Home /News /alipurduar /
Alipurduar: নিমতির পর মধু চা বাগান, প্রো রেটা বেসিসে বেতন চালুর প্রতিবাদ, আন্দোলন শ্রমিকদের

Alipurduar: নিমতির পর মধু চা বাগান, প্রো রেটা বেসিসে বেতন চালুর প্রতিবাদ, আন্দোলন শ্রমিকদের

প্রোরেটা লাগু হওয়ায় এবারে ধর্নায় বসলেন কালচিনি ব্লকের মধু চা বাগানের শ্রমিকরা। কালচিনি ব্লকের নিমতি চা বাগানেও প্রো রেটা লাগু হওয়ায় শুরু হয়েছিল আন্দোলন।

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার : প্রোরেটা লাগু হওয়ায় এবারে ধর্নায় বসলেন কালচিনি ব্লকের মধু চা বাগানের শ্রমিকরা। কালচিনি ব্লকের নিমতি চা বাগানেও প্রো রেটা লাগু হওয়ায় শুরু হয়েছিল আন্দোলন। মঙ্গলবার নতুন করে আন্দোলনের আওয়াজ উঠল একই ব্লকের মধু চা বাগানে। জানা যায়,এদিন সকাল থেকে কাজ বন্ধ করে মধু চা বাগানের ফ‍্যাক্টরি গেটের সামনে বসে আন্দোলনে সামিল হন শ্রমিকরা। এদিন সকাল থেকে শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। শ্রমিকদের অভিযোগ, বর্তমানে চা বাগানে পাতা কম, কিন্তু চা বাগান কর্তৃপক্ষ কোনও কথা শুনছে না। ২০ কেজি করে পাতা তোলার লক্ষ‍্যমাত্রা স্থির করে দিয়েছে। আর ২০ কেজি পাতা তুলতে না পারলে মজুরি কাটা হচ্ছে শ্রমিকদের। শ্রমিকরা জানান যখন চা পাতা বেশি থাকে তখন বেশি পরিমাণে পাতা তোলা হলেও দ্বিগুন টাকা মেলে না। কিন্তু এসময় পাতা কম।এখন কিভাবে ২০ কেজি করে পাতা তোলা সম্ভব?বাগান কর্তৃপক্ষ বুঝতে চাইছে না। এর প্রতিবাদে আন্দোলন চলবে। এদিকে প্রভিডেন্ট ফাণ্ডে টাকা জমা হচ্ছে কি না তা নিয়ে ধ্বন্দ্বে রয়েছে চা শ্রমিকরা।

    আইনি জটিলতা কাটিয়ে দীর্ঘ সাত বছর পর গত এপ্রিল মাসে খুলেছে মধু চা বাগান। ২০১৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর পুজোর বোনাস বিবাদের জেরে বাগানটি বন্ধ হয়ে যায়। বছর চারেক আগে বাগানের লিজ বাতিল করে দেওয়া হয় প্রশাসনের তরফে। এরপর থেকে নতুন মালিকের খোঁজ শুরু করে রাজ্য সরকার। টেন্ডার ডাকা হয় রাজ্য সরকারের তরফে। সেই টেন্ডার পান শিলিগুড়ির চা শিল্পপতি শ্যামসুন্দর গোয়েল।

    আরও পড়ুনঃ 'বিশ্বের বেতাজ বাদশা' রাজার মৃত্যুতে মন ভার মজনুর!

    যদিও গত বছর ২৭ ডিসেম্বর বাগানটি খোলার ঘোষনা করে শ্রম দপ্তর। লিজের কাগজ তৈরি না হওয়ায় সেদিন বাগান খোলেনি। অবশেষে এপ্রিল মাসে বাগান খোলায় হাফ ছেড়ে বাঁচেন বাগানের শ্রমিকরা।সেসময় মধু চা বাগানের ফ‍্যাক্টরি গেটে ফিতে কেটে মধু চা বাগান আনুষ্ঠানিকভাবে ভাবে খুলে দেন রাজ‍্যের শ্রমমন্ত্রী বেচারাম মান্না। এরপরই মধু বাগানে ফের শ্রমিক আন্দোলনের সুর চড়তে টালমাটাল পরিস্থিতি বাগান কর্তৃপক্ষের।

    আরও পড়ুনঃ খারাপ পাম্পসেট! জিৎপুরে সেচের অভাবে মার খাচ্ছে কৃষিকাজ

    শ্রমিকদের বোঝানোর চেষ্টা শুরু করেছে বাগান কর্তৃপক্ষ। মধু চা বাগানের ম‍্যানেজার ওমপ্রকাশ মিশ্রা জানান, শ্রমিকরা কাজ বন্ধ করে আন্দোলনে সামিল হয়েছে শুনেই বিষয়টি দেখতে এসেছেন তিনি।শ্রমিকদের প্রো রেটা নিয়ে বোঝানোর কাজ চলছে। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। শ্রমিকরা দ্বিগুন পরিশ্রম করলে সে টাকা তাদের দেওয়া হয়।একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।মিটিয়ে নেওয়া হবে।

    Annanya Dey
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Alipurduar, Tea Garden

    পরবর্তী খবর