৬ কোটি মানুষের মাথায় হাত! এক ধাক্কায় অনেকটা কমল ইপিএফের-র সুদের হার

৬ কোটি মানুষের মাথায় হাত! এক ধাক্কায় অনেকটা কমল ইপিএফের-র সুদের হার

আগের আর্থিক বর্ষ, মানে ২০১৮-১৯ সালে ৮.৬৫ শতাংশ হারে সুদ প্রদান করা হয়েছিল

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: ফের কমল ইপিএপের সুদের হার৷ অর্থনীতির বেহাল দশার মাঝেই ফের একবার সঞ্চয়ে সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্তে মাথায় হাত মধ্যবিত্তের৷ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রী সন্তোষ গানোয়ার ঘোষণা করলেন, এবার থেকে ইপিএফের সুদের হার হবে ৮.৫ শতাংশ৷

আগের আর্থিক বর্ষ, মানে ২০১৮-১৯ সালে ৮.৬৫ শতাংশ হারে সুদ প্রদান করা হয়েছিল৷ এই বছরই সেটি কমিয়ে দেওয়া হল অনেকটা৷ কিন্তু সারা ভারতে এই ইপিএফের গ্রাহক রয়েছেন প্রায় ৬ কোটি মানুষ৷ শ্রমমন্ত্রকের আলোচনায় যে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে, তার সরাসরি প্রভাব পড়বে এই বিশাল সংখ্যার মানুষের জীবনে৷ যদিও সিদ্ধান্ত হয়েই গিয়েছে৷ এবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের সিদ্ধান্তের জন্য পাঠান হবে এটি৷ কারণ, এই অর্থ মন্ত্রককে শ্রম মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই আবেদন করে পাঠানোর পর মন্ত্রক অনুমতি দিলে তবেই নতুন সুদের হার কার্যকর করা হবে৷

শেষ কয়েকদিন ধরেই শ্রমমন্ত্রকের সঙ্গে ইপিএফ-এর সুদের হার কমানোর বিষয়ে আলোচনা চালাচ্ছিল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক৷ শুধু তাই নয়, পিপিএফ ও পোস্ট অফিসের একাধিক স্বল্প সঞ্চয়ে সুদের হার কমানোর বিষয়েও ভাবনা চিন্তা করছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক৷

শেষ কয়েকবছর ধরে ধাপে ধাপে অনেকবার সুদের হার কমেছে৷ ২০১৫-১৬ সালে একটু বেশি, মানে ৮.৮ শতাংশ ছিল সুদের হার৷ তারপর থেকে ধাপে ধাপে একাধিক বার এই সুদের হার কমেছে৷ আর এতেই মাথায় হাত পড়েছে মধ্যবিত্তের৷ কারণ, স্বল্প সঞ্চয়ের ওপরে ভরসা করেই অনেকে নিজের কর্মজীবন পরবর্তী খরচ সামলান৷ এককালীন অনেকটা টাকা পেলে, আর্থিক নিশ্চয়তাও পাওয়া যায়৷ কিন্তু সেই পরিকল্পনায় সরকারি সিদ্ধান্তই জল ঢালছে বারবার৷

First published: March 5, 2020, 1:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर