Home /News /business /
E Scooter: ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লাগছে কেন? ব্যাটারি চালিত যানবাহন কতটা নিরাপদ?

E Scooter: ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লাগছে কেন? ব্যাটারি চালিত যানবাহন কতটা নিরাপদ?

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

E Scooter: ইভি স্কুটারে আগুন লাগার ঘটনায় ৮০ বছরের একজন বৃদ্ধ অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান এবং পরিবারের অন্য ৩ জন সদস্য গুরুতর আহত হন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পেট্রোল এবং ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে ইলেকট্রিক যানবাহনের ওপর গ্রাহকদের ঝুঁকি বাড়ছে। তবে সম্প্রতি ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লেগে যাওয়ার বেশ কয়েকটি ঘটনা সামনে এসেছে। সম্প্রতি হায়দরাবাদের কাছে নিজামবাদে পিওর ইভি স্কুটারে আগুন লাগার ঘটনায় ৮০ বছরের একজন বৃদ্ধ অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান এবং পরিবারের অন্য ৩ জন সদস্য গুরুতর আহত হন। কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়করি (Nitin Gadkari) এই ঘটনাগুলি তদন্তের জন্য কমিটি গঠন করেছেন। এই ঘটনাগুলির পর ইলেকট্রিক যানবাহনের নিরাপত্তা নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠছে।

আরও পড়ুন:  Most Expensive Tea: ১ কেজি চায়ের দাম ১৩ কোটি টাকা! বিশ্বের সবচেয়ে দামি চা এবার মিলবে দেশের বাজারেও....

ইলেকট্রিক স্কুটারে ব্যবহৃত লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি কী?

স্কুটার সহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক যানবাহনে সাধারণত লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়। শক্তি সঞ্চয় এবং ধরে রাখার জন্য লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিকে সবচেয়ে উপযুক্ত বিকল্প বলে মনে করা হয়। মোবাইল ফোন থেকে শুরু করে রেফ্রিজারেটার, সব ক্ষেত্রেই শক্তি ধরে রাখার জন্য লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়। এই ব্যাটারিগুলি প্রতি ঘন্টায় ১৫০ ওয়াট শক্তি সঞ্চয় করার ক্ষমতা রাখে।

আরও পড়ুন:   Petrol Diesel Prices : ১০০ ডলারের নীচে নামল অশোধিত তেলের দাম, পেট্রোল ও ডিজেলও কী সস্তা হল ?

ইলেকট্রিক যানবাহনে কেন আগুন লাগে?

একাধিক কারণে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিতে আগুন লেগে যেতে পারে যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল উৎপাদনে ত্রুটি, ত্রুটিপূর্ণ সফটওয়ার বা বাহ্যিক কারণে ব্যাটারি ড্যামেজ। খারাপ হয়ে যাওয়া বা ড্যামেজ ব্যাটারির সেলে প্রচুর তাপ উৎপন্ন হয় যাকে ‘থার্মাল রানওয়ে’ বলা হয়। এই তাপ একটি সেল থেকে অন্য সেলে এবং সেই সেল থেকে অন্য একটি সেলে সঞ্চারিত হতে হতে ব্যাটারিতে আগুন লেগে যায়।

ব্যাটারি কীভাবে ব্যবহার করা উচিত?

লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিতে নিরাপত্তা সম্বন্ধিত অনেকগুলি সুবিধা প্রদান করা হয়। ব্যাটারিকে স্বাভাবিকে রাখতে সবসময় এর তাপমাত্রার দিকে নজর রাখা উচিত। প্রত্যেকটি লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিতে একটি বিভাজক রয়েছে যা বেশি তাপমাত্রার সংস্পর্শে এলে গলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এই বিভাজক নষ্ট হয়ে গেলে আয়ন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লেগে যাওয়া রুখতে ব্যাটারির ভেন্টিলেশনের দিখে নজর রাখা উচিত। চাপ-সংবেদনশীল ভেন্ট ব্যাটারির সেলগুলিতে অগ্নিসংযোগ থেকে আটকাতে পারে।

আরও পড়ুন:   Maruti Suzuki: বন্ধ হল মারুতি সুজুকির বিখ্যাত অল্টো এবং এস-প্রেসো মডেল! কেন এই সিদ্ধান্ত?

ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লাগা থেকে বাঁচাতে কী করা উচিত?

ব্যাটারি অতিরিক্ত চার্জ করা থেকে বিরত থাকতে হবে

ব্যাটারিকে প্রখর রোদের মধ্যে রাখা যাবে না কারণে এটি সেলের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়

পোর্টেবল ব্যাটারির ক্ষেত্রে চার্জ দিয়ে ঘুমানো উচিত নয় কারণ এতে ব্যাটারি ওভারচার্জ হয় ৷

First published:

Tags: Business

পরবর্তী খবর