Home /News /alipurduar /
Alipurduar: নেপালি আদিকবি ভানু ভক্তের ২০৮ তম জন্মজয়ন্তী পালন কালচিনি ব্লকে

Alipurduar: নেপালি আদিকবি ভানু ভক্তের ২০৮ তম জন্মজয়ন্তী পালন কালচিনি ব্লকে

Alipurduar: শ্রদ্ধার সঙ্গে নেপালি আদিকবি ভানুভক্তের জন্মদিন পালিত হল আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকে। আদিকবি ভানুভক্তের জন্মদিন ভানু জয়ন্তী নামে পরিচিত।

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার : শ্রদ্ধার সঙ্গে নেপালি আদিকবি ভানুভক্তের জন্মদিন পালিত হল আলিপুরদুয়ার জেলার কালচিনি ব্লকে। আদিকবি ভানুভক্তের জন্মদিন ভানু জয়ন্তী নামে পরিচিত। ভানুভক্ত আচার্য ১৮১৪ খ্রিস্টাব্দের ১৩ই জুলাই নেপালের তনহুঁ জেলার রামঘা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। কবি ভানুভক্ত আচার্য প্রতিবেশী দেশ নেপালের ভানুভক্তকে “আদিকবি” উপাধিতে ভূষিত করা হয়েছে নেপালি কবিতা ও সাহিত্যে অবদানের জন্য। বিশেষ করে সংস্কৃত ভাষা থেকে সহজ ও সরলভাবে রামায়ণের অনুবাদ সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় হওয়ার জন্য। তার জন্মদিন প্রতি বৎসরের ১৩ই জুলাই বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়ে উদ্‌যাপন করা হয়। লিখিত মাধ্যমে সংস্কৃত ছাড়া অন্য দক্ষিণ এশীয় ভাষার ব্যবহার ছিল সীমিত। তাই সাধারণ মানুষের কাজে সবই অগম্য ছিল। যেহেতু ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মানুষেরা শিক্ষক, পণ্ডিত এবং পুরোহিত ছিলেন, তাই ধর্মশাস্ত্র ও অন্যান্য সংস্কৃতি ও সাহিত্যকর্মে তাঁদেরই আধিপত্য ছিল। তাদের অতি অল্পসংখ্যকই শিক্ষা লাভ করতেন এবং সংস্কৃত শিখতেন। অনেক কবিই সংস্কৃতে কবিতা রচনা করেছেন, কিন্তু ভানুভক্ত নেপালি ভাষায় লিখতে শুরু করেন এবং এর ফলে তিনি সাধারণ মানুষের জনপ্রিয়তা লাভ কর।

    নেপালি ভাষাভাষী মানুষের কাছে মহাকাব্য রামায়ণের রামের বীরত্বের কথা কাহিনী নেপালি ভাষার লোককথায় নিয়ে আসাটাকে আচার্য অত্যন্ত জরুরী মনে করেন। যেহেতু বেশিরভাগ মানুষই সংস্কৃত ভাষা বোঝেন না, তাই তিনি জরুরি তাগিদে মহাকাব্যটিকে নেপালি ভাষায় অনুবাদ করেন। বিদ্বজ্জনের মতে, রামায়ণের কাব্য রচনার রীতিকে অক্ষুণ্ণ রেখে, আঞ্চলিক প্রভাবে রামায়ণের আভ্যন্তরীণ অর্থকে বিকৃত না করে, কবিতার মত না করে গানের সুরে একই 'ভাব' ও 'মর্ম'-এ উপস্থাপন করেছেন।

    আরও পড়ুনঃ করুণ পরিস্থিতি জয়গাঁর রণবাহাদুরবস্তির রাস্তার, পরিস্থিতি ঘুরে দেখলেন বিডিও

    নেপালি আদিকবি ভানুভক্ত আচার্যের জনপ্রিয়তা রয়েছে সব ভাষাভাষী মানুষদের মধ্যে।বুধবার কালচিনি ব্লকের জয়গাঁ জিএসটি মোড়ে কবি ভানুভক্তের মূর্তি উন্মোচন করা হয়।উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী বুলু চিক বরাইক।ভানুভক্ত জয়ন্তী আয়োজক সমিতির পক্ষ থেকে এই মূর্তি স্থাপন করা হয়। নেপালি কবি ভানুভক্তের 208 তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

    আরও পড়ুনঃ নিমতির পর মধু চা বাগান, প্রো রেটা বেসিসে বেতন চালুর প্রতিবাদ, আন্দোলন শ্রমিকদের
    নেপালি আদি কবি ভানুভক্তের মূর্তির সামনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আয়োজক সমিতির সদস্যরা। কালচিনি বিডিও দফতরে এদিন ভানু জয়ন্তী পালিত হয়। নেপালি আদিকবি ভানুভক্তের ছবিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিডিও প্রশান্ত বর্মণ। অনাড়ম্বর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজিত হয় বিডিও অফিসের সামনে। কালচিনি ব্লকের মালঙ্গী এলাকাতেও ভানুভক্ত জন্মজয়ন্তী পালিত হয়।

    Annanya Dey

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Alipurduar, North Bengal

    পরবর্তী খবর