Home /News /bankura /
Bankura: চার বছরের শিশুর হাতের জাদু! তবলা যেন কথা বলে!

Bankura: চার বছরের শিশুর হাতের জাদু! তবলা যেন কথা বলে!

title=

চার বছরের শিশুর হাতের জাদুর তবলা যেন কথা বলে।যে বয়সে কথা আটকায় আর পাঁচটা ছেলের, সেই বয়সে অবাস্তব কান্ড কারখানা ক্ষুদে শিশু দেবজিৎ ঘোষের।

  • Share this:

    #বাঁকুড়া : চার বছরের শিশুর হাতের জাদুর তবলা যেন কথা বলেযে বয়সে কথা আটকায় আর পাঁচটা ছেলের, সেই বয়সে অবাস্তব কান্ড কারখানা ক্ষুদে শিশু দেবজিৎ ঘোষের। কথা ঠিকমতো না বললেও হাতের তবলার যাদু যেন ঝড় তোলে। বাঁকুড়া জেলার পাত্রসায়ের ব্লকের অন্তর্গত নান্দুড় গ্রামের বাসিন্দা দেবজিৎ ঘোষ। তার তবলা বাজাবার প্রতিভা পরিবারের পাশাপাশি তার প্রতিবেশীদেরও মন কেড়েছে। ছোট্ট থেকেই দেবজিৎ এর তবলার প্রতি একটা আকর্ষণ ছিল। দেবজিৎ ছোট থেকেই হাতের কাছে যা পেত সেটাই তবলার মত করে বাজাতে শুরু করত। ছেলের এই প্রতিভা নজর কাড়ে বাবা-মা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের । ছেলের জন্মদিনে বাবা বিশ্বজিৎ ঘোষ ছেলেকে তবলা কিনে দেন। তারপর ছেলেকে একজন শিক্ষকের কাছে তবলা বাজাতে ভর্তি করে দেন এবং শিক্ষক হারাধন মন্ডল তাকে তবলা বাজানোর তালিম দিতে থাকেন।

    দেখতে দেখতে তবলাতে পারদর্শী হয়ে ওঠে দেবজিৎ। তবে শুধুমাত্র তবলা নয় নিয়ম করে নিজের পড়াশোনাও করে দেবজিৎ। দেবজিৎ ঘোষ এর বাবা বিশ্বজিৎ ঘোষ ওই এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। তবে ব্যবসা সামলে ছেলেকে প্রতিটি মুহূর্ত নজর রাখেন তিনি।

    আরও পড়ুনঃ শহর জুড়ে অশ্লীল বিজ্ঞাপনের হোর্ডিং! হোর্ডিং খুলল প্রশাসন

    তিনি বলেন ছেলের ছোট বয়স থেকেই এই প্রতিভা আমাদের নজরে আসে এবং তাই উপহার হিসেবে ছেলেকে জন্মদিনে তবলা কিনে দিই। পরে একজন শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করে বাড়িতেই ছেলেকে তবলা শেখানোর জন্য শিক্ষক নিয়োগ করেন তিনি।

    আরও পড়ুনঃ আষাঢ়েও অধরা ভারি বৃষ্টির, মাথায় হাত চাষীদের, ঘাটতি ধান চাষে

    ছোট্ট চার বছরের ছেলে দেবজিৎ ধীরে ধীরে তবলায় পারদর্শী হয়ে ওঠে। ছেলের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কামনায় স্বভাবতই ছেলের অভাবনীয় তালজ্ঞানকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বাবা বিশ্বজিৎ ঘোষ।

    Joyjiban Goswami
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Bankura

    পরবর্তী খবর