন্স ট্যাক্সের পরিমাণ কমানো হতে পারে। সেকশন ১৬ অনুযায়ী এর পরিমাণ প্রায় ৫০,০০০ টাকা থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত করা হতে পারে। করোনা পরবর্তী সময়ে শুরু হয়েছে ওয়ার্ক ফ্রম হোমের। এর ফলে একজন কর্মীর ব্যয়ের পরিমাণ বেড়ে গিয়েছে। কিন্তু তাদের আয় এক থাকলেও ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জন্য বেড়ে গিয়েছে তাদের ব্যয়ের পরিমাণ। ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জন্য একজন কর্মীর বাড়তি খরচ হয়ে চলেছে। ইন্টারনেট, ফোনের বিল, ফার্নিচার, ইলেকট্রিক বিল, ঘরের সেট আপ ইত্যাদির জন্য ওয়ার্ক ফ্রম হোমের ক্ষেত্রে একজন কর্মীকে টাকা খরচ করতে হচ্ছে। কিন্তু তাদের বেতনের পরিমাণ একই রয়েছে। এর ফলে বেতনভুক্ত কর্মীদের এই ধরনের সমস্যা সমাধানের জন্য আসন্ন বাজেটে ঘোষণা করা হতে পারে ওয়ার্ক ফ্রম হোম অ্যালাওয়েন্সের। এর মাধ্যমে কর্মীদের বেতনের ট্যাক্সের ওপর ছাড় দেওয়া হতে পারে। আরও পড়ুন: 7th Pay Commission: কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের এরিয়ার নিয়ে Good News! কর্মচারীরা হতে পারেন মালামাল? ইউকের (UK) মতো দেশে করোনা মহামারীর পরবর্তী সময়ে বেতনভুক্ত কর্মীদের সাহায্য করার জন্য ট্যাক্স ছাড় এবং বিভিন্ন ধরনের সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে আসন্ন ইউনিয়ন বাজেট ২০২২-২৩-এ কেন্দ্রীয় সরকার এই সকল দেশের মতোই ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জন্য কোনও নীতি প্রণয়ণ করতে পারে। এর ফলে সুবিধা হবে ওয়ার্ক ফ্রম হোম করা সকল বেতনভুক্ত কর্মীদের। ইনস্টিটিউট অফ চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট অফ ইন্ডিয়া-ও (ICAI) কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করেছে যে, ওয়ার্ক ফ্রম হোমের খরচ সামলানোর জন্য ট্যাক্সে ছাড় দেওয়া হোক।
    First published:

    Tags: Union Budget 2022

    পরবর্তী খবর