Home /News /business /
ডিডিএ হাউজিং স্কিমের জন্য আবেদনকারীর যোগ্যতার মাপকাঠি কী কী....

ডিডিএ হাউজিং স্কিমের জন্য আবেদনকারীর যোগ্যতার মাপকাঠি কী কী....

সংস্থাটি নিম্ন মধ্যবিত্ত থেকে ধনী, সকলের কথা মাথায় রেখেই আবাসন তৈরি করে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: রাজধানী দিল্লিকে পরিকল্পিত ভাবে উন্নত করতে ১৯৫৭ সালের সরকারের তরফে দিল্লি ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি (Delhi Development Authority) প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। শহরে বসবাসযোগ্য জায়গা খুঁজে আবাসন তৈরি করে কলোনি গঠন করাই হল এই সংস্থার দায়িত্ব। সংস্থাটি নিম্ন মধ্যবিত্ত থেকে ধনী, সকলের কথা মাথায় রেখেই আবাসন তৈরি করে। দিল্লি ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি বা DDA আয়ের উপর ভিত্তি করে গ্রাহকদের তিনটি ভাগে ভাগ করে দিয়েছে-- নিম্ন আয় গ্রুপ (LIG), মধ্য আয় গ্রুপ (MIG) এবং উচ্চ আয়ের গ্রুপ (HIG)। এই তিনটি গ্রুপকে মাথায় রেখে আবাসন ইউনিটগুলি বানানো হয়। 

    আরও পড়ুন: ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা ভুলেও করবেন না এই ৪টি কাজ, হতে পারে বড় লোকসান

    DDA হাউজিং স্কিমের যোগ্যতার মাপকাঠি:

    • আবেদনকারীকে ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।
    • আবেদনকারীর বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর হতে হবে।
    • প্যান কার্ড থাকতে হবে। 
    • দিল্লি, নয়াদিল্লি বা দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের শহুরে এলাকায় আবেদনকারীর নামে, আবেদনকারীর স্বামী/স্ত্রীর নামে এবং সন্তান-সহ কোনও নির্ভরশীল আত্মীয়ের নামে ৬৭ বর্গমিটারের বেশি বড় মাপের ফ্ল্যাট বা প্লট থাকা যাবে না।  
    • এক জন প্রার্থী শুধুমাত্র একটিই আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন।
    • এক জন স্বামী এবং স্ত্রী উভয়েই একটি স্কিমের জন্য আলাদা ভাবে আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু যদি লাকি-ড্র লটারিতে দু’জনের নামই তোলা হয়, সে ক্ষেত্রে শুধুমাত্র এক জনকেই ফ্ল্যাট দেওয়া হবে। 
    • অন্য জনকে অন্যান্য আবেদনকারীদের জন্য নিজের নাম সরিয়ে নিতে হবে। 
    • এক জন আবেদনকারী যদি একাধিক গ্রুপের জন্য আবেদন করতে চায়, তবে তাকে সব চেয়ে উচ্চ আয়ের গ্রুপের জন্য নির্ধারিত আবেদন ফি প্রদান করতে হবে।
    • অর্থনৈতিক ভাবে দুর্বল (EWS) বিভাগের জন্য আবেদন করতে চাইলে গ্রাহকের বার্ষিক আয় ১ লক্ষ টাকার মধ্যে হতে হবে।

    আরও পড়ুন:  এবার এফডি-তে সুদের হার বৃদ্ধি করল এই ব্যাঙ্ক

    DDA ফ্ল্যাট নেওয়ার জন্য প্রচুর আবেদন আসে সংস্থাটির কাছে। কাদের আবেদনের অনুমোদন দেওয়া হবে, সেটা লটারি বা লাকি-ড্রয়ের মাধ্যমে নির্ধারিত করা হয়। চলতি বছরের ১০ মার্চ তারিখে আবাসন ইউনিট বিতরণ করতে দিল্লি ডেভেলপমেন্ট অথোরিটির লাকি ড্র লটারি তোলা হয়েছিল। ‘হাউজিং স্কিম ২০২১’-এর জন্য প্রায় ৩০ হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়ে। জানুয়ারি মাসে সংস্থার তরফে ঘোষণা করে জানানো হয়েছিল, এই স্কিমে ১৪-তলা আবাসনে বিলাসবহুল ফ্ল্যাট এবং পেন্টহাউস রয়েছে গ্রাহকদের জন্য। ছাদে বাগানের সুবিধা-সহ উচ্চ স্তরের ফিনিশিং করা হবে প্রতিটি ইউনিটে। দিল্লি শহরের সেক্টর ১৯বি, দ্বারকা, মঙ্গলাপুরি এবং জসোলার মোট ১,৩৫৪টি DDA ফ্ল্যাটের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল। এই আবসনগুলি বিশেষত মধ্য আয় গ্রুপের (MIG) কথা মাথায় রেখে বানানো হয়ে। 

    আরও পড়ুন: পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কি আজ বাড়ল ? দেখে নিন...

    মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ‘হাউজিং স্কিম ২০২১’ নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যে প্রচুর উৎসাহ দেখা যায়। ৩০,০০০ আবেদনের মধ্যে ২১,০০০ আবেদন রেজিস্ট্রেশন ফি প্রদান করে অর্থাৎ ২১,০০০ জন ফ্ল্যাটের জন্য লাকি-ড্র লটারিতে অংশ নেয়। এই ২১,০০০ এর মধ্যে মাঝারি আয় গ্রুপ (MIG) এবং উচ্চ আয় গ্রুপ (HIG) ইউনিটের জন্য ৬,০০০ আবেদনপত্র আসে। আবেদনকারীদের মধ্যে দ্বারকা এবং বসন্ত কুঞ্জের ফ্ল্যাট নিয়ে সব চেয়ে বেশি চাহিদা দেখা যায়। এই দুই জায়গার ইউনিটগুলিতে সব চেয়ে ভালো এবং উচ্চ দরের ফ্ল্যাটগুলি রয়েছে। বসন্তকুঞ্জের মাত্র ১৩টি ফ্ল্যাটের জন্য ২,০০০ আবেদন করা হয়। জসোলা পকেট ৯বি আবাসনের ২১৫ HIG ফ্ল্যাটের প্রতিটির দাম ১.৯ কোটি টাকা থেকে ২.১ কোটি টাকা নির্ধারিত করা হয়, যা এখনও পর্যন্ত ‘DDA হাউজিং স্কিমের’ ইতিহাসের সব চেয়ে দামি ফ্ল্যাট হিসেবেই গণ্য করা হয়। এই ২১৫টি ফ্ল্যাটের জন্য ১,৬৭৭ জন্য গ্রাহক আবেদন করেন। 

    DDA হাউজিং লাকি-ড্র লটারি:

    দিল্লি ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি লাকি-ড্র লটারিতে কম্পিউটারাইজড ‘র‍্যান্ডম নম্বর ইন্ডিকেট টেকনিক’ পদ্ধতি ব্যবহার করে। নিম্নলিখিত তিনটি পদ্ধতিতে এই লাকি-ড্র প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

    • প্রতিটি আবেদনকারীকে এলোমেলো ভাবে একটি ফ্ল্যাট নম্বর দেওয়া। এগুলিকে এর পর প্রিন্ট করা হয় এবং যথাক্রমে ‘ক্রস রেফারেন্স আবেদনকারী’ এবং ‘ক্রস রেফারেন্স ফ্ল্যাট’ বলা হয়। এর পর এগুলিকে এলোমেলো করে মিশিয়ে বিচারকদের দিয়ে যাচাই করিয়ে নেওয়া হয়, কাগজগুলির কোনও ক্রম রয়েছে কি না। 
    • ০ থেকে ৯ পর্যন্ত নম্বর লেখা কয়েন কয়েকটি বাক্সে রাখা থাকে। কতগুলি বাক্স থাকবে, তা আবেদনকারীর সংখ্যার উপর নির্ভর করে। উদাহরণ স্বরূপ, ৫০০০ আবেদনপত্র এলে ৪টি বাক্স রাখা হবে। এর পর বিচারকরা প্রতিটি বাক্স থেকে একটি করে কয়েন তুলে লাকি নম্বরগুলি নির্বাচিত করবে।
    • এই লাকি নম্বরগুলির তালিকাভুক্ত করা হয় এবং বিচারকদের স্বাক্ষর নেওয়া হয়। এর পর লাকি নম্বরগুলিকে কম্পিউটারে দেওয়া হয়। কম্পিউটার আবেদনকারীর জন্য ফ্ল্যাটের নম্বর নির্ধারিত করে। শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী আবেদনকারীদের জন্য গ্রাউন্ড ফ্লোর সংরক্ষিত করা রাখা হয়। বাকিদের জন্য অন্যান্য তলাগুলি বরাদ্দ করা হয়।  
    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    Tags: DDA Housing Scheme

    পরবর্তী খবর